আইপিএল স্থগিত, বিশ্বকাপেও আশঙ্কার মেঘ দেখছে বিসিসিআই

দর্শকশূন্য আইপিএল আয়োজন করে গত বার সেরকম লাভের মুখ দেখেনি বোর্ড। বরং বিদেশে আইপিএল করায় প্রচুর খরচ বহন করতে হয়েছিল বিসিসিআইকে। এছাড়া ক্রিকোরদের সুরক্ষা, হোটেল খরচ, লজিস্টিক্স সাপোর্টেও অনেক খরচ হয়েছে। এ বছরও দর্শকশূন্য আইপিএল হওয়ায় লাভের মুখ সে ভাবে দেখতে পারেনি বোর্ড। মাঝপথে টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এমনিতেই আর্থিক দিক দিয়ে অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছে বিসিসিআই। এ বার দেশের মাঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না হলে জোরালো ভাবে আর্থিক ধাক্কা খাবে বোর্ড।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 18:26 PM, 4 May 2021
আইপিএল স্থগিত, বিশ্বকাপেও আশঙ্কার মেঘ দেখছে বিসিসিআই
ছবি-টুইটার

মুম্বই: কোভিডের কামড়ে অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত হয়ে গিয়েছে এ বারের আইপিএল। ৫ মাস বাদে দেশের মাঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। তা আয়োজনে এখন থেকেই আশঙ্কার মেঘ দেখছেন বোর্ড কর্তারা। জৈব সুরক্ষা বলয়ে থেকে কী ভাবে করোনা আক্রান্ত হন ক্রিকেটাররা, তা নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সুষ্ঠুভাবে দেশের মাঠে আইপিএল আয়োজন করে চমক দিতে চেয়েছিল সৌরভের বোর্ড। কিন্তু সেই স্বপ্নে ধাক্কা খাওয়ায় অশনি সংকেত দেখছেন বোর্ড কর্তারা।

কয়েকদিন আগেই বিসিসিআইয়ের জেনারেল ম্যানেজার ধীরজ মালহোত্রা বলেছিলেন, সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হতে পারে। তবে তার আয়োজনে থাকবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড। ভারতের কোভিড পরিস্থিতির ভয়াবহ রূপ দেখে আগেই আমিরশাহিকে স্ট্যান্ড বাই ভেনু হিসেবে ঘোষণা করেছে আইসিসি। চলতি বছরের অক্টোবর-নভেম্বরে দেশের মাঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা। আইপিএল আয়োজনে ফ্লপ হওয়ায় স্বভাবতই ঘুম উড়েছে বোর্ড কর্তাদের।

ভারতীয় ক্রিকেটারদের টিকাকরণের বিষয়টিতেও এখনও কোনও হস্তক্ষেপ করেনি বোর্ড। বরং পুরো বিষয়টিই ক্রিকেটারদের উপর ছেড়েছেন তারা। কয়েক মাস আগেও বোর্ডের তরফ থেকে বলা হয়েছিল, ক্রিকেটারদের টিকাকরণের জন্য উদ্যোগ নেবে বিসিসিআই। সেই মতো কেন্দ্র সরকারের সঙ্গে কথা চালাচালিও চলছিল। আইপিএলের মাঝপথে ১৮-ঊর্ধ্বদের টিকাকরণ ঘোষণা হলে, তখন সেই বিষয়টি ক্রিকেটারদের উপরেই ছাড়ে বোর্ড। তবে আইপিএল স্থগিত হয়ে যাওয়ায় আবার হয়তো ক্রিকেটারদের টিকাকরণে উদ্যোগী হবে বোর্ড। কারণ পরের মাসেই সাউদাম্পটনে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল খেলতে যাবেন কোহলিরা। তারপর রয়েছে ইংল্যান্ড সফর।

আরও পড়ুন:IPL 2021 Suspended:  করোনার কামড়, অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত এ বারের আইপিএল

এমনিতেই দর্শকশূন্য আইপিএল আয়োজন করে গত বার সেরকম লাভের মুখ দেখেনি বোর্ড। বরং বিদেশে আইপিএল করায় প্রচুর খরচ বহন করতে হয়েছিল বিসিসিআইকে। এছাড়া ক্রিকোরদের সুরক্ষা, হোটেল খরচ, লজিস্টিক্স সাপোর্টেও অনেক খরচ হয়েছে। এ বছরও দর্শকশূন্য আইপিএল হওয়ায় লাভের মুখ সে ভাবে দেখতে পারেনি বোর্ড। মাঝপথে টুর্নামেন্ট স্থগিত হয়ে যাওয়ায় এমনিতেই আর্থিক দিক দিয়ে অস্বস্তিতে পড়ে গিয়েছে বিসিসিআই। এ বার দেশের মাঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ না হলে জোরালো ভাবে আর্থিক ধাক্কা খাবে বোর্ড। সেই চিন্তাতেই এখন ঘুম উড়েছে বোর্ডের প্রভাবশালী কর্তাদের।