‘করোনাকে জৈব অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার’, পরিচালকের বিতর্কিত মন্তব্যে দেশদ্রোহের মামলা বিজেপির

দেশদ্রোহীতার অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরই আয়েশা ফেসবুক পোস্টে লেখেন, "আমার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীতার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে আমি বলতে চাই যে সত্যের জয় হবেই। আমি যেখানে জন্মেছি, সেই মাটির জন্য লড়াই চালিয়ে যাব।"

'করোনাকে জৈব অস্ত্র হিসাবে ব্যবহার', পরিচালকের বিতর্কিত মন্তব্যে দেশদ্রোহের মামলা বিজেপির
আয়েশা সুলতানা।

লক্ষদ্বীপ: প্রশাসকের সমালোচনা করায় দেশদ্রোহের অভিযোগ আনা হল মহিলা পরিচালকের বিরুদ্ধে। সংবাদ মাধ্যমে লক্ষদ্বীপের প্রশাসকের সমালোচনা করা ও করোনাকে “জৈব অস্ত্র” (Bio Weapon) হিসাবে ব্যবহার করার অভিযোগ তুলতেই চলচ্চিত্র পরিচালক আয়েশা সুলতানার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহ ও বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করার অভিযোগ আনল লক্ষদ্বীপের বিজেপি (BJP) শাখা।

সম্প্রতিই লক্ষদ্বীপের প্রশাসক প্রফুল্ল খোড়া পটেলের পদত্যাগের দাবিতে সরব হয়েছিলেন একাধিক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী থেকে শুরু করে গোটা নেটমাধ্যম। তাঁর বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক অভিযোগ। উন্নয়নের নামে জোর করে গুন্ডাদমন আইন চাপিয়ে দেওয়া, গো মাংস নিষিদ্ধ করা, মদ বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়ে তুমুল সমালোচনা শুরু হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ময়দানে নামেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

এদিকে, লক্ষদ্বীপেরই বাসিন্দা আয়েশা সম্প্রতি একটি মালয়লম সংবাদমাধ্যমে বিতর্ক সভায় বিস্ফোরক অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, “সংক্রমণের শুরুর দিকে লক্ষদ্বীপে একজনও করোনা আক্রান্ত ছিলেন না। এখন রোজদিনই ১০০ জন করে করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন। কেন্দ্রের তরফে করোনাকে জৈব অস্ত্র হিসাবে পাঠানো হয়েছে।”

আয়েশার এই মন্তব্যের পরই বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা পথে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। লক্ষদ্বীপের বিজেপি প্রধান সংগঠক সি আব্দুল কাদের হাজি থানায় তাঁর বিরুদ্ধে দেশদ্রোহী মন্তব্য করার অভিযোগ করেন। তাঁর দাবি, ওই মহিলা পরিচালকের মন্তব্যে কেন্দ্রীয় সরকারের ভাবমূর্তি নষ্ট করার চেষ্টা করা হয়েছে।

যদিও তাঁর নামে দেশদ্রোহীতার অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরই আয়েশা ফেসবুক পোস্টে লেখেন, “আমার বিরুদ্ধে দেশদ্রোহীতার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তবে আমি বলতে চাই যে সত্যের জয় হবেই। আমি যেখানে জন্মেছি, সেই মাটির জন্য লড়াই চালিয়ে যাব।”

এ দিকে, আয়েশার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর বিজেপির সমালোচনা শুরু হয়েছে। কংগ্রেস নেতা শশী থারুর টুইট করে লেখেন যে, দেশদ্রোহী শব্দের অপব্যবহার করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: নমোর সঙ্গে বৈঠকের পরই নাড্ডার বাসভবনে আদিত্যনাথ, গদি হারানোর ভয়েই কি ম্যারাথন বৈঠক?