Netflix Rules: সাবধান! এই তিন কাজে আপনার নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট চিরকালের জন্য বন্ধ হয়ে যাবে

Things That Get You Banned On Netflix: একাধিক কারণে আপনার নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট ব্যান হতে পারে। আপনার প্রিয় কন্টেন্ট দেখা থেকে বিরত থাকতে পারেন। নেটফ্লিক্সের নিয়মগুলি আপনার এখনই জেনে নেওয়া দরকার, না হলে বড় বিপদে পড়বেন।

Netflix Rules: সাবধান! এই তিন কাজে আপনার নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট চিরকালের জন্য বন্ধ হয়ে যাবে
প্রতীকী ছবি।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sayantan Mukherjee

Jun 18, 2022 | 7:22 PM

বন্ধুবান্ধব, কাছের মানুষের কাছে পাসওয়ার্ড শেয়ার করলে বড্ড বিরক্ত হয় নেটফ্লিক্স (Netflix)। তবে আরও একাধিক বিষয় রয়েছে, যেগুলির জন্য নেটফ্লিক্স তার ইউজারকে ব্যান পর্যন্ত করতে পারে। প্ল্যাটফর্মে ভুলভাল কাজ করলে তা সে যে ইউজারই হোক না কেন, জ়িরো টলারেন্স নীতি নিয়ে চলে স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মটি। নেটফ্লিক্সের নিয়ম ভঙ্গ করলে আপনি অ্যাকাউন্টে অ্যাক্সেস তো হারাতে পারেনই, পাশাপাশি জীবনে আর কখনও যাতে ব্যবহার করতে না পারেন, সে রাস্তাটিও পাকা করে রাখে। সম্প্রতি নেটফ্লিক্স জানিয়েছে, তারা প্রায় 2 লাখের বেশি ইউজার হারিয়েছে। আর সেই দিকটা মাথায় রেখে নতুন সাবস্ক্রিপশন প্ল্যানও নিয়ে আসতে চলেছে নেটফ্লিক্স, যার খরচ হবে আরও কম। নেটফ্লিক্সও যেমন ইউজার হারাতে চায় না। ঠিক তেমনই আবার ইউজাররাও চাইবেন না যে, তাঁদের নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ (Account Ban) হয়ে যাক। তাই, যে নিয়মগুলি লঙ্ঘন করলে আপনার নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট ব্যান করা হতে পারে, সেগুলি একবার দেখে নেওয়া যাক।

ভিপিএন ব্যবহার

ভিপিএন শব্দটা আপনি যদি প্রথম শোনেন, তাহলে জেনে রাখা উচিৎ আপনাকে গোপনে অনলাইন থাকতে সাহায্য করে ভিপিএন পরিষেবা। এটি মূলত ব্যবহৃত হয় আপনার অনলাইন অ্যাক্টিভিটি লুকিয়ে রাখার জন্য। পাশাপাশি সাইবার অপরাধীদের কড়াল গ্রাস থেকেও আপনার অনলাইন উপস্থিতি আড়াল করে রাখে। আইপি অ্যাড্রেস, ব্রাউজ়িং অ্যাক্টিভিটি এবং যে কোনও ওয়াই-ফাই নেটওয়ার্কে ব্যক্তিগত তথ্য লুকিয়ে রাখতে পারে এই বিশেষ সার্ভিস। তবে নেটফ্লিক্স কখনই চায় না যে, তার গ্রাহকরা ভিপিএন নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে অ্যাপের অ্যাক্সেস করুক। তার সবথেকে বড় কারণটি হল, ভিপিএন সাইটগুলিকে বিশ্বাস করায় যে, তার গ্রাহক অন্য দেশে আছেন। এর অর্থ হল, আপনি এমন কিছু টিভি শো দেখার সুযোগ পেতে পারেন, যেগুলি আপনার দেশে উপলব্ধ নয়। আর নেটফ্লিক্স স্পষ্টতই এই প্রক্রিয়ার বিরুদ্ধে।

নেটফ্লিক্সের টার্মস অ্যান্ড কন্ডিশনসে বলা হচ্ছে, “প্রাথমিক ভাবে যে দেশে আপনার অ্যাকাউন্ট প্রতিষ্ঠা করেছেন, সেখানেই নেটফ্লিক্স কন্টেন্ট অ্যাক্সেস করতে পারেন। শুধুমাত্র ভৌগলিক অবস্থানগুলিতে যেখানে আমরা আমাদের পরিষেবা অফার করি এবং সেখানেই এই ধরনের কন্টেন্টের লাইসেন্স দিয়েছি।” এখন আপনি যদি ভিপিএন-এর মাধ্যমে নেটফ্লিক্স কন্টেন্ট অ্যাক্সেস করতে গিয়ে ধরা পড়ে যান, তাহলে আপনার কাছে একটি পপ-আপ ভেসে উঠবে। বলা হবে, ‘ভিপিএন ব্যবহার বন্ধ করুন।’ আপনি যদি তা না মানেন, তাহলে আপনার নেটফ্লিক্স অ্যাকাউন্ট ব্যান করা হবে।

নেটফ্লিক্সের অরিজিনাল কন্টেন্ট রিপ্রোডিউস করা

কন্টেন্ট ড্রিভেন যে কোনও প্ল্যাটফর্মের ক্ষেত্রে বিষয়টি উত্থাপিত হতে পারে। এই স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মের ক্ষেত্রেও বিষয়টি একই। স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম থেকে অরিজিনাল কন্টেন্ট কেউ নকল করলে, কঠোর পদক্ষেপ নেয় নেটফ্লিক্স। স্ট্রিমিং জায়ান্টটি তার ইউজারদের বলে, “আরকাইভ, রিপ্রোডিউস, ডিস্ট্রিবিউট, মডিফাই, ডিসপ্লে, পারফর্ম, পাবলিশ, লাইসেন্স, সেলের জন্য অফার ইত্যাদি প্ল্যাটফর্মে না করতে।” একটি ব্লগে নেটফ্লিক্স লিখছে, “আপনি যদি এই ব্যবহারের শর্তাবলী লঙ্ঘন করেন বা পরিষেবাটির অবৈধ বা প্রতারণামূলক ব্যবহারে জড়িত হন, তবে আমরা আপনার জন্য আমাদের পরিষেবা বন্ধ বা সীমাবদ্ধ করতে পারি।”

পাসওয়ার্ড শেয়ারিং

এই খবরটিও পড়ুন

স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্মগুলির ক্ষেত্রে জ্বলন্ত সমস্যাটি হল পাসওয়ার্ড শেয়ারিং। দীর্ঘ দিন ধরে যা চলেই আসছে। এই অনুশীলন বন্ধ করতে একাধিক পদক্ষেপ নিয়েছে নেটফ্লিক্স। পাসওয়ার্ড শেয়ারিং বন্ধ করার প্রক্রিয়াটি ইতিমধ্যেই পেরু, চিলি এবং কোস্টা রিকার মতো দেশে চালু হয়ে গিয়েছে।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla