‘মর্নিং ওয়াক’- এ বেরিয়েছে হাতির পাল, টুইটারে ভাইরাল ভিডিয়ো দেখে মুগ্ধ নেটিজ়েনরা

ইতিমধ্যেই দু'হাজারের বেশি ভিউ হয়েছে এই ভিডিয়োর। লাইকও পড়েছে দু'হাজারের বেশি।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 9:31 AM, 6 Apr 2021
'মর্নিং ওয়াক'- এ বেরিয়েছে হাতির পাল, টুইটারে ভাইরাল ভিডিয়ো দেখে মুগ্ধ নেটিজ়েনরা
হাতিদের মর্নিং ওয়াক।

প্রাতঃভ্রমণে বেরিয়েছে হাতির পাল। দেখে মনে হচ্ছে যেন একই পরিবারের সদস্য তারা। ছোট থেকে বড় সার দিয়ে একে একে এগিয়ে চলেছে সবাই। জঙ্গলের মধ্যে দিয়েই চলছে তাদের ‘মর্নিং ওয়াক’। এমনই একটি ভিডিয়ো নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে শেয়ার করেছেন ভারতীয় বনবিভাগের আধিকারিক প্রবীণ কাসওয়ান। বন্য প্রাণীদের নানারকমে কাণ্ডকারখানা হামেশাই সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে থাকেন এই আইএফএস অফিসার। মুহূর্তেই সেইসব ভিডিয়ো ভাইরালও হয়ে যায়। এবারও তার অন্যথা হয়নি। নেটিজ়েনরা বেজায় খুশি হয়েছেন এই ভিডিয়ো দেখে।

আরও পড়ুন- আয়নার সামনে ‘রূপে বিভোর’ কালো ঘোড়া, ভাইরাল ভিডিয়ো দেখে হাসির রোল নেট দুনিয়ায়

টুইটারে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, হাতির দলে রয়েছে ছোট্ট এক হস্তি শাবকও। দেখেই বোঝা যাচ্ছে পরিবারের ওই ছোট সদস্যকে নিয়েই সাতসকালে হাঁটতে বেরিয়েছেন পরিবারের বড়রা। ভিডিয়োর শেষে আবার দেখা গিয়েছে এক পূর্ণবয়স্ক হাতিকে। ওই হাতিকে দেখে টুইটারিয়ানরা বলছেন, “পরিবারের সবচেয়ে বয়স্ক সদস্য রয়েছেন একদম পিছনে। ভাল করে দেখে নিচ্ছেন যাতে কেউ পিছনে আলাদা পড়ে না থাকে। ঠিক যেমনটা আমাদের পরিবারে বাবারা করে থাকেন।”

নেটিজ়েনদের অনেকে আবার বলছেন, “হাতিরাও নিজেদের ফিটনেসের প্রতি নজর দিয়েছে। আমাদের সকলেরও এমনটাই করা উচিত। সত্যিই ওদের দেখে অনেক কিছু শেখার আছে।” এমনকি ভিডিয়ো শেয়ার করে প্রবীণ কাসওয়ানও লিখেছেন, ‘হাতিদের মর্নিং ওয়াক। এই পরিবার সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে চায়।’ ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, চুপচাপ শান্তভাবে একে অন্যের পিছনে হাঁটছে তারা। এমনকি সবচেয়ে ছোট হাতিটাও বেশ শান্ত ভাবেই কান দুলিয়ে মাথা নড়িয়ে হেঁটে চলেছে তার পরিবারের অন্যান্য বড়দের সঙ্গে। দেখে মনে হচ্ছে জঙ্গলের এক দিক থেকে অন্য দিকে যাচ্ছে ওই হাতির পাল। আশপাশে শোনা যাচ্ছে পাখির ডাক। সকালের শান্ত স্নিগ্ধ মনোরম পরিবেশে হাতির দলও যে মুগ্ধ হয়েছে, হাবেভাবে তেমনটাই বুঝিয়ে দিয়েছে তারা।

ইতিমধ্যেই দু’হাজারের বেশি ভিউ হয়েছে এই ভিডিয়োর। লাইকও পড়েছে দু’হাজারের বেশি।