সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিকর ছবি পোস্ট, লজ্জায় আত্মঘাতী স্কুলছাত্রী

Suicide: ফেসবুকে অশালীন ছবি পোস্ট করায় অপমানে গলায় কাপড়ের ফাঁস জড়িয়ে আত্মঘাতী হল এক স্কুলছাত্রী। মৃত ছাত্রীর নাম প্রথমা জানা (১৬)।

সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিকর ছবি পোস্ট, লজ্জায় আত্মঘাতী স্কুলছাত্রী
প্রতীকী চিত্র।

দক্ষিণ ২৪ পরগনা: ফেসবুকে অশালীন ছবি পোস্ট করায় অপমানে গলায় কাপড়ের ফাঁস জড়িয়ে আত্মঘাতী হল এক স্কুলছাত্রী। মৃত ছাত্রীর নাম প্রথমা জানা (১৬)। ঘটনাটি ঘটেছে কাকদ্বীপের রবীন্দ্র গ্রামপঞ্চায়েতের ১৪ নম্বর মৃণাল নগরে। স্থানীয় স্কুলের দশম শ্রেণীর ছাত্রী মৃত ছাত্রীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ঢোলাহাট থানার পুলিশ। যদিও অভিযুক্ত এখনও অধরা।

জানা গিয়েছে, প্রতিবেশী যুবক বাপ্পা বারিকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠার পর ২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে নাবালিকা ছাত্রী প্রথমাকে ফুসলিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায় সে। স্কুল ছাত্রীর বাবা তখন ঢোলাহাট থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন। মাস দুয়েকের মধ্যে ভিন রাজ্য থেকে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে পুলিশ। অপহরণের মামলা রুজু করে পুলিশ গ্রেফতার করে বাপ্পাকে। পরে হোম থেকে বাড়িতে নিয়ে আসা হয় স্কুলছাত্রীকে। এই ঘটনায় পুলিশ আদালতে চার্জশিট দাখিল করে।

বাড়ি ফিরে আবার পড়াশোনায় মন দেয় স্কুল ছাত্রী। ইতিমধ্যে অন্য একটি ছেলের প্রেমে পড়ে ওই স্কুলছাত্রী। মাস সাতেক আগে বিষয়টি জানাজানি হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করার জন্য চাপ দিতে থাকে বাপ্পা। তাতে রাজি না হওয়ায় নানাভাবে তাকে উত্ত্যক্ত এবং হুমকি দিতে থাকে সে। এরপর ভিন রাজ্যে কাজে যায় বাপ্পা। জানা গিয়েছে, মাস পাঁচেক আগে স্কুল ছাত্রীর কিছু অশালীন ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে বাপ্পা। সেটা নজরে আসার পর সাইবার ক্রাইমে অভিযোগ জানায় স্কুল ছাত্রীর বাবা। পরে সাইবার থানা থেকে ফেসবুকে ছবি ডিলিট করা হয়।

আরও পড়ুন: টিভি নাইন বাংলার খবরের জের! রূপশ্রী দুর্নীতি প্রকল্পে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার অভিযুক্ত 

এদিকে সপ্তাহখানেক আগে স্কুল ছাত্রী তার বন্ধুদের কাছ থেকে জানতে পারে যে তার অশালীন ছবি ফেসবুকে পোস্ট করা হয়েছে। এরপর থেকে ওই স্কুলছাত্রী মানসিক অবসাদে ভুগতে থাকে। স্কুল ছাত্রীর বাবা মা তাকে বিভিন্ন ভাবে বুঝিয়ে মানসিক অবসাদ কাটানোর চেষ্টা করে। কিন্তু রবিবার রাতে ঘরের মধ্যে কাপড়ের ফাঁস জড়িয়ে আত্মঘাতী হয় স্কুল ছাত্রী। স্কুল ছাত্রীর বাবা নান্টু জানা ঢোলাহাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্ত যুবকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে পুলিশ।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla