Arjun Singh: সাংসদের বাড়িতে বোমাবিস্ফোরণ-কাণ্ডে ৩ দিনের মধ্যে NIA-কে নথি হস্তান্তরের নির্দেশ আদালতের

National Investigation Agency: বুধবার মামলার শুনানিতে সেই আবেদন মঞ্জুর করে আদালত। আদালতের নির্দেশেই আগামী ৩ দিনের মধ্য়ে অর্থাত্‍ ১৮ সেপ্টেম্বর, সাংসদের বাড়িতে বোমাবাজি-কাণ্ডের সমস্ত নথি তুলে দিতে হবে এনআইএর হাতে

Arjun Singh: সাংসদের বাড়িতে বোমাবিস্ফোরণ-কাণ্ডে ৩ দিনের মধ্যে NIA-কে নথি হস্তান্তরের নির্দেশ আদালতের
অর্জুন সিংয়ের বাড়িতে বোমাবাজি, নিজস্ব ছবি

কলকাতা: বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিং-এর (Arjun Singh) বাড়িতে বোমাবাজির ঘটনায় তদন্তভার গ্রহণের পরেই দিল্লিতে এফআইআর দায়ের করে এনআইএ (NIA) তথা জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা। বুধবার রাজ্য পুলিশের হাত থেকে বিস্ফোরণ-কাণ্ডের সমস্ত নথি হস্তান্তরের আর্জি জানিয়ে বিশেষ আদালতের দ্বারস্থ হন তদন্তকারীরা। এদিনই মামলার শুনানিতে, ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটকে আগামী ৩ দিনের মধ্যে বিস্ফোরণ-কাণ্ডের এফআইআর-এর কপি, কেস ডিটেইলস-সহ সমস্ত নথি এনআইএর হাতে তুলে দেয় আদালত। পাশাপাশি, বোমাবাজির ঘটনায় গ্রেফতার এক অভিযুক্তকে আগামী ২১ সেপ্টেম্বর আদালতে হাজির করার নির্দেশ দিয়েছে বিশেষ আদালত।

জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, তদন্তভার গ্রহণের পরেই মঙ্গলবার বোমাবাজির ঘটনায় দিল্লিতে এনআইএ-এর একটি এফআইআর (FIR) দায়ের করা হয়। এরপর সরাসরি রাজ্য পুলিশের হাত থেকে  সমস্ত নথি ও তথ্য প্রমাণ হস্তান্তরের আর্জি জানায়  জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা। এই মর্মে ব্যারাকপুর পুলিশ কমিশনারেটের কাছে বোমাবাজির ঘটনায় দায়ের করা সমস্ত এফআইআর-এর কপি, কেস ডায়রি-সহ অন্যান্য নথি চেয়ে বিশেষ আদালতে  দ্বারস্থ হন তদন্তকারীরা। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৭ নম্বর ধারায় খুনের চেষ্টা ও বিস্ফোরক আইনে দুটি মামলা রুজু করা হয় এনআইএ-র পক্ষ থেকে। সাংসদের বাড়িতে বোমাবাজির ঘটনায় তদন্তে গতি আনতেই এই আবেদন বলে জানা গিয়েছে।

বুধবার মামলার শুনানিতে সেই আবেদন মঞ্জুর করে আদালত। আদালতের নির্দেশেই আগামী ৩ দিনের মধ্য়ে অর্থাত্‍ ১৮ সেপ্টেম্বর, সাংসদের বাড়িতে বোমাবাজি-কাণ্ডের সমস্ত নথি তুলে দিতে হবে এনআইএর হাতে। পাশাপাশি বোমবাজির ঘটনায় ধৃতকে ২১ সেপ্টেম্বর আদালতে হাজির থাকার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। ওইদিন ধৃতকে নিজেদের হেফাজতেও নেওয়ার আর্জি জানাতে পারে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা। ধৃতকে জেরা করলে সাংসদের বাড়িতে বোমাবাজি সংক্রান্ত আরও অন্যান্য তথ্য হাতে আসতে পারে বলেই মনে করছেন তদন্তকারীরা।

এনআইএ তদন্তভার নেওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই  ন’টায় অর্জুন সিং-এর (Arjun Singh) বাড়ির পিছনে আবার বোমা ছুড়ে পালায় দুষ্কৃতীরা।  ৮ ই সেপ্টেম্বরের পর আবার ফের বোমাবাজি নিয়ে প্রশ্ন উঠছে প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সকাল ন’টার সময়ে আচমকাই অর্জুন সিংয়ের বাড়ির পিছনে বোমা ছুড়ে মারে দুষ্কৃতীরা। গত ৮ সেপ্টেম্বরের বোমাবাজির পর এলাকায় নতুন করে আরও ২০টা সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়। বাড়ানো হয় পুলিশ পিকেট। সঙ্গে সিআইএসএফ জওয়ানদের (CISF) প্রহরাও রয়েছে। তার মাঝেও কীভাবে এমন ঘটনা ঘটল, তাতে পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। ইতিমধ্যেই একরকম সিল করে দেওয়া হয়েছে  সাংসদের বাড়ি। আরও  শক্ত করা হয়েছে নিরাপত্তার বেষ্টনী। ইতিমধ্যেই, সাংসদ অর্জুন সিং-কে জ়েড ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক।

গত বুধবার,  সাতসকালে সিআইএসএফ প্রহরার দেড় ফুটের মধ্যেই সাংসদ অর্জুন সিংয়ের বাড়িতে বোমাবাজির ঘটনার ঘটে। ঘটনায় সাংসদের নিরাপত্তা নিয়েই উঠছে একাধিক প্রশ্ন। তবে এই প্রথমবার নয়, ভোট পরবর্তী পর্যায়ে জুলাই মাসেও অর্জুনের বাড়িতে বোমাবাজি হয়। সিআইএসএফ- এর উপস্থিতিতেই বারে বারে এমন ঘটনায় প্রশ্ন উঠেছে সাংসদ অর্জুন সিং এবং তাঁর পুত্র বিধায়ক পবন সিং-এর নিরাপত্তা নিয়ে। এই প্রেক্ষিতে অর্জুনের মন্তব্য, “অমিত শাহ ফোন করে খবর নিয়েছেন। এবার আমার সেল্ফ ডিফেন্সের সময় এসেছে। নিজের আত্মরক্ষা নিজেকেই করতে হবে।”

বোমাবাজির ঘটনায় অর্জুনের অবশ্য দাবি, ভবানীপুরের ইলেকশনের অবজারভার করেছে দল। তাই জন্য তাঁকে প্রাণে মারার চেষ্টা করা হচ্ছে। এর আগেও ১১ বার তাঁকে আক্রমণ করা হয়েছে। বারবার হামলার কারণ তাঁকে মেরে ফেলার চেষ্টা হচ্ছে। তিনি আরও যোগ করেন, তবে যে ধরনের বোমা চলেছে তা অতি সক্রিয় বোমা। তাই এনআইএ (NIA)-র তদন্তের দাবি জানিয়েছিলেন সাংসদ অর্জুন সিং।

আরও পড়ুন: অর্জুনের বাড়িতে বোমাবাজি, তদন্ত করুক NIA, দাবি শুভেন্দুর 

আরও পড়ুন:  Murshidabad: অজানা জ্বরে আক্রান্ত ১৫০, মেডিক্যাল কলেজে মেঝেতেও শুয়ে শিশুরা!

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla