EXCLUSIVE: ‘নায়িকা হলে অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ক্লোজ় হতে পারতাম না’, বললেন ‘রক্ষাবন্ধন’-এ অক্ষয়ের বোন সাদিয়া খাতিব

Sadia Khateeb: জম্মুতে জন্ম তাঁর। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রী একদিন হঠাৎই অভিনয় পেশায় চলে আসেন। মাত্র ২০ বছর বয়স এখন। ‘রক্ষাবন্ধন’-এর মুক্তিতে তিনি খুবই উচ্ছ্বসিত। সেই উচ্ছ্বাস ধরা পড়ল TV9 বাংলার সঙ্গে তাঁর একান্ত সাক্ষাৎকারে।

EXCLUSIVE: 'নায়িকা হলে অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ক্লোজ় হতে পারতাম না', বললেন 'রক্ষাবন্ধন'-এ অক্ষয়ের বোন সাদিয়া খাতিব
সাদিয়া খাতিব।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sneha Sengupta

Aug 13, 2022 | 7:00 AM

স্নেহা সেনগুপ্ত

বৃহস্পতিবার, ১১ অগস্ট মুক্তি পেয়েছে আনন্দ এল রাইয়ের ছবি ‘রক্ষাবন্ধন’। অভিনয় করেছেন অক্ষয় কুমার। এক দাদার চরিত্রে অভিনয় করেছেন অক্ষয়, যাঁর চার বোন। বড় বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন সাদিয়া খাতিব। এর আগে সাদিয়াকে দর্শক দেখেছেন বিধু বিনোদ চোপড়ার ছবি ‘শিকারা’য়। মুখ্য চরিত্রে ছিলেন সুন্দরী সাদিয়া। জম্মুতে জন্ম তাঁর। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রী সাদিয়া একদিন হঠাৎই অভিনয় পেশায় চলে আসেন। মাত্র ২০ বছর বয়স এখন তাঁর। ‘রক্ষাবন্ধন’-এর মুক্তিতে তিনি খুবই উচ্ছ্বসিত। সেই উচ্ছ্বাস ধরা পড়ল TV9 বাংলার সঙ্গে তাঁর একান্ত সাক্ষাৎকারে।

‘রক্ষাবন্ধন’ তো মুক্তি পেয়েছে, কেমন প্রতিক্রিয়া পেলেন?

সাদিয়া: আমি খুব উচ্ছ্বসিত। সারাক্ষণ ফোন চেক করে চলেছি। মাথাটাই খারাপ হয়ে যাচ্ছে। ছবিটা মুক্তি পেয়েছে, এটাই আমার কাছে অনেক বড় পাওনা।

সবচেয়ে ভাল রিভিউ কার কাছ থেকে পেলেন?

সাদিয়া: অনেকেই রিভিউ দিয়েছেন। কিন্তু আমি কেআরকের কথা বলতে চাই। অর্থাৎ কমল আর খান। তিনি কাউকে ভাল বলেন না। তাঁর প্রতিক্রিয়া পেয়েই আমি ঘুম থেকে উঠেছি। আপনারা প্লিজ় ছবিটা দেখবেন…

কমল আর খানের প্রতিক্রিয়া নিয়ে তো অনেক বিতর্ক হয়…

সাদিয়া: সত্যিই তাই। সেটাই আমার খুব অবাক লেগেছে। তিনি টানা দু’মিনিট ফোনে কথা বলে ছবির প্রশংসা করেছেন।

ছবিতে অক্ষয় কুমারের বোনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন আপনি। অভিনেত্রীরা তো তাঁর নায়িকা হতে চান… ক্ষোভ আছে?

সাদিয়া: এই নিয়ে ইন্ডাস্ট্রির অনেকের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। বিষয়টায় আমি কিন্তু খুব খুশি। অক্ষয় স্যরের নায়িকা হতে পারিনি বলে আমার কোনও ক্ষোভ নেই। তার কারণটা আমি বলছি। নায়িকা হলে অক্ষয় স্যরের সঙ্গে ক্লোজ় হতে পারতাম না। সেটে এতটা মস্তিও করতে পারতাম না। সেটে তিনি আমার লালাজি, আমি তাঁর গায়ত্রী। আর যদি অক্ষয় স্যরকে নায়ক হিসেবে পাওয়ার কথা বলেন, ভবিষ্যতে সেটাও নিশ্চয়ই হবে।

‘রক্ষাবন্ধন’-এ সাদিয়া খাতিব…

অক্ষয়ের সাত সকালে ঘুম থেকে ওঠা নিয়ে অনেকেই সেটে অভিযোগ করেন, আপনার অভিজ্ঞতা কেমন?

সাদিয়া: দেখুন, কথাগুলো সততার সঙ্গেই বলতে চাই। স্কুলে পড়ার সময় অনেক সকালে ঘুম থেকে উঠতাম। ভোরে, ৫টায়। আমি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ছাত্রী, কলেজ যাওয়ার সময়ও সাত সকালে উঠতে হত। ফলে অনেক ভোরে ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাস আমার ছিলই। মাঝে লকডাইন সবটা ঘেঁটে গিয়েছিল। তখন বেলা ১২টাতেও ঘুম ভাঙত। এই ছবিটা করার সময় আবার সক্কাল-সক্কাল ঘুম থেকে ওঠার অভ্যাসে ফিরে গিয়েছি আমি। এটা এক ধরনের আশীর্বাদ। মানুষের এই নিয়ে অভিযোগ করা সাজে না।

‘শিকারা’য় আপনি অভিনয় করেছিলেন। ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ মুক্তির পর ‘শিকারা’ নিয়ে কটাক্ষ করেছেন অনেকে। বলেছেন, ‘শিকারা’য় নাকি কাশ্মীরি পণ্ডিতদের আসল গল্প দেখানো হয়নি। আপনি ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ দেখেছেন?

সাদিয়া: আমি ‘দ্য কাশ্মীর ফাইলস’ দেখিনি। ফলে জানি না কী তুলনা টানা হয়েছিল। এ ব্যাপারে কী-ই বা বলতে পারি!

অভিনেত্রী সাদিয়া খাতিব।

‘শিকারা’র জন্য বিধু বিনোদ চোপড়ার নজরে এলেন কীভাবে?

সাদিয়া: ওই সময় আমি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজে পড়ছিলাম। মুকেশ ছাবরার কাস্টিং এজেন্সি থেকে আমার সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। জম্মুতে এসে তাঁরাই আমার অডিশন নিয়েছিলেন। বাবার সঙ্গে ফেসটাইমে কথা বলেছিলেন। আমাকে মুম্বইয়ে যেতে হয়েছিল। সেই প্রথম স্বপ্ননগরীতে পা রাখি। রূপকথার গল্পের চেয়ে কম কিছু ছিল না বিষয়টা…

‘রক্ষাবন্ধন’-এর সঙ্গেই মুক্তি পেয়েছে ‘লাল সিং চাড্ডা’—প্রতিযোগী ছবিটি দেখেছেন?

সাদিয়া: আমি তো ছবিটা দেখার অপেক্ষায় আছি।

আপনি কি জানেন মুক্তির সঙ্গে-সঙ্গে ‘রক্ষাবন্ধন’ অনলাইন কিছু সাইটে ফাঁস হয়ে গিয়েছে?

এই খবরটিও পড়ুন

সাদিয়া: ও মাই গড! কী বলছেন আপনি! আমি তো ভাবতেই পারছি না। এটা হয়েছে, সত্যি? দাঁড়ান, দাঁড়ান, আগে চেক করি…

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla