কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘টু্ম্পা সোনা’ গানের জের, কড়া শাস্তির মুখে ৫ উদ্যোক্তা

এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া নিতে একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও মনিশঙ্করের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 14:27 PM, 22 Feb 2021
কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে 'টু্ম্পা সোনা' গানের জের, কড়া শাস্তির মুখে ৫ উদ্যোক্তা
সরস্বতী পুজোর দিন কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাস

কলকাতা: কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে সরস্বতী পুজোয় ‘টুম্পা সোনা’ (Tumpa Sona) গান বাজানোর জের। কড়া পদক্ষেপ নিল কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় (University of Calcutta)। কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাসে প্রবেশাধিকার বন্ধ হল তৃণমূল ছাত্র পরিষদের শীর্ষ নেতা মনিশঙ্কর মণ্ডলের। একই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে তাঁর ঘনিষ্ঠ রাজা মেহেদি, দেবর্ষি রায়, তীর্থপ্রতিম সাহা ও রনি ঘোষের ক্ষেত্রেও। তদন্ত কমিটির প্রস্তাব অনুসারে এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সিন্ডিকেট।

বাসন্তী শাড়ি, হলুদ পাঞ্জাবির ভিড়– এ সবের পরেও সরস্বতী পুজোর দিন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাসে কিন্তু মূল আকর্ষণের বিষয় হয়ে উঠেছিল ‘টুম্পা সোনা’ গান। ক্যাম্পাসের মধ্যেই এই গান বাজানো হয়, সঙ্গে চলে কোমর দুলিয়ে দেদার নাচ। পুজোর পরের দিন সেই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড় ওঠে নেট দুনিয়ায়। সুশীল বাঙালির চায়ের আড্ডাতেও ওঠে ছি ছি রব।

ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই কড়া প্রতিক্রিয়া জানান কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোনালি চক্রবর্তী। নিন্দায় সরব হন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও।

টুম্পা নাচে ‘কড়া শাস্তি’

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়ে দেন শিক্ষামন্ত্রী। বিষয়টি খতিয়ে দেখতে গঠন করা হয় তদন্ত কমিটি। সরস্বতীর পুজোর পাঁচ উদ্যোক্তাকে চিহ্নিত করে কমিটি। মনিশঙ্কর মন্ডল তাঁদের মধ্যে অন্যতম। তিনি বর্তমানে সংস্কৃত কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান।

আরও পড়ুন: একুশের নির্বাচনে বাহিনী পরিচালনায় কমিটি গঠন কমিশনের

এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া নিতে একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও মনিশঙ্করের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।