Mohun Bagan: মোহনবাগানে ‘ম্যান অব দ্য মোমেন্ট’ এখন সচিব দেবাশিসই

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: দীপঙ্কর ঘোষাল

Updated on: Mar 20, 2023 | 4:16 PM

ISL Champion-Mohun Bagan : সবুজ-মেরুনের জন্য আবেগ ঢেলে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে আফশোস করলেন ইস্টবেঙ্গলের জন্য। ভীষণভাবে চাইছেন ইস্টবেঙ্গলেও যাতে সাফল্য আসে।

Mohun Bagan: মোহনবাগানে 'ম্যান অব দ্য মোমেন্ট' এখন সচিব দেবাশিসই
Image Credit source: OWN Photograph

Follow us on

কলকাতা: কয়েক মাস আগেও মোহনবাগান ক্লাবে যে ছবিটা দেখা যেত, তা একেবারে পাল্টে গিয়েছে। ট্রফি জয়ের আনন্দে মশগুল সবুজ মেরুন জনতা। সোমবার ক্লাব তাঁবুতে বিজয়োৎসবে মেতে উঠলেন সমর্থকরা। সকাল থেকেই এক এক করে ভিড় জমান গ্যালারিতে। ট্রফি নিয়ে প্রীতম-শুভাশিসরা মাঠে ঢুকতেই বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস। মুখ্যমন্ত্রী চলে যাওয়ার পর বিশাল কাইথ, মনবীর সিংদের ঘিরে সেলফির আবদার সমর্থকদের। ফুটবলারদের ঘিরে বাগান জনতার এমন ভিড়ের ছবি শেষ কবে দেখেছে ময়দান? তবে এ সবের মাঝেও বাগান সমর্থকদের আনন্দ দ্বিগুণ করে দিয়েছে মোহনবাগান নামের আগে থেকে এটিকের সরে যাওয়া। যা নিয়ে দীর্ঘদিনের ক্ষোভ, বিক্ষোভ, মান, অভিমান ছিল সবুজ মেরুন সমর্রকদের মনে। আইএসএল চ্যাম্পিয়নের দিনে সঞ্জীব গোয়েঙ্কার ওই একটা ঘোষণাই বাগান জনতার আনন্দ দ্বিগুণ করে দেয়। আর তাতে অনেকাংশে সাফল্য বাগানের বর্তমান কমিটির। মোহনবাগান সচিব দেবাশিস দত্ত রাতারাতি সমর্থকদের কাছে হিরো বনে গিয়েছেন। রিমুভ এটিকে দাবিতে একাধিকবার বিক্ষোভের সামনে পড়তে হয়েছে তাঁকে। কখনও ডার্বিতে তাঁর বিরুদ্ধে টিফো নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন মোহনবাগান জনতা, আবার কখনও বাড়ির সামনেও স্লোগান চড়িয়েছে একদল সমর্থক। সব কিছু শেষে এখন সেই দেবাশিসই ‘ম্যান অব দ্য মোমেন্ট।’ বিস্তারিত TV9Bangla-য়।

ট্রফি জেতা থেকে এটিকে নামের অস্তিত্ব মুছে যাওয়া- সবেতেই সঞ্জীব গোয়েঙ্কার কৃতিত্ব দিচ্ছেন বাগান সচিব দেবাশিস দত্ত। অন্যান্য ক্লাবের চেয়ে অনেক এগিয়ে থেকে শুরু করেছে মোহনবাগান। যে কথা স্বীকার করলেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রীও। মঞ্চে দাঁড়িয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও বলেন এটিকে সরানোর জন্য তিনিও উদ্যোগী হয়েছিলেন। ক্রীড়ামন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকে আসরে নামতেও বলেওছিলেন। যে প্রসঙ্গে বাগান সচিব বললেন, ‘প্রত্যেক মোহনবাগান সমর্থকই চেয়েছিলেন এটিকে নামটা যাতে সরানো যায়। আমাদের কমিটি এ দিক দিয়ে চেষ্টা করেছে। অন্যান্যরাও নানা দিক থেকে চেষ্টা করেছে।’

সচিবের চেয়ারে বসে এক বছরের মধ্যেই এই ব্যাপক সাফল্যের রসায়ন কী? দেবাশিস দত্তর উত্তর, ‘কোনও কিছুর বাস্তবায়ন করতে হলে নিজেকেও কিছু করতে হয়। আমি শুধু ক্লাব চালাই না। কাজের জন্য কর্পোরেট জগতের মানুষের সঙ্গেও আমাকে ওঠা বসা করতে হয়। সমর্থকরা অধৈর্য হলেও, আমি জানতাম সঠিক সময়ে সঞ্জীব গোয়েঙ্কা ঘোষণা করবেন। কারণ, উনি আমাদের কথা দিয়েছিলেন।’

আইএসএলের ফাইনাল খেলতে যাওয়ার আগেই রাজ্যের ক্রীড়ামন্ত্রীকে গোয়া যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই শহরে ফেরার পরই ট্রফি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিল ক্লাব। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী নিজেই ক্লাবে আসতে চান। মোহনবাগানের বিজয়োৎসবে সামিল হতে চান। তাই মঞ্চ থেকেও সবুজ-মেরুনের জন্য আবেগ ঢেলে দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। একই সঙ্গে আফশোস করলেন ইস্টবেঙ্গলের জন্য। ভীষণভাবে চাইছেন ইস্টবেঙ্গলেও যাতে সাফল্য আসে। সমর্থকদের জন্য আইএসএলের ট্রফি দেখার সুযোগ করেছে ক্লাব। আগামী কয়েক দিন ক্লাব তাঁবুতে রাখা থাকবে সেই ট্রফি।

Latest News Updates

Related Stories
Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla