Punjab Election 2022: পঞ্জাবে মাস্টারস্ট্রোক কেজরীবালের, মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, টেলি-ভোটিংয়ে সিদ্ধান্ত

Arvind Kejriwal: এদিন কেজরীবালের দলের তরফে একটি পোস্টার উন্মোচন করা হয়, 'জনতা চুনেঙ্গি আপনা সিএম'।

Punjab Election 2022: পঞ্জাবে মাস্টারস্ট্রোক কেজরীবালের, মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন, টেলি-ভোটিংয়ে সিদ্ধান্ত
অরবিন্দ কেজরীবাল। ছবি টুইটার।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: সায়নী জোয়ারদার

Jan 13, 2022 | 4:06 PM

নয়া দিল্লি: পঞ্জাবের বিধানসভা ভোট নিয়ে জোর কদমে প্রচার চালাচ্ছে আম আদমি পার্টি বা আপ (AAP)। প্রচারে নানা চমকও রাখছে অরবিন্দ কেজরীবালের দল। তবে তাঁর দলে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ কে, তা নিয়ে নানা মহলে নানা প্রশ্ন উঠেছে। এ নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলির অন্দরেও বেশ চর্চা চলছে। এরই মধ্যে চমক দিলেন কেজরীবাল। জানিয়ে দিলেন জনতার মুখ্যমন্ত্রী বেছে নেবেন জনতাই। বৃহস্পতিবার অরবিন্দ কেজরীবাল ঘোষণা করেন, পঞ্জাবের তিন কোটি মানুষই ঠিক করবেন তাঁদের মুখ্যমন্ত্রী কে হবেন। তার জন্য 70748 70748 ফোন নম্বরটি লঞ্চ করেন তিনি। এই নম্বরে ফোন করে ভোটার তাঁর পছন্দের নামটি জানাতে পারবেন। যদিও নম্বরটি ঘোষণার পরই তা ‘জ্যাম’ হয়ে যায়। আপের টুইটার হ্যান্ডেলে এ বিষয়ে জানানো হয়েছে।

আপ সুপ্রিমো ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল জানান, আগামী ১৭ জানুয়ারি পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঘোষণা করবে তাঁর দল। সেই নাম ঠিক হবে জনতার নির্দেশকে সামনে রেখেই। অর্থাৎ টেলি ভোটিংয়েই ঠিক হবে আপ পঞ্জাবে ক্ষমতায় এলে কে হবেন মুখ্যমন্ত্রী। অরবিন্দ কেজরীবাল বলেন, এই প্রথমবার কোনও দল জনতার হাতেই ছেড়ে দিয়েছে তাঁদের মুখ্যমন্ত্রী বাছাইয়ের অধিকার।

সংবাদমাধ্যমকে অরবিন্দ কেজরীবাল বলেন, “পঞ্জাবের মানুষ 70748 70748 নম্বরটিতে কল করতে পারেন কিংবা হোয়াটসঅ্যাপ, এসএমএসও করতে পারেন। সেখানে নিজেদের পছন্দের নাম জানাতে পারেন। ১৭ জানুয়ারি বিকেল ৫টা পর্যন্ত এই টেলি ভোটিং লাইন খোলা থাকবে। মানুষের মত এবং মন্তব্যের ভিত্তিতে আম আদমি পার্টি মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থীর নাম ঠিক করবে।”

পাঁচ রাজ্যে বিধানসভা ভোটের নির্ঘণ্ট ঘোষণা হয়ে গিয়েছে। এর মধ্যে পঞ্জাবের নির্বাচনের উপর এবার সকলেরই নজর আটকে রয়েছে। সম্প্রতি সমীক্ষক সংস্থা সি-ভোটার তাদের এক সমীক্ষায় জানিয়েছিল বিধানসভা নির্বাচনে অরবিন্দ কেজরীবালের আম আদমি পার্টি ও কংগ্রেস ১১৭ আসনের পঞ্জাব বিধানসভায় যথাক্রমে ৩৯ ও ৩৪ শতাংশ ভোট পাবে। নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে কোনও দাবি না করলেও ওই সমীক্ষাতে বলা হয়েছিল ভোটের ফলে সর্ববৃহৎ দল হিসেবে আম আদমি পার্টির উত্থান হবে। পঞ্জাবের রাজনীতিতে এই আভাস নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ।

এদিন কেজরীবালের দলের তরফে একটি পোস্টার উন্মোচন করা হয়, ‘জনতা চুনেঙ্গি আপনা সিএম’। অর্থাৎ জনতা নিজের মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করবেন। এদিকে কেজরীবালের এই ঘোষণার পর থেকেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে তা হলে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসাবে ভগবন্ত মনের নাম নিয়ে যে জোর জল্পনা হচ্ছে, তার কী হবে! যদি জনতার ভোট মনের দিকে না যায়?

এনডিটিভির প্রতিবেদন অনুযায়ী, এই জল্পনাকে অত্যন্ত কৌশলীভাবে সামলেছেন আম আদমি পার্টির সুপ্রিমো। অরবিন্দ কেজরীবাল জানান, “ভগবন্ত মন আমার খুব কাছের মানুষ। ও আমার ছোট ভাই। ও আম আদমি পার্টির বড় নেতা। আমিও বলেছিলাম ওর মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হওয়া উচিৎ। কিন্তু ও আমাকে তখন বলেছিল… মানুষকে সিদ্ধান্ত নিতে দাও।”

আরও পড়ুন: UP Minister quits BJP: পদত্যাগের হিড়িক, এবার ইস্তফা যোগীর মন্ত্রী ধর্মসিং সাইনির

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla