Mystery Fever: অজানা জ্বরে কাবু বাংলা, একের পর এক চিঠি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে

Mystery Fever: করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে আশঙ্কা একটা রয়েছে। তারই মধ্যে নতুন বিপদ হাজির অজানা জ্বরের নাম নিয়ে।

Mystery Fever: অজানা জ্বরে কাবু বাংলা, একের পর এক চিঠি কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে
উত্তর থেকে দক্ষিণ, জ্বরে কাঁপছে বাংলা। ফাইল চিত্র।

দার্জিলিং: এবার শিশুদের অজানা জ্বর (Mystery Fever) নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে চিঠি লিখলেন বিজেপি সাংসদ রাজু বিস্তা (MP Raju Bista)। বৃহস্পতিবারই দার্জিলিংয়ের এই সাংসদ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী মনসুখ মাণ্ডব্যকে চিঠি লেখেন। সেখানে বেশ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবরের লিঙ্ক পাঠিয়ে জানান, এই মুহূর্তে দার্জিলিংয়ের পার্বত্য, তরাই ও ডুয়ার্সে কী ভয়াবহ চেহারা নিয়েছে অজানা জ্বর।

রাজু বিস্তা কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাছে অভিযোগ জানান, ক্রমেই ভয়াবহ হয়ে উঠছে উত্তরবঙ্গের শিশুদের স্বাস্থ্য পরিস্থিতি। যে ভাবে জ্বরের প্রাদুর্ভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে, তাতে মানুষ ভয় পাচ্ছেন। তাঁরা চিন্তা করছেন, এই জ্বর অন্য কোনও রোগের ইঙ্গিত নয়তো। মনসুখ মাণ্ডব্যের কাছে দার্জিলিংয়ের সাংসদ মেডিক্যাল টিমের জন্য আবেদন করেন। গোটা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কেন্দ্র সেই টিম পাঠাক বলেই আর্জি রাজু বিস্তার।

করোনার তৃতীয় ঢেউ নিয়ে আশঙ্কা একটা রয়েছে। তারই মধ্যে নতুন বিপদ হাজির অজানা জ্বরের নাম নিয়ে। কলকাতা হোক প্রত্যন্ত জেলা, বাড়িতে বাচ্চা মানেই ভয়ের আবহ তৈরি হয়েছে রাজ্যজুড়ে। শ্বাসকষ্ট, প্রবল জ্বর, গায়ে ব্যথা নিয়ে শ’য়ে শ’য়ে শিশু ভর্তি হচ্ছে হাসপাতালগুলিতে। চিকিৎসকরা বলছেন, বাচ্চাদের জ্বর হতেই পারে। মরসুম বদলের সময় বিশেষ করে এই জ্বরের প্রকোপ দেখা যায়। তবে বিশেষ কয়েকটি জিনিস মা-বাবাকে খেয়াল রাখতে হবে।

শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ প্রভাসপ্রসূন গিরির কথায়, “যদি বাচ্চার বয়স এক বছরের কম হয় তা হলে এই সময় জ্বরে একটু জটিলতা হতে পারে। দেখতে হবে বাচ্চা ঠিকমতো খাওয়া দাওয়া করছে কি না। জ্বর যখন নেমে যাচ্ছে বাচ্চার অ্যাকটিভি কী। বাচ্চা নেতিয়ে পড়ছে কি না, বাচ্চার প্রস্রাব কী রকম হচ্ছে, বাচ্চার কোনও শ্বাসকষ্ট হচ্ছে কি না। যদি দেখা যায় জ্বর নেমে গেলেও বাচ্চা নিস্তেজ হয়ে পড়ছে, নেতিয়ে পড়ছে, অ্যাকটিভিটিজ ঠিক নেই তা হলে অবশ্যই তা উদ্বেগের। জ্বর হলেই চিকিৎসকের পরামর্শ নেবেন। নিজে চিকিৎসা করবেন না। জ্বর নামলেও এই উপসর্গগুলির মধ্যে যদি কোনও একটি দেখতে পান তা হলেই হাসপাতালে ভর্তি করুন।”

এই অজানা জ্বর ও শিশু মৃত্যু নিয়ে বৃহস্পতিবারই এসএসকেএম হাসপাতালে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “সকালেই আমি খোঁজ করেছি। ওটা লেখা হয়েছে অন্য ভাবে।” যেহেতু নির্বাচনী বিধি চলছে তাই এর বেশি মুখ্যমন্ত্রী বলতে রাজি হননি। পাশেই ছিলেন স্বাস্থ্য দফতরের প্রধান সচিব নারায়ণ স্বরূপ নিগম। তিনি জানান, অজানা জ্বর নয়, বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন এই মরসুমে এরকম জ্বর হয়। ইনফ্লুয়েঞ্জা, কিছু আরএস (Respiratory syncytial) ভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। জ্বর নিয়ে রাজ্য সরকারের সবরকম পরিকাঠামোও তৈরি।

যদিও বৃহস্পতিবারই রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীও কেন্দ্রের স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে একটি চিঠি লেখেন। যেখানে শুভেন্দু অভিযোগ তোলেন, রাজ্য সরকার একেবারেই এই জ্বরকে গুরুত্ব দিচ্ছে না। বরং ভবানীপুরের উপনির্বাচন নিয়ে তারা অনেক বেশি ব্যস্ত।

আরও পড়ুন: ‘বহু বাচ্চার মধ্যে করোনার উপসর্গ, অথচ কোভিড টেস্ট হয়নি’, পুরুলিয়া হাসপাতাল ঘুরে বিস্ফোরক শুভেন্দু

Read Full Article

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla