Bhawanipore: রাতের ভবানীপুরে ফের উত্তেজনা, দুই যুবককে উইকেট দিয়ে মারধর, আঘাত থুতনিতে

Bhabanipur: ৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুরে উপনির্বাচন। সোমবারই ছিল ভোট প্রচারের শেষ দিন। এদিন দুপুরে হঠাৎই বিজেপির প্রচার কর্মসূচি ঘিরে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় ভবানীপুরে।

Bhawanipore: রাতের ভবানীপুরে ফের উত্তেজনা, দুই যুবককে উইকেট দিয়ে মারধর, আঘাত থুতনিতে
সোমবার ভোট প্রচারে এ ভাবেই উত্তেজনা ছড়ায়। ফাইল চিত্র।

কলকাতা: দিনভর শিরোনামে থাকার পর ফের রাতে উত্তপ্ত হয়ে উঠল ভোটের ভবানীপুর (Bhawanipore By-Election)। শেষ দিনের ভোট প্রচারে বিজেপি (BJP) নেতাদের উপর হামলার অভিযোগের পর রাতে দুই যুবককে মারধরের অভিযোগ উঠল সেই ভবানীপুরেই। সোমবার মাঝরাতে ভবানীপুর থানা থেকে এক কিলোমিটারের মধ্যে দুই কলেজ পড়ুয়ার উপর অতর্কিতে হামলা ও এক যুবককে উইকেট দিয়ে মারধরের অভিযোগ ওঠে। গাড়িতে করে আসা একদল অজ্ঞাত পরিচয় যুবক তাঁদের মারধর করে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় ভবানীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন আক্রান্তরা। ওই দুই যুবকের দাবি, তৃণমূল (Trinamool Congress) কর্মী সন্দেহে তাঁদের উপর হামলা করেছে ওই দুষ্কৃতীর দল।

পুলিশ সূত্রে খবর, আক্রান্ত দুই যুবকের নাম সত্যদীপ মল্লিক ও সিদ্ধার্থ যোশী। দুই যুবকই ভবানীপুর থানা এলাকার বিজয় বোস রোড ৮ নম্বর কেএমসি কটেজের বাসিন্দা। দু’জনই কলেজ পড়ুয়া। জানা গিয়েছে, সত্যদীপ ও সিদ্ধার্থ দুই বন্ধু। একটি স্কুটিতে চেপে এদিন রাতে ওষুধ কিনতে যাচ্ছিলেন তাঁরা।

অভিযোগ, সেই সময় ভবানীপুর থানা থেকে প্রায় এক কিলোমিটারের মধ্যে তাঁদের পথ আটকায় একটি কালো রঙের জিপ গাড়ি। সেই গাড়ির ভিতর সাত থেকে আটজন ছিলেন। এর মধ্যে দু’জন গাড়ি থেকে নেমে এসে সত্যদীপ ও সিদ্ধার্থকে স্কুটি থেকে নামায়। অভিযোগ, এরপরই উইকেট দিয়ে আক্রমণ করা হয় দুই যুবককে।

স্কুটিটি চালাচ্ছিলেন সিদ্ধার্থ। তিনি কোনও মতে বড় বিপদ থেকে বাঁচলেও, রক্ষা পাননি সত্যদীপ। অভিযোগ, সত্যদীপের থুতনিতে উইকেট দিয়ে সজোরে আঘাত করে এক যুবক। তারপর এলাকা ছেড়ে চম্পট দেয় অভিযুক্তরা। ঘটনায় রাতেই স্থানীয় ভবানীপুর থানায় অভিযোগ জানান আক্রান্তরা। কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। তবে এতে রাজনীতির রং খুঁজে পাচ্ছেন ওই দুই যুবক।

ঘটনায় কে বা কারা জড়িত, কী উদ্দেশেই বা এই হামলা, সবদিক খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। একই সঙ্গে প্রশ্ন উঠছে, যেখানে উপনির্বাচনের আগে ভবানীপুর বিধানসভা এলাকার বিভিন্ন রাস্তায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে রাতভর নাকা তল্লাশি চালাচ্ছে কলকাতা পুলিশ। সেখানে কী ভাবে ভবানীপুর থানা থেকে এক কিলোমিটারের মধ্যে এই দুষ্কৃতী দৌরাত্ম্য চলল?

৩০ সেপ্টেম্বর ভবানীপুরে উপনির্বাচন। সোমবারই ছিল ভোট প্রচারের শেষ দিন। এদিন দুপুরে হঠাৎই বিজেপির প্রচার কর্মসূচি ঘিরে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় ভবানীপুরে। যদুবাবুর বাজারের কাছে একটি পথসভায় অংশ নিতে যাচ্ছিলেন দিলীপ ঘোষ। সেই সময় তাঁকে ঘিরে ধরে বিক্ষোভ দেখায় একদল। ঘটনায় নাম জড়ায় তৃণমূলের। এই নিয়ে তুলকালাম বেধে যায়। বিকেলেই নির্বাচন কমিশনে যায় বিজেপি। গোটা ভবানীপুরে ১৪৪ ধারা বলবৎ করে ভোট করানোর দাবি তোলেন শিশির বাজোরিয়া, স্বপন দাশগুপ্তরা। অন্যদিকে নির্বাচন কমিশনের তরফে এই ঘটনা নিয়ে রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব করা হয়। বিকেলেই সে সংক্রান্ত লিখিত রিপোর্ট পাঠায় কলকাতা পুলিশ। তারা দাবি করেন, অনুমতি ছাড়াই বাড়ি বাড়ি গিয়ে প্রচার করছিল বিজেপি। সেখান থেকেই ঝামেলার সূত্রপাত। যা পরবর্তী কালে তুমুল অশান্তির রূপ নেয়।

আরও পড়ুন: Unknown Fever: পাঁচ দিনের ছোট্ট প্রাণ জ্বরে কাবু, শ্বাস নিতে পারছিল না কোনও ভাবেই! আবারও শিশুমৃত্যু জলপাইগুড়িতে!

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla