‘কবে আমিও এমন ভালবাসা পাব দাদা?’ মুকুল নিয়ে টিপ্পনী নারদ কর্তার

যে 'নারদ স্টিং অপারেশন' দিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে হুলুস্থুল ফেলে দিয়েছিলেন ম্যাথু (Mathew Samuel), যে নারদ কাণ্ড নিয়ে একুশের ভোটের পরও ঝড় শুরু হয়েছে, মুকুল রায়ের ঘরে ফেরা নিয়ে সেই নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েলও মন্তব্য করলেন।

'কবে আমিও এমন ভালবাসা পাব দাদা?' মুকুল নিয়ে টিপ্পনী নারদ কর্তার
ফাইল চিত্র


কলকাতা: মুকুল রায় (Mukul Roy)। শুক্রবার সারাদিনই খবরের শিরোনামে এই একটিই নাম। তৃণমূল থেকে বিজেপি, বিজেপি হয়ে আবার তাঁর তৃণমূলে ফেরা, এই দলবদল নিয়ে তৃণমূল, বিজেপি, কংগ্রেস, প্রায় প্রতিটি দলের নেতাই প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়া মুকুল-ময়। সেখানেই মুকুলের ঘরওয়াপসি নিয়ে কটাক্ষ করতে দেখা গেল নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েলকে (Mathew Samuel)।

যে ‘নারদ স্টিং অপারেশন’ দিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে হুলুস্থুল ফেলে দিয়েছিলেন ম্যাথু, যে নারদ কাণ্ড নিয়ে একুশের ভোটের পরও ঝড় শুরু হয়েছে, মুকুল রায়ের ঘরে ফেরা নিয়ে সেই নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েল শুক্রবার নিজের ফেসবুক ওয়ালে একটি ছবির কোলাজ পোস্ট করেন।

যেখানে প্রথম ছবিতে দেখা যাচ্ছে, বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে আলিঙ্গনরত মুকুলের ছবি দ্বিতীয়টিতে একইরকম হাসিমুখে কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে তাঁর জড়িয়ে ধরার ছবি আর শেষেরটিতে অভিষেক। আর সেই ছবির ক্যাপশনে স্যামুয়েল লেখেন, ‘কখন আমিও এমন ভালবাসা পাওয়ার আশা করতে পারি দাদা…’ তারপর তিনটে হাসির ইমোজি দেন তিনি।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে ব্যবসায়ীর ছদ্মবেশে কয়েকজন নেতাকে টাকা তুলে দিয়েছিলেন ম্যাথু। পুরোটাই গোপন ক্যামেরায় রেকর্ড করে রেখেছিলেন। ২০১৬ সালের বিধানসভা ভোটের এক মাস আগে সেই রেকর্ডিং ফাঁস করেছিলেন। তা নিয়ে রাজ্য রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়। সেই ভিডিয়োয় (সত্যতা যাচাই করেনি Tv9 বাংলা ডিজিটাল) একাধিক তৃণমূল নেতাকে টাকা নিতে দেখা গিয়েছিল। তবে ভিডিয়োয় মুকুল থাকলেও তাঁকে টাকা নিতে দেখা যায়নি।

এই নারদ কাণ্ডে ম্যাথুকেও জিজ্ঞাসাবাদের মুখে পড়তে হয়েছে। তখন মুকুল প্রসঙ্গে তিনি বলেছিলেন, স্টিং অপারেশনে তাঁর হাত থেকে টাকা নেননি মুকুল রায়। তবে মুকুল রায়ের কাছে টাকা নিয়ে যাওয়ার পর তিনি তৎকালীন বর্ধমানের পুলিশ সুপার এসএমএইচ মির্জাকে তা দিতে বলেন। তিনি সেই মতোই কাজ করেছিলেন বলে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: কেন ফের ঘাসফুলে ফুটলেন মুকুল? সর্বভারতীয় তৃণমূলে কোন ভূমিকায় থাকবেন? 

এদিকে গত মাসে নারদ মামলায় মদন মিত্র, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ফিরহাদ হাকিম ও শোভন চট্টোপাধ্যায়কে সিবিআই গ্রেফতার করলেও কেন তৎকালীন তৃণমূল নেতা তথা বর্তমানে বিধানসভায় বিরোধী নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে গ্রেফতার করা হয়নি, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন নারদ কর্তা। অন্যদিকে তৃণমূল অভিযোগ করেছে, নারদা, সারদা ইত্যাদি মামলায় সিবিআই-ইডির ভয় দেখিয়ে মুকুল রায়দের বিজেপিতে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেই মুকুল রায়ের ঘরওয়াপসিতে কটাক্ষ ছুড়ে দিলেন নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েল।