Municipal Election: আজ সর্বদল, আগামিকালই রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে তলব রাজ্যপালের

Municipal Election: রাজ্য নির্বাচন কমিশনের যিনি প্রধান হন, তিনি যাবতীয় রিপোর্ট করেন রাজ্যপালকে।

Municipal Election: আজ সর্বদল, আগামিকালই রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে তলব রাজ্যপালের
রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে ডেকে পাঠালেন রাজ্যপাল। অলঙ্করণ অভীক দেবনাথ।


কলকাতা: রাজ্য নির্বাচন কমিশনারকে তলব করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। মঙ্গলবার তাঁকে তলব করা হয়েছে রাজভবনে। সূত্রের খবর, পুরভোট নিয়ে আলোচনার জন্যই রাজভবনে ডেকে পাঠানো হয়েছে রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ দাসকে। সোমবার নিজেই টুইট করে সে কথা জানিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।

টুইটারে জগদীপ ধনখড় লেখেন, ‘পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ দাস ২৩ নভেম্বর দুপুর ৩টেয় কলকাতা রাজভবনে আসন্ন পুরভোট নিয়ে জানাবেন।’ সংবিধানের কোন ধারায় এই ডেকে পাঠানো টুইটে সে কথাও উল্লেখ করে দিয়েছেন রাজ্যপাল।

কলকাতা ও হাওড়ার পুরভোট নিয়ে সোমবার এক সর্বদল বৈঠক রয়েছে। রাজ্য নির্বাচন কমিশনে এই বৈঠক হবে। রাজ্যের সমস্ত রাজনৈতিক দলকেই এই বৈঠকে উপস্থিত থাকতে বলা হয়েছে। পুরভোট নিয়ে আইনি লড়াই চললেও নির্বাচনী প্রস্তুতি সেরে রাখতে চাইছে নির্বাচন কমিশন। সেই লক্ষ্যেই সোমবার সর্বদল বৈঠকের ডাক দেওয়া হয়েছে।

একদিকে যেমন পুরভোট সংক্রান্ত আলোচনা হবে। একই সঙ্গে যেহেতু কোভিড পরিস্থিতি চলবে, তাই স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে কী ভাবে ভোট করা যায় তা নিয়েও সর্বদল বৈঠকে আলোচনা হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এদিকে নিয়ম অনুযায়ী সর্বদল বৈঠকের ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে ভোটের একটা বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের সম্ভাবনা থাকে। সেই মতো সোমবার সর্বদল হলে, বুধবারের মধ্যে বিজ্ঞপ্তি জারির একটা সম্ভাবনা রয়েছে।

এ সংক্রান্ত সমস্ত বিষয় নিয়েই রাজ্যপালের সঙ্গে কথা হতে পারে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের। অর্থাৎ সর্বদল বৈঠকে কী হয় তার বিস্তারিত আপডেট নিয়েই মঙ্গলবার রাজভবনে যাবেন রাজ্য নির্বাচন কমিশনার সৌরভ দাস। কথা বলবেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের সঙ্গে। নিঃসন্দেহে এই বৈঠক অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। প্রসঙ্গত, পুরভোট নিয়ে যে আইনি লড়াই চলছে, বুধবার আবার সেই মামলার শুনানি রয়েছে।

রাজ্য নির্বাচন কমিশন একটি স্বয়ংশাসিত সংস্থা। এর সঙ্গে রাজ্য সরকারের কোনও সম্পর্ক নেই। রাজ্য নির্বাচন কমিশনের যিনি প্রধান হন, তিনি যাবতীয় রিপোর্ট করেন রাজ্যপালকে। সেই হিসাবে রাজ্য নির্বাচন কমিশনারের প্রতিটি পদক্ষেপ রাজ্যপালকে জানিয়ে করতে হয়। বলা যেতে পারে, চাইলেই রাজ্যপাল কমিশনের সমস্ত বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে পারেন।

২৪ নভেম্বর হাইকোর্টে ভোট-মামলার শুনানি

কলকাতা হাইকোর্টে সম্প্রতি একটি মামলা দায়ের করে বিজেপি। সেখানে তারা জানায়, কেন শুধুমাত্র কলকাতা ও হাওড়ায় পুরভোট করাতে চাইছে রাজ্য সরকার? কেন বাকি পুরসভাগুলিতে এখনই ভোট করানো হবে না। প্রধান বিচারপতির এজলাসে ১৬ নভেম্বর এই মামলা ওঠার পরই নির্বাচন কমিশনের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয় আপাতত এ বিষয়ে তারা কোনও সিদ্ধান্ত নেয়নি। একই সঙ্গে কমিশন জানিয়ে দেয়, আপাতত ভোটের কোনও বিজ্ঞপ্তি তারা জারি করছে না। এই মামলারই শুনানি রয়েছে আগামী বুধবার।

আরও পড়ুন:  BJP State Office: গঙ্গাজল ছিটিয়ে শুদ্ধিকরণ, তৃণমূলের বিক্ষোভ সরতেই রাজ্য দফতরকে আগলে রেখেছে বিজেপি

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla