Ayesha Kapur: ‘ব্ল্যাক’-এর পর আর কাজ করলেন না কেন, এখন কী করছেন আয়েশা?

Ayesha Kapur: ২৭ বছর বয়সী আয়েশা নিজেকে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি থেকে নাকি বেশ দূরেই সরিয়ে রেখেছেন। তামিলনাড়ুর আওরোভিলেতে বড় হয়েছেন। আর অভিনয় করলেন না কেন?

Ayesha Kapur: ‘ব্ল্যাক’-এর পর আর কাজ করলেন না কেন, এখন কী করছেন আয়েশা?
আয়েশা কাপুর।

আয়েশা কাপুর। বলিউড অভিনেত্রী। শুধু নাম করলে হয়তো অনেকেই চিনতে পারবেন না। কিন্তু সঞ্জয় লীলা বনশালী পরিচালিত অমিতাভ বচ্চন এবং রানি মুখোপাধ্যায় অভিনীত ‘ব্ল্যাক’ ছবির কথা উল্লেখ করলে হয়তো অনেকেই বুঝতে পারবেন। ওই ছবিতে রানির ছোটবেলার চরিত্রে যে মেয়েটি অভিনয় করেছিল তার নামই আয়েশা। এখন কী করছেন সেই অভিনেত্রী?

২০০৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘ব্ল্যাক’ ছবিতে স্বপ্নের ডেবিউ হয়েছিল আয়েশার। এরপর ২০০৯-এ ‘শিকন্দর’-এও শিশু শিল্পী হিসেবে কাজ করেছিলেন তিনি। তারপর থেকে আর তেমন উল্লেখযোগ্য কাজ নেই তাঁর। ২৭ বছর বয়সী আয়েশা নিজেকে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি থেকে নাকি বেশ দূরেই সরিয়ে রেখেছেন। তামিলনাড়ুর আওরোভিলেতে বড় হয়েছেন। আর অভিনয় করলেন না কেন?

সম্প্রতি এক সাক্ষাৎকারে এ বিষয়ে আয়েশা বলেন, “আওরোভিলের মানুষ একেবারেই সিনেমা দেখেন না। আমি বলিউডি ছবি দেখে বড় হইনি। একটা মাল্টিকালচারাল পরিবেশে বড় হয়েছি। দিল্লি বা মুম্বইতে বড় হওয়ার মতো নয়। আমি যে ব্ল্যাক-এ অভিনয় করে জনপ্রিয় হয়েছিলাম, তাতে ওখানকার মানুষের কিছু যায় আসত না। আমার মনে আছে, যখন পন্ডিচেরি যেতাম কেউ কেউ চিনতে পারত। অটোগ্রাফ চাইত। সেটাও খুব অস্বস্তিকর ছিল।”

Actress-Ayesha-Kapur

আয়েশা এখন যেমন।

আয়েশা আরও জানান, বড় হওয়ার দিনগুলোতে চারপাশের মানুষকে জনপ্রিয়তা বা অর্থের পিছনে ছুটতে দেখেননি তিনি। তবে সঞ্জয়ের ছবিতে কাজ করার সুযোগ পেয়ে কৃতজ্ঞ তিনি। কিন্তু ‘ব্ল্যাক’-এর পর খুব বেশি অফারও পাননি তিনি। তাঁর কথায়, “আমার বাবা অত্যন্ত প্রোটেকটিভ ছিলেন। বলিউড নিয়ে আমি ব্যস্ত হয়ে পড়ি, সেটা চাইতেন না। ওই বয়সে জনপ্রিয়তায় মাথা ঘুরে যাওয়ার সম্ভবনা থাকে। বাবা তা হতে দেননি। ওরা মুম্বইতে থাকতেন না। আমি থাকি, সেটাও চাননি।”

শেখর কাপুর-এর ‘পানি’ ছবির জন্য স্কুল এবং কলেজের মধ্যবর্তী সময় কিছুদিন মুম্বইতে ছিলেন তিনি। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত সে ছবি তৈরি হয়নি। ওই প্রোডাকশন হাউজের সঙ্গে তাঁর তিনটি ছবির চুক্তি ছিল। কিন্তু প্রথম ছবিটি তৈরি না হওয়ায় তিনি চুক্তি ভেঙে দেন। তারপর বাবা, মায়ের ইচ্ছেয় কলেজের পড়াশোনা শুরু করেন। আয়েশা বর্তমানে ইনটিগ্রেটিভ নিউট্রিশন হেলথ কোচ। আপাতত গোয়ায় থাকেন তিনি। কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক স্তরের পড়াশোনা শেষ করে মায়ের সঙ্গে একটি অ্যাকসেসেরিজ কোম্পানি খুলেছেন। প্রাথমকি ভাবে হেলথ সেকশনে কাজ করতে চাইলেও অভিনয়ে তাঁর কোনও আপত্তি নেই। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও চিত্রনাট্য পছন্দ হয়নি। কোনও এজেন্ট বা কোনও প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধও নন বলে জানিয়েছেন আয়েশা।

আরও পড়ুন, Money Heist: মানি হাইস্ট-এর শেষ পর্বে কতজন বেঁচে থাকবেন? মুক্তি পেল টিজার

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla