Maharashtra Political Crisis : বিধান পরিষদের নির্বাচনের পরই গায়েব একনাথ শিন্ডে সহ ২১ জন বিধায়ক, বিপাকে উদ্ধব সরকার

Maharashtra Political Crisis : বিধান পরিষদের নির্বাচনের পরই গায়েব একনাথ শিন্ডে সহ ২১ জন বিধায়ক, বিপাকে উদ্ধব সরকার
ফাইল ছবি

Maharashtra Political Crisis : বিধান পরিষদের নির্বাচনের পরই মহারাষ্ট্র মন্ত্রী একনাথ শিন্ডে সহ একাধিক বিধায়ক বিজেপি শাসিত গুজরাটের একটি হোটেলে আশ্রয় নিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে শিবসেনা নেতা বিজেপির বিরুদ্ধে সরকার ফেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করার অভিযোগ করেছেন।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Jun 21, 2022 | 2:43 PM

মুম্বই : মহারাষ্ট্রে বিধান পরিষদের ভোট মিটতেই অন্যদিকে মোড় নিয়েছে মহারাষ্ট্রের রাজনীতি। গতকাল ফল প্রকাশের পর দেখা গিয়েছে বিধান পরিষদের ১০ টি আসনের মধ্যে ৫ টি গিয়েছে শাসক শিবিরের (Shivsena-NCP-Congress) ঘরে আর ৫ টি গিয়েছে মহারাষ্ট্রের বিরোধী রাজনৈতিক দল বিজেপির পকেটে। এই ফলাফলের পরই মহারাষ্ট্রের নগরোন্নায়ন মন্ত্রী তথা শিবসেনা নেতা একনাথ শিন্ডে বিজেপি শাসিত গুজরাটের একটি হোটেলে গিয়ে উঠেছেন বলে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে। তাঁর সঙ্গে গিয়েছেন আরও ২১ জন শাসক দলের বিধায়ক। বিশ্লেষকদের মতে, তিনি বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন বলেই মনে করা হচ্ছে। যদিও একনাথের বিজেপিতে যোগদানের দাবি নস্যাৎ করে দেওয়ার হয়েছে বিজেপির তরফে।

সূত্রের খবর, বিজেপি শাসিত গুজরাটের সুরাটের মেরিডিয়ান হোটেলে গিয়ে উঠেছেন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী। তাঁকে ফোনে পাওয়া যাচ্ছেনা বলেও জানা গিয়েছে। তাঁর সঙ্গে রয়েছেন আরও ২১ জন বিধায়ক। মোট ২২ জন বিধায়কের মধ্যে ৫ জন মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী রয়েছেন বলেই সূত্র মারফত জানা গিয়েছে। এদিকে একনাথ শিন্ডের বিজেপিতে যোগদান প্রসঙ্গে বিজেপির বর্ষীয়ান নেতা সুধীর মুঙ্গান্তিওয়ার বলেন, ‘একনাথ শিন্ডের সঙ্গে আমাদের কোনও যোগাযোগে নেই। তাঁর দলীয় নেতৃত্বের তাঁর নাগাল না পাওয়ার সঙ্গে আমাদের কোনও সম্পর্ক নেই। আমরা অবশ্যই পরিস্থিতি খুব কাছ থেকে পর্যবেক্ষণ করছি। মহারাষ্ট্রের স্বার্থে যখনই প্রয়োজন হবে আমরা পদক্ষেপ করব। এটি একদিন না একদিন ঘটতই। কারণ শিবসেনা প্রধান উদ্ধব ঠাকরে ২০১৯ সালের অক্টোবরে জনগণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন (বিধানসভা নির্বাচন)। এই ধরনের বিশ্বাসঘাতকতা নিয়ে জনগণের অসন্তোষ সম্পর্কে আমরা তাদের সতর্ক করেছিলাম, কিন্তু তাঁরা তাতে কর্ণপাত করেনি।’

এদিকে এই পরিস্থিতিতে বিজেপিকে নিশানা করে শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত বলেছে যে, উদ্ধব ঠাকরের সরকারকে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। যেরকম মধ্য প্রদেশ ও রাজস্থানে হয়েছিল সেরকমই চেষ্টা চালানো হচ্ছে। তিনি বলেছেন, ‘অনুগত ব্যক্তিদের দল শিবেসেনা। আমরা এটা হতে দেব না।’ তিনি আরও জানিয়েছেন যে, সুরাটে থাকা কয়েকজন বিধায়কের সঙ্গে কথ বলা হয়েছে। তিনি বলেছেন, ‘তাঁরা ফিরে আসতে চান। কিন্তু তাঁদের আসতে দেওয়া হচ্ছে না।’ এদিকে সূত্রের খবর, এই পরিস্থিতিতে তড়িঘড়ি বৈঠকে বসবেন এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ার ও মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে। এইদিকে আজ শরদ পওয়ারের সভাপতিত্বে রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী নিয়ে বিরোধীদের দ্বিতীয় বৈঠক হওয়ার কথা। সেখানে শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত থাকবেন না বলে জানা গিয়েছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA