Inspiration 4: স্পেস এক্সের ‘অল সিভিলিয়ান ক্রু মিশন’ শুরু হচ্ছে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Sohini chakrabarty

Updated on: Sep 15, 2021 | 4:28 PM

Inspiration4: এই মিশনে মহাকাশ যানের ভিতরে বসে ইউকুলেলে বাজিয়ে গানও গাইবেন চার সদস্যের ওই দল।

Inspiration 4: স্পেস এক্সের 'অল সিভিলিয়ান ক্রু মিশন' শুরু হচ্ছে আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর

আর মাত্র কয়েকদিন। তারপরই নতুন মহাকাশ অভিযান শুরু করতে চলেছে ইলন মাস্কের সংস্থা স্পেস এক্স। আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর শুরু হচ্ছে স্পেস এক্সের Inspiration 4 মিশন। তিনদিনের এই মিশনে সামিল হতে চলেছেন চারজন নাগরিক। এই প্রথম পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করার কোনও মিশনের আয়োজন করেছে স্পেস এক্স সংস্থা। নাগরিক অর্থাৎ সিটিজেনদের নিয়ে করা হচ্ছে এই মিশন। অবশেষে স্পেস ট্যুরিজমের ময়দানে পা রাখলেন ইলন মাস্ক ও তাঁর সংস্থা স্পেস এক্স।

স্পেস এক্স সংস্থার Inspiration 4 মিশনের মতো অভিযান কয়েক মাস আগেই হয়েছিল। দুই ধনকুবের রিচার্ড ব্র্যানসন এবং জেফ বেজোস যথাক্রমে ভার্জিন গ্যালাকটিক এবং ব্লু অরিজিনের স্পেস ফ্লাইটে চড়ে পৃথিবীর সীমানা পার করে মহাকাশ ঘুরে এসেছেন। এবার সেই দলেই নাম লিখিয়েছে ইলন মাস্কের সংস্থা স্পেস এক্স। জানা গিয়েছে Inspiration 4 মিশনে স্পেস এক্সের ফ্লাইটের মূল নিয়ন্ত্রক জারেড আইজ্যাকম্যান। ৩৮ বছরের এই যুবক Shift4 Payment (পেমেন্ট প্রসেসিং কোম্পানি)- এর প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও। একসময় পাইলটও ছিলেন এই আইজ্যাকম্যান। এই মিশনের জন্য তিনি কত টাকা খরচ করেছেন তার সঠিক হিসেব এখনও পাওয়া যায়নি। তবে শোনা যাচ্ছে, কয়েক মিলিয়ন ডলার সম্ভবত খরচ করেছেন আইজ্যাকম্যান।

আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশন পার করে উড়বে স্পেস এক্সের ফ্লাইট। এক্ষেত্রে ঝুঁকিও রয়েছে। পৃথিবীরে চারপাশে ঘণ্টায় প্রায় ২৮ হাজার কিলোমিটার বেগে প্রদক্ষিণ করবে ওই নির্দিষ্ট রকেট। তাই কিছুটা ঝুঁকি তো থাকছেই। এমনটাই জানিয়েছেন জারেড আইজ্যাকম্যান। ভারতীয় সময় ১৬ সেপ্টেম্বর সকাল ৫টা ৩২মিনিটে ফ্লোরিডায় নাসার কেনেডি সেন্টারের launch pad 39A থেকে উড়বে স্পেস এক্সের মহাকাশযান। এই প্রথম স্পেস এক্সের মহাকাশ যানে চড়ে নন-প্রফেশনাল অ্যাস্ট্রোনটরা যাচ্ছেন মহাকাশে। এখান থেকেই চন্দ্রপৃষ্ঠে যাওয়ার জন্য অ্যাপোলো মিশন শুরু হয়েছিল।

পৃথিবীর চারপাশে কক্ষপথে তিন দিন কাটাতে চলেছে স্পেসএক্সের অল-সিভিলিয়ান ক্রুয়ের ৪ সদস্যের দল। জানা গিয়েছে, মহাকাশে ইউকুলেলে বাজিয়ে গান করবেন তাঁরা। স্পেসএক্সের ‘ড্রাগন’ রকেটে চড়ে ইন্সপিরেশন-৪ এর মেডিকেল অফিসার হেইলি আর্সেনউক্স গানটি বাজাবেন। ওই সময় তাঁরা প্রতি ঘণ্টায় ১৭,০০০ মাইল গতিতে পৃথিবীর চারপাশে প্রদক্ষিণ করবেন। প্রথমবারের মতো মহাকাশে মিন্ট করা এনএফটি গান কক্ষপথে বাজানো হবে। এই গান তৈরি করেছেন গ্র্যামি পুরস্কার বিজয়ী রক ব্যান্ড কিংস অফ লিওন। ইন্সপিরেশন-৪, চার সদস্যের দলকে এই নামই দেওয়া হয়েছে। তাঁরা একটি বিবৃতিতে বলেছেন যে, ব্যান্ডের নতুন অ্যালবাম থেকে “টাইম ইন ডিসগাইজ” গানটি বাজানো হবে। এর আগে এই গান কখনও প্রকাশিত না হওয়া একে এনএফটি করে রাখা হয়েছে।

আরও পড়ুন- Unity 23: ভার্জিন গ্যালাকটিক সংস্থার অভিযানে বাধা, পিছিয়ে গেল ‘স্পেস মিশন’

Latest News Updates

Follow us on

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla