মহাকাশে পাড়ি দিচ্ছেন অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস, সঙ্গে নেবেন ভাই মার্ককে

আগামী ২০ জুলাই মহাকাশ অভিযান শুরু করবেন জেফ ও তাঁর ভাই মার্ক বেজোস। Blue Origin- এর মহাকাশযানে চড়ে মহাকাশে যাবেন জেফ বেজোস ও তাঁর ভাই।

মহাকাশে পাড়ি দিচ্ছেন অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস, সঙ্গে নেবেন ভাই মার্ককে
জেফ বেজোস
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sohini chakrabarty

Jun 22, 2021 | 9:46 PM

মহাকাশে যাবেন ই-কমার্স সংস্থা অ্যামাজনের প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস। তবে একা নয়। অ্যামাজনের প্রাক্তন সিইও জেফ বেজোস সঙ্গে নেবেন নিজের ভাইকে। আগামী ২০ জুলাই মহাকাশ অভিযান শুরু করবেন জেফ ও তাঁর ভাই। নিজের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করে তেমনটাই জানিয়েছেন তিনি।

View this post on Instagram

A post shared by Jeff Bezos (@jeffbezos)

Blue Origin- এর মহাকাশযানে চড়ে মহাকাশে যাবেন জেফ বেজোস ও তাঁর ভাই। জানা গিয়েছে, Blue Origin- এর রিইউজেবল সাবঅরবিটাল রকেট সিস্টেম, যার নাম নিউ শেপার্ড, তাতে চড়েই এই অভিযান করবেন জেফ ও তাঁর ভাই মার্ক বেজোস। তাঁদের সঙ্গে থাকবেন নভশ্চরদের দল। এখানেই শেষ নয়। এই মহাকাশযানের সিটের জন্য একটি অনলাইন নিলাম হয়েছিল। সেখানে যিনি জয়ী হবেন, তিনিও থাকবেন এই যাত্রার সময়। জানা গিয়েছে, ব্লু অরিজিন সংস্থার তরফে যে অনলাইন নিলাম চলছিল গত ৫ থেকে, তা ১৯ মে বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল। সেই অনলাইন অকশনের প্রক্রিয়া ফের শুরু হয়েছে। ১০ জুন পর্যন্ত লাইভ থাকবে এই অকশন।

অন্যদিকে, জানা গিয়েছে, এই Blue Origin আসলে একটি মার্কিন এরোস্পেস কোম্পানি, যার প্রতিষ্ঠাতা জেফ বেজোস নিজেই। ২০০০ সালে এই সংস্থা তৈরি করেন জেফ। ইনস্টাগ্রামে একটি ভিডিয়ো শেয়ার করে জেফ জানিয়েছেন, ৫ বছর বয়স থেকেই মহাকাশে পাড়ি দেওয়ার স্বপ্ন দেখতেন তিনি। অবশেষে আগামী ২০ জুলাই ভাই মার্ক- কে নিয়ে ছোট্টবেলার স্বপ্ন পূরণের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করবেন তিনি। মহাকাশ থেকে পৃথিবীকে দেখতে কেমন লাগে, সেটাই দেখতে যাচ্ছেন জেফ বেজোস। ভিডিয়োতে তিনি বলেছেন, “মহাকাশ থেকে পৃথিবীকে দেখতে যাচ্ছি। এটা আপনাকে বদলে দেবে। এই ধরত্রীর প্রতি, মনুষ্যত্বের প্রতি আপনার ধারণা বদলে দেবে। এটা একটাই পৃথিবী।”

আরও পড়ুন- অবশেষে মহাকাশে পাড়ি দেবে নাসার James Webb স্পেস টেলিস্কোপ, কিন্তু কবে?

জানা গিয়েছে, নিউ শেপার্ড আগামী ২০ জুলাই লঞ্চ করবে। তারপর পৌঁছবে Kármán line (at 100km mean sea level)- এ। সেখান থেকে ফিরবে পৃথিবীতে। পুরো কর্মকাণ্ডে সময় লাগবে মিনিট দশেক। এই Kármán line হল এমন একটি অঞ্চল যেখানে, পৃথিবীর বায়ুমণ্ডল এবং তার বাইরের মহাকাশের মধ্যের সংযোগস্থল খোঁজার চেষ্টা হয়। সোজা ভাষায় পৃথিবীর বায়ুমন্ডল এবং আউটার স্পেসের মধ্যবর্তী এলাকা হল এই Kármán line।

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla