Harassment-Pooja Hegde: ঋতুপর্ণার পর বিমানে দুর্ব্যবহারের শিকার পূজা হেগড়ে, সৌজন্য একই সংস্থা

Harassment-Pooja Hegde: পূজা এবং ঋতুর্পণার সঙ্গে যে ঘটনা ঘটে,  দুটো ক্ষেত্রেই একই বিমান সংস্থার বিরুদ্ধে উঠেছে অভিযোগ। এর আগে ঋতুপর্ণা কলকাতা থেকে তাঁর ছবির গুরুত্বপূর্ণ শুটিং করতে আহমেদাবাদ যাচ্ছিলেন।

Harassment-Pooja Hegde: ঋতুপর্ণার পর বিমানে দুর্ব্যবহারের শিকার পূজা হেগড়ে, সৌজন্য একই সংস্থা
একই বিমান সংস্থার দ্বারা হেনস্থা দুই নায়িকা
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Mahuya Dutta

Jun 10, 2022 | 5:43 PM

মার্চের শেষে বিমানে উঠতে দেওয়া হয়নি অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে (Rituparna sengupta) বোর্ডিং সময়ের পর আসার কারণে। এবার অভিনেত্রী পূজা হেগড়েও (Pooja Hegde) মুখোমুখি হন বিমানবন্দরে দুর্ব্যবহারের। প্রভাসের নায়িকা নিজেই এই খবর নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে জানিয়েছেন। তিনি জানিয়েছেনযে, বিমানবন্দরে উপস্থিত একটি বেসরকারী বিমান সংস্থার কর্মকর্তা “অকারণে অহংকারী, অজ্ঞ এবং হুমকির সুর” ব্যবহার করেছিলেন কোনও কারণ ছাড়াই। তাঁর এই আচরণ পূজাকে হতবাক করে দিয়েছিল। পূজা টুইটে লেখেন, “বিপুল নাকাশে নামে @IndiGo6E কর্মচারী আজকে মুম্বই থেকে আমাদের বিমানে ছিলেন। তিনি আমাদের সঙ্গে খুবই অভদ্র আচরণ করেছেন, যা অত্যন্ত দুঃখজনক। সম্পূর্ণ অহংকারী, অজ্ঞ এবং হুমকির সুর ব্যবহার করেছেন তিনি আমাদের সঙ্গে, তাও বিনা কারণে করা হয়েছে। সাধারণত আমি এসব বিষয়ে টুইট করি না। এই সমস্যাটা.. কিন্তু এটা সত্যিই ভয়ঙ্কর ছিল”।

পূজা এবং ঋতুর্পণার সঙ্গে যে ঘটনা ঘটে,  দুটো ক্ষেত্রেই একই বিমান সংস্থার বিরুদ্ধে উঠেছে অভিযোগ। এর আগে ঋতুপর্ণা কলকাতা থেকে তাঁর ছবির গুরুত্বপূর্ণ শুটিং করতে আহমেদাবাদ যাচ্ছিলেন। কিন্তু বোর্ডিংয়ের সময়ের পর তিনি বিমানবন্দরে পৌঁছোন। বিমান ছাড়তে তখন অনেকটা সময় বাকি ছিল। কিন্তু তা স্বত্ত্বেও তাঁকে উঠতে দেওয়া হয়নি বিমানে। এরপরই তিনি সোশ্যাল মিডিয়াতে এই খবর জানাতেই বিমান সংস্থার সঙ্গে তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করে, পরবর্তী বিমানের ব্যবস্থা করে। কিন্তু ততক্ষণ নায়িকা যা ক্ষতি হওযার তা হয়েগিয়েছিল। জানিয়েছিলেন ঋতুপর্ণা।

এবারও একই বিমান সংস্থার কর্মচারী পূজার সঙ্গে করলেন দুর্ব্যবহার। পূজার টুইট দেখে তাঁর সঙ্গেও যোগাযোগ করা হয়। সঙ্গে ক্ষমাও চাওয়া হয়। পূজার টুইটের প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বিমান সংস্থা তাদের স্বয়ংক্রিয় প্রতিক্রিয়ার তরফ থেকে একটি বার্তা দিয়েছে, যাতে লেখা ছিল “মিস হেগড়ে, আপনার এই অভিজ্ঞতার জন্য দুঃখিত। আমরা অবিলম্বে আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করতে চাই, অনুগ্রহ করে যোগাযোগ নম্বর সহ আপনার PNR আমাদের পাঠান।” অন্য একটি টুইটে, বিমান সংস্থা যোগ করেছে, “আমাদের সঙ্গে কথা বলার জন্য, সময় দেওয়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ, মিস হেগডে। আমরা আপনার অসুবিধের জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখিত এবং আপনাকে আশ্বস্ত করতে চাই যে আমরা নিশ্চিত করেই এই বিষয়টির দিকে নজর দিচ্ছি। কোনও পুনরাবৃত্তি হবে না।”

কিন্তু এটা বারবার একই সংস্থায় তরফ থেকে ঘটছে। প্রথমে সংস্থার কর্মচারীরা করছেন খারাপ ব্যবহার, তারপর কোম্পানি করছে দুঃখ প্রকাশ। ঋতুপর্ণার ক্ষেত্রে একটা কারণ থাকলেও পূজার বক্তব্য অনুযায়ী অকারণ তাঁদের সঙ্গে এমন কাজ করা হয়।

এই খবরটিও পড়ুন

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla