শুক্রবারে কোন দেবতার আরাধনা করলে গৃহে শান্তি ফিরবে? জেনে নিন

শাস্ত্রমতে, নির্দিষ্ট দিনে অধিষ্ঠিত দেবতার আরাধনা করলে ভাগ্যের চাকা ঘুরে যেতে পারে । সোম থেকে রবি, এই সাতদিনেই নির্দিষ্ট দেব-দেবীর পুজো করা হয়ে থাকে।

শুক্রবারে কোন দেবতার আরাধনা করলে গৃহে শান্তি ফিরবে? জেনে নিন
ছবিটি প্রতীকী

পুরান মতে, প্রতিটি সপ্তাহেই কোনও না কোনও দেবতার পুজো করা হয়। হিন্দু শাস্ত্র অনুসারে প্রত্যেকদিন কেনও না কোনও দেব-দেবীর পুজো করা উচিত। তবে তার জন্য সঠিক উপায়ে আরাধনা করলেই মিলবে সুফল। এছাড়া বিশেষ দিনে রীতি মেনে পুজো করা হয়ে থাকে।

যেমন সোমবার শিবের বার, বৃহস্পতিবারে লক্ষ্মীবার, তেমনই শুক্রবার দেবী শক্তির আরাধনা করা হয়ে থাকে। শুক্রবারের একাধিক দেবতার পুজো করা হয়েথাকে। এই দিন দেবী মহালক্ষ্মী, সন্তোষী, দূর্গা ও অন্নপূর্ণার পুজো করা হয়। তবে বিশেষ করে দেবী দূর্গাকে বেশি প্রাধান্য দেওয়া হয়।

শাস্ত্র অনুযায়ী, শুক্রবার করে নিয়মিত দেবী দূর্গার আরাধনকরলে দেবীর আর্শীবাদ পাওয়া যায়। দেবী দূর্গার কৃপা পেতে নিয়মিত পুজো করার কিছু নিয়ম রয়েছে, সেগুলি জেনে নিন…

– বাস্তুশাস্ত্র মতে, দক্ষিণ-পূর্ব দিকে দেবী দূর্গার বিগ্রহ স্থাপন করলে সুফল পাওয়া যায় । এতটুকু ভুল হলে পুজো বিফলে যেতে পারে।

-বিগ্রহের দক্ষিণ-পূর্ব দিকে মাটির প্রদীপ জ্বালাতে হবে। তবে ওই প্রদীপ যেন নয়দিন পর্যন্ত জ্বলে, সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। টানা ৯দিন ধরে প্রদীপ জ্বালানোর অর্থ হল, এই সময় দেবী জাগ্রত থাকেন। এমনটা করলে সব ধরনের বিপদ থেকে রক্ষা পেতে পারেন। মানসিক অবসাদ থেকে মুক্তিও মিলতে পারে।

আরও পড়ুন: সারাবছর শনি দেবকে তুষ্ট রাখতে কী করবেন? কী করবেন না?

– দেবীর আরাধনায় যখন পুজোয় বসবেন তখন এমনভাবে বসবেন, যেন আপনার চোখ পূর্ব বা উত্তর দিকে থাকে।

-পুজোর আগে ঠাকুরঘর পরিস্কার করা, গঙ্গাজলে জায়গাটি পরিশুদ্ধ করে তোলা, মূর্তি বা ছবি মুখে পরিস্কার করে রাখার নিয়ম। শক্তির দেবীকে তুষ্ট করতে এই কাজ নিয়মিত করতে হবে।

– বর্তমানে ছোট ছোট ফ্ল্যাটে ঠাকুরঘরের কোনও বালাই নেই। তাই পুজো করার জন্য দেবী দূর্গার আসন পাতার সময় বিশেষ খেয়াল রাখা প্রয়োজন। বাথরুম বা রান্নাঘরের সামনে যেন আসন পাতা না থাকে। এমনকি রান্নাঘর বা বাথরুমের দেওয়ালও স্পর্শ না করতে পারে, তা দেখা দরকার।

– শক্তির আরাধ্য দেবীর পুজোয় ব্যবহৃত যাবতীয় পূজোর সামগ্রী দক্ষিণ বা দক্ষিণ-পূর্ব দিকে থাকা উচিত

– প্রতি শুক্রবার শক্তির দেবীর মন্ত্রপাঠ ও পুজো করলে জীবনে শুভ লক্ষণের প্রভাব বিস্তার করতে থাকে। গৃহের চারপাশে পজিটিভ বাতাবরণ সৃষ্টি হয়। পুজো করার সময় উপরের নিয়মগুলি মাথায় রাখবেন।