ঠিকমতো ঘুম হচ্ছে না, বুক ধড়ফড় করছে? এই সমস্যা হয়নি তো?

হাই কোলেস্টেরল হলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। আপনার শরীরে কোলেস্টেরল বাসা বেধেছে কিনা, তা জানতে কিছুটা সচেতনতা থাকা দরকার। আজ আপনাদের বলব এমন কয়েকটি উপসর্গের কথা।

ঠিকমতো ঘুম হচ্ছে না, বুক ধড়ফড় করছে? এই সমস্যা হয়নি তো?
প্রতীকী ছবি
Follow Us:
| Updated on: May 16, 2024 | 4:41 PM

অনিয়ন্ত্রিত জীবন, অতিরিক্ত জাঙ্ক ফুড খাওয়া, অনিদ্রা এবং মানসিক চাপের কারণে এখন বেড়ে যাচ্ছে একের পর এক শারীরিক সমস্যা। মানুষ যে সমস্ত শারীরিক সমস্যায় এখন জর্জরিত, সেগুলির মধ্যে অন্যতম হলো হাই কোলেস্টেরল। হাই কোলেস্টেরল হলে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বেড়ে যায়। আপনার শরীরে কোলেস্টেরল বাসা বেধেছে কিনা, তা জানতে কিছুটা সচেতনতা থাকা দরকার। আজ আপনাদের বলব এমন কয়েকটি উপসর্গের কথা, যেগুলি দেখা দিলে এখনই হয়ে যান চিকিৎসকের শরণাপন্ন।

হাই ব্লাড প্রেসার: রক্তে যদি কোলেস্টেরলের পরিমান বেড়ে যায় তাহলে উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা দেখা দেয়। হাই কোলেস্টেরল থাকলে রক্তনালীতে অক্সিজেনের সরবরাহ কমে যায় এবং হৃদপিণ্ড সঠিকভাবে পাম্প করতে পারে না। এর ফলে দেখা দেয় হাই ব্লাড প্রেসারের সমস্যা।

স্থূলতা বৃদ্ধি: হাই ব্লাড প্রেসার থাকলে হঠাৎ করে ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যা দেখা দেয়। আপনার যদি হঠাৎ করে ওজন বেড়ে গিয়ে থাকে তাহলে রক্ত পরীক্ষা করে দেখে নিন আপনার হাই কোলেস্টেরল আছে কি না।

মানসিক অবসাদ: শুধু কাজের চাপে নয়, অনেক সময় হাই কোলেস্টেরল থাকলে মানসিক অবসাদ দেখা দিতে পারে। কোলেস্টেরল রক্তে স্ট্রেস হরমোনকে বাড়িয়ে দেয়, যার ফল স্বরূপ আপনার হতে পারে মানসিক অবসাদের মত সমস্যা।

ক্লান্তি: রক্তে যদি হাই কোলেস্টেরল থাকে তাহলে খুব সহজেই আপনি ক্লান্ত হয়ে পড়বেন। মাথা ঘোরা, ক্লান্তি বা শারীরিক যন্ত্রণা যদি থাকে তাহলে বুঝতে হবে আপনার রয়েছে হাই কোলেস্টেরলের সমস্যা।