‘অরাজকতা চলছে চন্দননগর-তিলজলায়’, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে ফের তোপ রাজ্যপালের

টুইটে তিনি দাবি করেছেন, হুগলির চন্দননগর এবং কলকাতার তিলজলা এলাকায় এই ঘটনাগুলি ঘটেছে। যারা এই ঘটনার জন্য প্রত্যক্ষভাবে দায়ী তাঁদের গ্রেফতারেরও দাবি জানিয়েছেন তিনি।

‘অরাজকতা চলছে চন্দননগর-তিলজলায়’, আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে ফের তোপ রাজ্যপালের
ফাইল ছবি

কলকাতা: রাজ্যের বেশ কয়েকটি জায়গায় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি নিয়ে ফের একবার রাজ্য সরকারকে নিশানায় নিলেন জগদীপ ধনখড়। যে যে জায়গায় অশান্তি এবং সংঘর্ষের ঘটনা ঘটছে, সেই জায়গাগুলির ক্ষেত্রে প্রশাসন যাতে দ্রুত পদক্ষেপ করে তা নিশ্চিত করতে বলেছেন রাজ্যপাল। টুইটে তিনি দাবি করেছেন, হুগলির চন্দননগর এবং কলকাতার তিলজলা এলাকায় এই ঘটনাগুলি ঘটেছে। যারা এই ঘটনার জন্য প্রত্যক্ষভাবে দায়ী তাঁদের গ্রেফতারেরও দাবি জানিয়েছেন তিনি।

ঠিক কী ঘটেছিল? সূত্রের খবর, একটি মদের দোকানে বেশি দামে মদ বিক্রি নিয়ে আজ বচসা শুরু হয় চন্দননগরে। ক্রমেই তা হাতাহাতি এবং সংঘর্ষের রূপ নেয়। চলে দেদার বোমাবাজি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিরাট পুলিশ বাহিনী নামানো হয়। অশান্তির ঘটনায় জড়িত বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি সামাল দিতে চন্দননগর পুরসভার বেশ কয়েকটি ওয়ার্ডে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। বসানো হয়েছে পুলিশ পিকেটও। আরেকটি পৃথক ঘটনায় আজ দুপুরেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে বালিগঞ্জের তিলজলা এলাকা। সংর্ঘষ বড় আকার নেয়। সেখানেও পুলিশ বাহিনী নামাতে হয়।

এই পরিস্থিতিতে স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে টুইট তোপ দাগেন ধনখড়। তিনি লেখেন, “চন্দননগর এবং বালিগঞ্জের তিলজলা এলাকায় শান্তির বাতাবরণ ফিরিয়ে আনতে অবিলম্বে পর্যাপ্ত পদক্ষেপ করা উচিত মমতা প্রশাসনের। কলকাতা পুলিশ, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ এবং স্বরাষ্ট্র দফতরকে কড় বার্তা দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে। যারা দোষী তাঁদের শাস্তি দিতে হবে।”

আরও পড়ুন: ‘ভ্যাকসিন আমদানির শোরগোলে আপনিই নেতৃত্ব দিয়েছিলেন’, মমতাকে ভ্যাকসিন-খোঁচা হর্ষ বর্ধনের

পরবর্তী একটি টুইটে রাজ্যপাল লেখেন, “অরাজকতা, অনাচার এবং হিংসা গণতন্ত্রের শত্রু। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আবেদন জানাই তিনি যেন ক্রমবর্ধমান হিংসার পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসেন। এই ঘটনার নেপথ্যে যারা দায়ী তাঁদের বিরুদ্ধে এমন পদক্ষেপ রাজ্য এবং কলকাতা পুলিশকে করতে হবে যাতে উদাহরণ তৈরি হয়। পক্ষপাতদুষ্ট স্বার্থের উর্ধ্বে উঠে ভাবার সময় এসেছে।”

আরও পড়ুন: মাঠ ছেড়েছেন অধীর, ভবানীপুরে মমতার বিরুদ্ধে তারুণ্যেই আস্থা সিপিএম-এর