এ এক অন্য ‘দাদার কীর্তি’

করোনার প্রকোপে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ, তখন ওই যুবকদের মিলিত প্রয়াস ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’ শুরু করেছিল বিনামূল্য়ে অনলাইন টিউশন।

  • Publish Date - 7:56 pm, Thu, 13 May 21


তাপস, তরুণ মজুমদারের ‘দাদার কীর্তি’ দেখেছেন কি না জানা নেই। তিনি হাওড়ার আমতা ব্লকের উদং-এ একদল উদ্যোগী যুবককে সঙ্গে নিয়ে পরিচালনা করেন একটা বুক-ব্যাঙ্ক। করোনার প্রকোপে যখন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ, তখন ওই যুবকদের মিলিত প্রয়াস ‘স্বপ্ন দেখার উজান গাঙ’ শুরু করেছিল বিনামূল্য়ে অনলাইন টিউশন। আর তারপর মহামারি যখন তার প্রকোপ বাড়াল, তখন শুরু হল সচেতনতা প্রসার আর মানুষের পাশে দাঁড়ানোর প্রয়াস।
কোন হাসপাতালে আছে বেড, কোথায় অ্যাম্বুলেন্স, প্রয়োজনে অক্সিজেন নিয়ে পাশে দাঁড়াচ্ছেন তাঁদের। করোনায় মৃত শবদেহ অন্তিম সংস্কার করতেও স্থানীয় মানুষ পাশে পাচ্ছেন ওদের। ওঁরা চালু করেছেন ২৪ ঘণ্টার একটা হেল্প-লাইন পরিষেবা। একটা মূল্যবোধকে ছড়িয়ে দিচ্ছেন গ্রামীণ হাওড়ার উদং-এর এই দাদারা। নদীর পলির ‘উত্থিত অঙ্গ’ তার থেকেই নামকরণ হয়েছে উদং। আর এই দাদারা দেখাচ্ছেন একটা উত্থিত মূল্যবোধ কীভাবে ছড়িয়ে দিয়ে ভাল ভাবে বেঁচে থাকতে হয়।