Fake Vaccine: লালবাজারের হাতে নয়া তথ্য? দেবাঞ্জনকে সঙ্গে নিয়েই সাড়ে তিন ঘণ্টা তল্লাশি কসবার অফিসে

পুলিশ সূত্রে খবর, দেবাঞ্জনের কসবার অফিসের চারটি ঘরের মধ্যে তিনটি ঘরে আগেই তল্লাশি চালিয়েছিল গোয়েন্দারা। কিন্তু একটি ঘর তালা বন্ধ থাকায় তল্লাশি চালানো সম্ভব হয়নি।

Fake Vaccine: লালবাজারের হাতে নয়া তথ্য? দেবাঞ্জনকে সঙ্গে নিয়েই সাড়ে তিন ঘণ্টা তল্লাশি কসবার অফিসে
ফাইল চিত্র।

কলকাতা: ভুয়ো ভ্যাকসিনকাণ্ডে আবারও দেবাঞ্জন দেবের কসবার অফিসে অভিযান চালাল তদন্তকারীরা। শনিবার বিকেলে লালবাজারের গোয়েন্দাদের একটি দল কসবায় দেবাঞ্জনের অফিসে যায়। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা ধরে সেখানে অভিযান চলে। নতুন কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েই এই অভিযান বলে মনে করা হচ্ছে। অন্যদিকে এদিনই আবার শিলিগুড়িতে আরও এক ব্যক্তি দেবাঞ্জনের বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ তুলেছেন। শৌভিক মজুমদারের পাশাপাশি হাকিমপাড়ার বাসিন্দা ওই ব্যক্তির কাছ থেকেও ৩ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ দেবাঞ্জনের বিরুদ্ধে।

এদিন দেবাঞ্জন দেবকে সঙ্গে নিয়ে কলকাতার কসবায় তাঁর অফিসে যান পুলিশ আধিকারিকরা। নতুন তথ্যের ভিত্তিতেই এই তল্লাশি বলে জানা গিয়েছে। পুলিশ সূত্রে খবর, দেবাঞ্জনের কসবার অফিসের চারটি ঘরের মধ্যে তিনটি ঘরে আগেই তল্লাশি চালিয়েছিল গোয়েন্দারা। কিন্তু একটি ঘর তালা বন্ধ থাকায় তল্লাশি চালানো সম্ভব হয়নি।

লালবাজার সূত্রের খবর, বন্ধ ঘর খোলার জন্য আদালতের অনুমতি পাওয়ার পরই এদিন দেবাঞ্জনকে সঙ্গে নিয়ে চতুর্থ ঘর খুলে অভিযান চালানো হয়। এদিন তল্লাশি চালিয়ে নতুন করে বেশ কিছু নথিপত্র উদ্ধার করেন গোয়েন্দারা। উদ্ধার হওয়া নথিপত্র খতিয়ে দেখে অভিযুক্ত দেবাঞ্জনের ভুয়ো কর্মকাণ্ডের বিষয়ে নতুন তথ্য সামনে উঠে আসতে পারে বলেই অনুমান তদন্তকারীদের।

আরও পড়ুন: এক ক্লিকেই দেবাঞ্জনের সব কীর্তিকলাপ 

এদিনই পুলিশ জানতে পেরেছে দেবাঞ্জনের বিরুদ্ধে একাধিক ‘দাদাগিরি’র অভিযোগও রয়েছে। লকডাউন সফল করতে তিনি নাকি অফিসার সেজে অভিযান চালিয়েছিলেন। মাস্কহীনদের ধরতে বাসন্তী হাইওয়েতে ছুটে বেরিয়েছিলেন ‘দলবল’ নিয়ে। পুলিশের সঙ্গে হাতে লাঠি নিয়ে রাস্তায় নেমেছিলেন তিনি। ‘স্যারের’ এমন অবতারে আসল মানুষকে চিনতে ভুল হয়েছিল নিচুতলার পুলিশ কর্মীদেরও।

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla