Tata Nexon EV Fire: মুম্বইতে নিক্সন ইলেকট্রিক গাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আশ্বাস টাটা মোটরসের

Tata Nexon EV Fire: মুম্বইতে নিক্সন ইলেকট্রিক গাড়িতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আশ্বাস টাটা মোটরসের
টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভেহিকলে ভয়ঙ্কর অগ্নিকাণ্ড। ভাইরাল ভিডিয়ো থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট।

Mumbai Nexon EV Fire Latest Update: মুম্বইতে একটি টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভেহিকলে ভয়াবহ আগুন ধরার ঘটনা ঘটল। যা নিয়ে তীব্র খোঁটা দিয়েছেন ওলা ইলেকট্রিকের সিইও। বললেন, "ইভিতে আগুন ধরার ঘটনা ঘটতেই থাকবে।"

TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sayantan Mukherjee

Jun 23, 2022 | 4:05 PM

বিগত কিছু মাস ধরে আমরা দেশে একের পর এক ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন ধরার ঘটনার কথা শুনেছি। এবার আর একটু বেশিই উদ্বেগের খবর হাজির হল ইলেকট্রিক গতিশীলতায় আগ্রহী মানুষজনের জন্য। মুম্বই শহরতলিতে ভাসাই পশ্চিমের কাছে পঞ্চবতী হোটেলে একটি টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক গাড়িতে (Electric Vehicle) আগুন ধরল। ইন্টারনেটের বিভিন্ন প্রান্তে ঘোরাফেরা করছে সেই ইলেকট্রিক কম্প্যাক্ট এসইউভি-তে আগুন ধরার ভিডিয়োটি। আর তা নিয়ে নেটপাড়ার লোকজনের মধ্যেও দেখা গিয়েছে মিশ্র প্রতিক্রিয়া। টাটা নিক্সন ইলেকট্রিক ভেহিকলটি (Tata Nexon EV) যাঁরা ব্যবহার করছেন, তাঁদের মধ্যেও এই আগুন ধরার ঘটনা নিয়ে রীতিমতো ভয়ের বাতাবরণ সৃষ্টি হয়েছে। যদিও ওই টাটা নিক্সন ইভিতে আগুন ধরার পরই তা নিয়ন্ত্রণে আনা গিয়েছে এবং কোনও হতাহতের খবর মেলেনি। তবে ইলেকট্রিক গাড়িটিতে কেন আগুন ধরেছিল, সে বিষয়েও কিছু জানা যায়নি।

এই আগুন ধরার ঘটনা সম্পর্কে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করেছে টাটা মোটরস। তারা জানিয়েছে, ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্ত শুরু হয়েছে। তাদের কথায়, “সাম্প্রতিক এই ঘটনা যা সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়াচ্ছে, তার সত্যতা খুঁজে বের করার জন্য আমরা একটি বিশদ তদন্ত পরিচালিত করছি। আমরা আমাদের সম্পূর্ণ তদন্তের পর বিস্তারিত প্রতিক্রিয়া সকলের সঙ্গে শেয়ার করব। আমাদের যানবাহন এবং তাদের ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তার জন্য আমরা সর্বদা প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। প্রায় 4 বছরে 30,000 টিরও বেশি টাটা নিক্সন ইভি দেশ জুড়ে 1 মিলিয়ন কিলোমিটারেরও বেশি কভার করার পরে এটিই প্রথম ঘটনা।”

টাটা নিক্সন ইভির এই আগুন লাগার ঘটনার রিট্যুইট করেছেন ওলা ইলেকট্রিকের সিইও ভাবিশ আগরওয়াল। কিছুটা খোঁটা দিয়েই তিনি লিখছেন, “আপনারা যদি এখনও পর্যন্ত ঘটনাটি সম্পর্কে না জানেন, তাহলে জেনে নিন যে, ইলেকট্রিক ভেহিকলে আগুন লাগার ঘটনা চলতেই থাকবে। শুধু ভারতের নয়। গ্লোবাল প্রোডাক্টের ক্ষেত্রেও এই ঘটনা চলতে থাকবে। তবে ICE-তে আগুন লাগার থেকে ইলেকট্রিক ভেহিকলে অনেক কম ঘন ঘন আগুন লাগে।”

প্রসঙ্গত, পুণেতে কয়েক মাস আগেই একটি ওলা এস১ প্রো ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন ধরার ঘটনা ঘটে। যা নিয়ে দেশজুড়ে তীব্র বিতর্কের সৃষ্টি। তারপরে এক এক করে পিওর ইভি, ওকিনাওয়া অটোটেক, জিতেন্দ্র ইভি এবং আরও কিছু ব্র্যান্ডের ইলেকট্রিক স্কুটারে অসংখ্য অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি নিয়ে সবথেকে বেশি তোলপাড় হতে থাকে যখন একই পরিবারের এক কন্যা ও তাঁর পিতার মৃত্যু হয় তামিলনাড়ুতে ইলেকট্রিক স্কুটারে আগুন লাগার কারণে।

এই খবরটিও পড়ুন

তারপরই নড়েচড়ে বসে ভারত সরকার। ইলেকট্রিক স্কুটার প্রস্তুতকারক সংস্থাগুলিকে সরকারের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয় যে, ই-স্কুটিগুলিতে কী ভুলচুক রয়েছে তার তদন্ত করে সেগুলি শুধরে নিতে হবে। সরকারের তরফে এ বিষয়ে একটি বিশেষজ্ঞের কমিটিও গড়ে দেওয়া হয়। আর সেই তদন্তের পর মার্কেট থেকে 1000-এরও বেশি এস১ প্রো ই-স্কুটার তুলে নেয় ওলা ইলেকট্রিক।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA