রাজ্যপালের অনুমোদন ছাড়াই মেয়াদ বাড়ল প্রেসিডেন্সি উপাচার্যের, ফের সংঘাতের ইঙ্গিত!

গত ৩ জুন মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন আচার্যের কাছে করা হয়েছিল। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাতে কোনও অনুমোদন আসেনি। এখানেই গোল বেঁধেছে।

রাজ্যপালের অনুমোদন ছাড়াই মেয়াদ বাড়ল প্রেসিডেন্সি উপাচার্যের, ফের সংঘাতের ইঙ্গিত!
ফাইল ছবি

কলকাতা: এ বার প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয় নিয়েও রাজ্য বনাম রাজ্যপালের সংঘাতের ইঙ্গিত। প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের মেয়াদ বৃদ্ধি নিয়ে নতুন করে বিতর্ক শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর, পদাধিকার বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের অনুমতি ছাড়াই উপাচার্যের পদে অনুরাধা লোহিয়ার মেয়াদ বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য সরকার। অভিযোগ অন্তত এমনটাই।

সূত্রের খবর, প্রেসিডেন্সির উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়ার মেয়াদ আজ, অর্থাৎ ১০ জুন শেষ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তার আগেই রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হয়, গত ৩ জুন মেয়াদ বৃদ্ধির আবেদন আচার্যের কাছে করা হয়েছিল। কিন্তু এখনও পর্যন্ত তাতে কোনও অনুমোদন আসেনি। এখানেই গোল বেঁধেছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রেসিডেন্সির মতো বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্য ছাড়াই চলবে এটা সম্ভব নয়। সেই কারণেই বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় উচ্চশিক্ষা দফতরের তরফে আরও দু’বছরের জন্য অনুরাধা লোহিয়ার সময়সীমা বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: বাংলায় নাগরিকত্ব আইনের জালেই জড়িয়ে ৩৫৬ ধারার চাবিকাঠি? প্রমাদ গুনছে পদ্ম

রাজ্যের শিক্ষা দফতরের এহেন পদক্ষেপের জেরে রাজভবনের সঙ্গে যে নতুন করে সংঘাতের আবত তৈরি হবে তা একপ্রকার নিশ্চিত। যদি উচ্চশিক্ষা দফতরের আধিকারিককের একাংশের মতে, যেহেতু সাম্প্রতিক সময় কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় সম্পর্কিত বিধিতে একাধিক পরিবর্তন হয়েছে। তাই সব ক্ষেত্রে আচার্যের সম্মতি যে বাধ্যতামূলক, তেমনটা নয়। জরুরি পরিস্থিতিতে শিক্ষা দফতর যে কোনও আপাতকালীন সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আগামিকাল থেকে যাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্রিয়া স্বাভাবিকভাবে চলতে পারে, তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন: ‘অরাজকতা চলছে চন্দননগর-তিলজলায়’, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে ফের তোপ রাজ্যপালের

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla