করোনা যুদ্ধে এবার ‘দুয়ারে দশভূজা’

বেহালার পুজোর কমিটিগুলি এক ছাতার তলায় অনেকদিন। নাম বিএসএস স্পোর্টিং ক্লাব। পুরো নাম, বেহালা সংস্কৃতি সম্মিলনী স্পোর্টিং ক্লাব। পুজোর সময় যেমন বেহালা নতুন দল থেকে দেবদারু ফটকের পুজো আপনারা দেখতে যান, সেই সব কমিটিই এই ছাতার তলায়। প্রতিটি কমিটি নিজেদের মত ভাগ করে নিয়েছে নিজেদের দায়িত্ব এই করোনা মোকাবিলায়।

করোনা যুদ্ধে এবার 'দুয়ারে দশভূজা'
উত্তর থেকে দক্ষিণ- কোভিড যুদ্ধে পুজো কমিটিরা

কলকাতাঃ ‘আশ্বিন শারদপ্রান্তে…’। মহালয়ার ভোরে বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্রের মহিষাসুরমর্দিনী বাঙালির পুজো (DURGA PUJA) পুজো ভাবটা যেন অনুঘটকের(CATALYST) মত বাড়িয়ে দেয় কয়েকগুণ। আর তখন কলকাতার (KOLKATA) বড় পুজো উদ্যোক্তাদের শিরে সংক্রান্তি। কোথাও উদ্বোধন শুরু। কোথাও শেষ তুলির টান চলে দিন রাত এক করে। তবে চলতি বছরে পুজো কেমন হবে, সে নিয়ে ভাবারই এখন সময় নেই কলকাতার পুজো উদ্যোক্তাদের। বরং থিমের(THEME) ভাবনাকে সরিয়ে রেখে কলকাতার করোনা (COVID19)আক্রান্তদের পাশে দিনরাতের লড়াইয়ে উত্তর থেকে দক্ষিণ কলকাতার নামী পুজোর উদ্যোক্তারা।

উত্তরের বেলেঘাটা ৩৩ পল্লীর পুজো কমিটি। থিমের পুজোর জন্য দূরদূরান্ত দর্শকরা আসে পুজোর প্রায় প্রতিটি দিনই। মে মাসের শেষ সপ্তাহে পুজোর কাজ শুরু হয়ে যায় ফি বছর। কিন্তু এবছর সেই দিকে নজর দেওয়ার তেমন ফুরসতই নেই পুজো উদ্যোক্তাদের। বরং তাঁদের মন পড়ে রয়েছে বেলেঘাটা ও তার আশেপাশের অঞ্চলে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য। অক্সিজেন থেকে শুরু করে চিকিৎসা, কিংবা করোনা আক্রান্তের বাড়ি বাড়ি খাবার পৌঁছে দেওয়া। এখন এটা এবারের মূলমন্ত্র তাঁদের। রবিবারই ক্লাব সংলগ্ন একটা গোটা আবাসনকে তৈরি করা হয়েছে অক্সিজেন হাব হিসেবে। যেখানে এলাকার মানুষজন তো বটেই, আশেপাশের এলাকার মানুষজনও অক্সিজেনের মাত্রায় সমস্যা হলে যাতে প্রাথমিক অক্সিজেন পরিষেবা পান,সেই দিকে নজর পুজ উদ্যোক্তাদের। বেলেঘাটা ৩৩ পল্লী পুজো কমিটি তাঁদের এই উদ্যোগকে নামও দিয়েছে নজরকাড়া। দুয়ারে দশভূজা।

PUJA COMMITTEES ARE UNITED AGAINST CORONA

বেলেঘাটা ৩৩ পল্লী পুজো কমিটির উদ্যোগ ‘দুয়ারে দশভূজা’

 

উত্তরের বেলেঘাটা থেকে এবার নজর রাখা যাক দক্ষিণের বেহালায়। সেখানে একটি বা দুটি ক্লাবের উদ্যোগ। পুরো বেহালার পুজো উদ্য়োক্তারাই এক ছাতার তলায় এখন করোনা রোগীর সেবায় ব্রতী। বেহালার পুজোর কমিটিগুলি এক ছাতার তলায় অনেকদিন। নাম বিএসএস স্পোর্টিং ক্লাব। পুরো নাম, বেহালা সংস্কৃতি সম্মিলনী স্পোর্টিং ক্লাব। পুজোর সময় যেমন বেহালা নতুন দল থেকে দেবদারু ফটকের পুজো আপনারা দেখতে যান, সেই সব কমিটিই এই ছাতার তলায়। প্রতিটি কমিটি নিজেদের মত ভাগ করে নিয়েছে নিজেদের দায়িত্ব এই করোনা মোকাবিলায়। কিরকম?

এসবি পার্ক পুজো কমিটি এলাকায় অক্সিজেন সরবরাহ করছে। বড়িশা ক্লাব চালু করেছে কমিউনিটি কিচেন।দেবদারু ফটকের উদ্যোক্তারা বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছে খাবার। সেফ হোম চালু করেছে ৪১ পল্লী পুজো কমিটির উদ্যোক্তারা। বাসুদেবপুর পুজো কমিটি অক্সিজেন পার্লার চালু করেছে রোগীদের জন্য। নতুন সংঘ বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিচ্ছে অক্সিজেন সিলিন্ডার। এরকম প্রায় বেহালার প্রায় ১০টি ক্লাব বেহালার প্রতিটি কোনায় পৌঁছে দিতে চাইছে পরিষেবা।

 

PUJA COMMITTEES ARE UNITED AGAINST CORONA

করোনা মোকাবিলায় জোট বেঁধেছে বেহালার পুজো উদ্যোক্তারা

এখানেই শেষ নয়, আগামি সপ্তাহ থেকেই বিএসএস স্পোর্টিং ক্লাব উদ্যোগ নিচ্ছে বিনামূল্যে অক্সিজেন পরিষেবা থেকে টেলিমেডিসিন পরিষেবা, বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেওয়া। এমনকি বিনামূল্যে ওষুধ পরিষেবাও। তবে আসন্ন সপ্তাহে ইয়াস পূর্বাভাসের কথা মাথায় রেখেই নিজেদের পরিকল্পনা সাজাচ্ছেন বেহালার পূজো উদ্যোক্তারা।

 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla