Firhad Hakim: হাত উঁচিয়ে হুঁশিয়ারি ‘৫ মিনিট লাগবে…’, এবার ফিরহাদের বিরুদ্ধে মামলা বিপ্লব গড়ে

Tripura Police: প্রকাশ্য জনসভায় ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীকে হেয় করা এবং পাঁচ মিনিটে পাঁচ জনকে মারার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Firhad Hakim: হাত উঁচিয়ে হুঁশিয়ারি '৫ মিনিট লাগবে...', এবার ফিরহাদের বিরুদ্ধে মামলা বিপ্লব গড়ে
ত্রিপুরার জনসভার ফিরহাদ হাকিম

আগরতলা : সায়নী ঘোষের  (Saayoni Ghosh) জামিনের দিনেই ফের অভিযোগ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। এবার ফিরহাদ হাকিমের (Firhad Hakim) বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে ত্রিপুরার সোনামুরা থানায়। প্রকাশ্য জনসভায় মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবকে হেয় করা এবং পাঁচ মিনিটে পাঁচ জনকে মারার হুমকি দেওয়ার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। সোহেল রানা নামে সোনামুরার স্থানীয় এক বিজেপি নেতা আজ ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ জানিয়েছেন থানায়। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতেই এবার মামলা শুরু করল সোনামুরা থানা।

সম্প্রতি ত্রিপুরায় গিয়ে ফিরহাদ হাকিম তৃণমূল কর্মীদের উপর আক্রমণের প্রতিবাদে বলেছিলেন, “আমাদের ছেলেদের মেরে হাসপাতালে পাঠিয়ে দিচ্ছে। পাঁচ মিনিট লাগবে। বিপ্লব দেব কুয়োর ব্যাঙ। তিনি ভাবেন কুয়োটাই পৃথিবী। কিন্তু কুয়োটা পৃথিবী নয়। এখানে আমাকে একটা মারলে, আমি ওখানে পাঁচটা মারব।” ফিরহাদ হাকিমের এই মন্তব্যের জেরেই তাঁর বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে ত্রিপুরার সোনামুরা থানায়।

উল্লেখ্য, আজই বিকেলে জামিন পেয়েছেন যুব তৃণমূলের সভানেত্রী সায়নী ঘোষ। গতকাল থেকে সায়নীর গ্রেফতারিকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়েছে ত্রিপুরার রাজনীতি। দফায় দফায় উত্তেজনার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। আর এরই মধ্যে তার রেশ কাটতে না কাটতেই ফিরহাদ হাকিমের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের ত্রিপুরায়।

এদিকে তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, ত্রিপুরায় নেতা- নেত্রীদের ওপর আক্রমণের ঘটনায় মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ চাইছে তৃণমূল। ঘাসফুল শিবিরের দাবি, পশ্চিমবঙ্গে যে কোনও ঘটনায় মানবাধিকার কমিশন সক্রিয় হলেও বিজেপি শাসিত রাজ্যে ক্ষেত্রে তা নয়। তাই তৃণমূল চাইছে, অবিলম্বে যেন চেয়ারম্যান নিজে ত্রিপুরা যান অথবা কোনও প্রতিনিধি পাঠান। প্রতিনিয়ত সে রাজ্যে যে রাজনৈতিক সন্ত্রাস চলছে, তাতে মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ প্রয়োজন বলে মনে করছে দলীয় নেতৃত্ব।

এ দিন সেই মানবাধিকার কমিশনের কথা উল্লেখ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার দিল্লি সফরে যাওয়ার আগে কলকাতায় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা বলেন, নাড্ডার মিছিলে কী হয়েছিল, তার জন্য সবকিছু দিয়ে তদন্ত করা হয়েছিল। আর এখন কোথায় গেল জাতীয় মানবাধিকার কমিশন। অশান্তি ত্রিপুরায় হলেও মমতা জানিয়েছেন, এই ইস্যু শুধু ত্রিপুরার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকবে না, দিল্লি, মুম্বই সর্বত্র ছড়িয়ে দেওয়া হবে।

আজ জামিন পাওয়ার পর সন্ধ্যায় সায়নী ঘোষ সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জানিয়েছেন, “ত্রিপুরায় অপশাসন চলছে। মানুষ দেখছে, মানুষ বিচার করবে। পুলিশ, সিআরপিএফ দিয়ে টার্গেট করা হচ্ছে।” এই অভিযোগ এর আগেও একাধিকবার করতে দেখা গিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্বকে। ত্রিপুরার পরিস্থিতি নিয়ে আজ বিকেলে দিল্লিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহর সঙ্গেও দেখা করেন তৃণমূল সাংসদরা।

আরও পড়ুন : Saayoni Ghosh got bail: প্রায় ২৪ ঘণ্টা পর জামিন পেলেন সায়নী

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla