Kolkata Water Logging: পচা জলে দিন কাটছে ৯৬-এর বৃদ্ধার, দুর্দশার কথা বলতে গিয়ে ডুকরে কাঁদলেন ছেলে

Kolkata Water Logging: পরিস্থিতির শিকার হয়ে গত তিনদিন ধরে জলবন্দি অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন ৯৬ বছরের বৃদ্ধা।

Kolkata Water Logging: পচা জলে দিন কাটছে ৯৬-এর বৃদ্ধার, দুর্দশার কথা বলতে গিয়ে ডুকরে কাঁদলেন ছেলে
বাসিন্দাদের অভিযোগ, প্রশাসনকে বারবার জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। নিজস্ব চিত্র

কলকাতা: একটানা বৃষ্টিতে দমদম পার্ক জলে থৈ-থৈ (Water Logging)। দু-কূল ছাপিয়ে বইছে নোংরা বাগজোলা খাল। হাঁটু সমান জমা পচা জলে নাজেহাল অবস্থা উত্তর কলকাতার (Kolkata) দমদম পার্ক এলাকার একাধিক ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের। বুক সমান উচ্চতায় ওঠা জল ৯৬ ঘণ্টা পরে নেমেছে সবে হাঁটু পর্যন্ত। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, প্রশাসনকে বারবার জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। ফলে প্রতি বর্ষাতেই নরক যন্ত্রণা ভোগ করতে হয় এলাকার বাসিন্দাদের। এ বারেও তার ব্যতিক্রম নয়। আর এই পরিস্থিতির শিকার হয়ে গত তিনদিন ধরে জলবন্দি অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন ৯৬ বছরের বৃদ্ধা।

দমদম পার্ক এলাকায় একটি বাড়িতে খাটের ওপর শুয়ে রয়েছেন ৯৬ বছরের বৃদ্ধা। চারিদিকে নোংরা, পচা, দুর্গন্ধময় জল। বাড়িতে টেকা দায়। কিন্তু কোথাও যাওয়ার উপায়ও নেই। ছেলে অর্পণ ভৌমিকের দুশ্চিন্তা, এমন অবস্থায় মায়ের শরীর যদি খারাপ হয়, তাহলে চিকিৎসা করাবেন কী ভাবে? ৯৬ ঘণ্টা ধরে জল যন্ত্রণা ভোগ করার পরেও প্রশাসনে তরফে কোনও রকম সাহায্য মেলেনি বলে অভিযোগ অর্পণের। তার ওপরে ফের নিম্নচাপ তৈরি হচ্ছে। রবিবার প্রবল বর্ষণের আশঙ্কায় লাল সতর্কতা জারি করেছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। এ ভাবে চলতে থাকলে বাড়ির একতলা আবারও পুরোটাই জলে ডুবে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। সেই ধরনের পরিস্থিতি হলে কী পরিণতি হবে, সেটা ভেবেই কাঁটা দমদম পার্কের পরিবারগুলি।

জমা জলের করুণ পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে গিয়ে TV9 বাংলার ক্যামেরার সামনে ভেঙে পড়েন অর্পণ। “ঘরে আমার বৃদ্ধ মা। তাঁকে নিয়েই সবচেয়ে বেশি উৎকণ্ঠা। তাঁর ৯৬ বছর বয়স। এখন এই মুহূর্তে যদি কোনও বিপদ হয়, আমি কোনও ডাক্তার ডাকতে পারব না।” কান্নাভেজা গলায় অর্পণ বলে ওঠেন, “কী অবস্থায় রয়েছি আমরাই জানি।”

আরও পড়ুন: BJP: ‘আর কত লাশ দেখলে শান্ত হবেন?’ মৃত বিজেপি প্রার্থীর দেহ নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির সামনে বিক্ষোভ রাজ্য সভাপতির

যাঁদের পক্ষে সম্ভব, তাঁরা ইতিমধ্যেই নিজের বসত বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন। আর যাঁদের পক্ষে সম্ভব নয়, তাঁদের সেই জমা জলেই দিন কাটাতে হচ্ছে। বিষাক্ত পোকামাকড়, সাপের পাশাপাশি নোংরা জলে হাতে পায়ে নানা চর্ম রোগ বাসা বাধার ভয়ে রয়েছেন নিরুপায় বাসিন্দারা। এর পাশাপাপাশি জমা জলে ডেঙ্গি, ম্যালেরিয়ার প্রকোপ বাড়ার সম্ভাবনা তো রয়েছেই। এমনকি, এমন অবস্থায় বাড়িতে কেউ অসুস্থ হলে কী ভাবে তাঁর চিকিৎসা করানো হবে, সেটাও দুশ্চিন্তায় রেখেছে দমদম পার্ক এলাকার বাসিন্দাদের।

আরও পড়ুন: BJP North Bengal: দক্ষিণে জল-যন্ত্রণা, উত্তরে জ্বরাতঙ্ক, শুক্রবার থেকেই বৃহৎ আন্দোলনে বিজেপি

আরও পড়ুন: Chhatradhar Mahato: রাজধানী এক্সপ্রেস কাণ্ডে ছত্রধরের বিরুদ্ধে NIA চার্জশিট, নাম রয়েছে কিষেণজিরও

 

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla