Train Accident: রেললাইনের পাতে ফাটল, স্থানীয়দের তৎপরতায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল হলদিয়া-আসানসোল এক্সপ্রেস

Panshkura: এই লাইনের উপর দিয়েই দিঘা-হাওড়া ট্রেন চলে।

Train Accident: রেললাইনের পাতে ফাটল, স্থানীয়দের তৎপরতায় দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেল হলদিয়া-আসানসোল এক্সপ্রেস
দুর্ঘটনার হাত থেকে বাঁচল ট্রেন (নিজস্ব ছবি)

পাঁশকুড়া: পাঁশকুড়া-হলদিয়া রেললাইনের পাতের উপর ফাটল। বড়সড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পেল হলদিয়া-আসানসোল এক্সপ্রেস।

আজ দুপুর দু’টো নাগাদ প্রথমে একটি মালগাড়ি ওই লাইনের উপর দিয়ে যায়। সেই সময় একটি বিকট আওয়াজ শোনেন এলাকাবাসী। সেই আওয়াজ পেয়েই ঘটনাস্থানে তারা যায়। গিয়ে দেখতে পান রেললাইনের উপর বড়সড় ফাটল রয়েছে। এর কিছুক্ষণ পর ওই লাইনে আসে হলদিয়া-আসানসোল এক্সপ্রেস। তার আগেই লাল কাপড় দেখিয়ে ট্রেনটিকে থামিয়ে দেয় এলাকাবাসী। কার্যত বড় একটি দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পায় ট্রেনটি।

এক এলাকাবাসী বলেন, “আমরা দুপুরের খাওয়ার খেয়ে প্রতিদিন রেললাইনের দিকে আসি রোদ পোয়াতে। আজও এসেছিলাম। কোনও অন্যথা হয়নি। হঠাৎ একটি মালগাড়ি চলে যেতেই বিকট শব্দ হয়। আমরা ঘটনাস্থানে পৌঁছে দেখি রেল লাইনের পাতে ফাটল ধরে গিয়েছে। ঠিক তার কিছুক্ষণের মধ্যেই হলদিয়া-আসানসোল এক্সপ্রেস আসছিল ওই লাইন ধরে। আমরা বিপদ হবে বুঝতে পেরে লাল কাপড় দেখিয়ে ট্রেনটিকে দাঁড় করিয়ে দিই।”

এই লাইনের উপর দিয়েই দিঘা-হাওড়া ট্রেন চলে। বর্তমানে লাইন মেরামতির কাজ চলছে সেখানে রেললাইনের মাঝপথে ফাটলে অস্থায়ী পাত বসিয়ে হলদিয়া আসানসোলে এক্সপ্রেসকে দুর্ঘটনাস্থল থেকে বের করে আপাতত সচল করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত চলতি মাসের পাঁচ তারিখে আরও একটি ট্রেন দুর্ঘটনার খবর সামনে আসে। রক্ষীবিহীন লেভেল ক্রসিংয়ে দুর্ঘটনা। লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা গাড়িকে ধাক্কা পাঁশকুড়া লোকালের।

ঘটনাস্থান তমলুক রেল স্টেশন লাগোয়া তমলুক পুরসভার ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের কাপানেড়িয়া রেল ক্রসিং। স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই দিন সকাল সাড়ে দশটা নাগাদ হলদিয়া থেকে আসছিল পাঁশকুড়া লোকাল। সেই সময় মারুতি গাড়িটি লেভেল ক্রসিং পারাপার করছিল। পিচ লাইন থেকে রেলপথ একটু উপরে থাকার কারণে গাড়িটির লাইন ক্রশ করতে একটু সময় লাগে। ওই লেভেল ক্রসিংয়ে নেই কোনও গার্ড। এরপরই ঘটে যায় দুর্ঘটনা। রেললাইনে আটকে পড়ে মারুতি গাড়িটি।

পাঁশকুড়া লোকালটিকে সামনে চলে আসতে দেখেই বুদ্ধি করে গাড়ি থেকে নেমে পড়েন গাড়ির চালক ও যাত্রীরা। সেই সময় চালক হাত দেখিয়ে ট্রেনটি থামানোর চেষ্টা করে। ট্রেন চালকও বাইরে বেরিয়ে ট্রেনটি থামাতে চেষ্টা করতে থাকেন। যেহেতু বিপুল পরিমাণ যাত্রী ও ট্রেনটির গতিবেগ বেশি ছিল সেই কারণে ট্রেনটি তৎক্ষণাত থামাতে ব্যর্থ হন গাড়ির ড্রাইভার।

যার ফলে দ্রুতগতিতে আসা পাঁশকুড়া লোকালটি সজোরে ধাক্কা মারে মারুতিগাড়িটিকে। সঙ্গে-সঙ্গে দুমড়ে মুচড়ে যায় গাড়িটি। যেহেতু আগে থেকেই চালক ও গাড়ির যাত্রীরা বাইরে বেরিয়ে এসেছিল সেই কারণে কপাল জোরে প্রাণে বাঁচেন তাঁরা। ঘটনায় হতাহতের কোনও খবর নেই। তবে পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন এলাকাবাসী।

আরও পড়ুন: Suvendu Adhikari: ‘মুখ্যমন্ত্রী উৎসবে চাঁদা দিতে পারেন, কৃষকদের কেন সাহায্য করেন না?’ তীব্র কটাক্ষ শুভেন্দুর

Published On - 4:30 pm, Mon, 20 December 21

Related News

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla