‘ভারতে একটাই সিন্ডিকেট চলে, সেটা হল মোদী-শাহ সিন্ডিকেট’, শিলিগুড়িতে আক্রমণ শানালেন মমতা

ভোট-রবিতে তড়তড়িয়ে পারদ চড়ল বাংলায় (West Bengal Assembly Election 2021)। বিশ্লেষকদের কথায়, আজকের দিনেই আনুষ্ঠানিক ভাবে মোদী-মমতা (Mamata Banerjee) শুরু করলেন নির্বাচনী প্রচার।

'ভারতে একটাই সিন্ডিকেট চলে, সেটা হল মোদী-শাহ সিন্ডিকেট', শিলিগুড়িতে আক্রমণ শানালেন মমতা
নিজস্ব চিত্র


শিলিগুড়ি: এক দিকে যখন ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডে মোদী। তখন অন্যদিকে, জ্বালানি পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে শিলিগুড়িতে (Siliguri) মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ভোট-রবিতে তড়তড়িয়ে পারদ চড়ল বাংলায় (West Bengal Assembly Election 2021)। বিশ্লেষকদের কথায়, আজকের দিনেই আনুষ্ঠানিক ভাবে মোদী-মমতা শুরু করলেন নির্বাচনী প্রচার। মোদীকে বিঁধে মমতা বললেন, “লজ্জা, ঘৃণা, ভয়- তিন থাকতে নয়…’


Mamata at Siliguri from Cylinder Rally: বাংলা বিনা পয়সা চাল দেয় আর ফোটাতে হয় ৯০০ টাকায়

রাজনৈতিক কারণে বাংলায় এসেছেন, আসতেই পারেন। কিন্তু তার আগে জবাব দিন, কেন এলপিজি গ্যাসের দাম ৯০০ টাকা মতো হয়েছে? জবাব দিন কেন গ্যাসের দাম পেট্রোলের দাম (Fuel Price Hike) বাড়ছে? বাংলা সরকার বিনা পয়সায় চাল দেয়, আর ফোটাতে গেলে ৯০০ টাকা। ৯০০ টাকা গ্যাস কিনে ফোটাতে হয়। নরেন্দ্র মোদী আপনার দাম কত টাকা? বাংলায় পরিবর্তন হবে না। বাংলায় তৃণমূল কংগ্রেস থাকবে। পরিবর্তন দিল্লিতে হবে।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally:  বাংলায় মেয়েরা ভোট চারটেতেও একা ঘোরে, বিহার, উত্তরপ্রদেশে কী হয়?

আগামী দিনেই তো পাঁচটা স্টেটে ইলেকশন আছে। পাঁচটায় পাঁচটা ছক্কা খাবেন। অসমে হারবেন, বাংলায় হারবেন। রান্নাঘরের গ্যাসের দাম বাড়িয়ে দিয়ে আবার মহিলাদের সম্মান নিয়ে কথা বলেন। আমার মা-বোনেরা রাত দশটায় রাস্তায় ঘোরে।উত্তরপ্রদেশ, মধ্যপ্রদেশে, বিহার, গুজরাটে বিকাল তিনটেতেও মেয়েরা রাস্তায় বেরোতে পারে না। হাথরসে এক দিনে তিনটে রেপ হলে, তাঁর বাবা প্রতিবাদ করতে গেলেন, তাঁকে মেরে দিল আপনার লোকেরা। লজ্জা, ঘৃণা, ভয়- তিন থাকতে নয়।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally: কোভিড ইঞ্জেকশনেও মোদীর ছবি!

সব কিছু বেঁচে দিচ্ছেন। বাকি কী আছে? শুধু ভারতের নামটা বদলে দিতে চান, আপনার নামে? লজ্জা লাগে, সর্দার বল্লভ ভাই প্যাটেলের নামে যে স্টেডিয়াম ছিল, তা আপনার নামে হয়ে গেল। কোভিড ইঞ্জেকশনের মধ্যেও মোদীর মুখ লাগিয়ে দিয়েছে। তার মানে উনি হচ্ছেন কোভিড কোভিড, যাবেন না সামনে। গেলেই কোভিড খেয়ে নেবে, তাড়া করবে।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally:  দেশে একটাই সিন্ডিকেট চলে, নরেন্দ্র মোদী, অমিত শাহ

একটা গরিব লোক তোলাবাজি করলে ৫টা ১০ টাকা,৫০০ টাকা। আর বাংলায় এসে এসে বারবার বলে তোলাবাজি। সবচেয়ে বড় তোলাবাজি তো আপনি। সেইল বিক্রি কত? রেল বিক্রি করলে কত তোলাবাজি হয়? এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রি করলে কত তোলাবাজি হয়? উজালা গ্যাস! ক্যাহা গ্যায়া উজালা? উজালাতে আপনার লোক সব খেয়ে গেছে। সিন্ডিকেট! ইন্ডিয়া নোজ ওনলি ওয়ান সিন্ডিকেট। দ্যাট ইজ নরেন্দ্র মোদী অ্যান্ড অমিত শাহ।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally:  মোদী বাড়ছে, দেখো আমি বাড়ছি মাম্মি

বলছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ৩৬৫ ধারা করে দাও। আমি বলছি, করে একবার দেখাও না। তারপর বুঝতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মেটেরিয়ালটা কী! বাংলাকে সোনার বাংলা করবে বলছে। ভারতকে সোনার করতে পেরেছে? সব কিছুর দাম বাড়ছে, মোদী বেড়ে যাচ্ছে। মোদী বলছে, মাম্মি আমি বাড়ছি। শুনে রাখুন রান্নাঘরে আগুন লাগালে মা বোনেরা ছেড়ে কথা বলবে না।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally:  ওয়ান টু ওয়ান খেলো মোদী

প্রধানমন্ত্রী চেয়ারটাকে তো সম্মান করুন। এত মিথ্যা কথা বলেন। একটা প্রধানমন্ত্রীর চেয়ারে থেকে মিথ্যা কথা বলে না। টুকে আনা বক্তৃতা দেখে দেখে বলে মোদী। আমি বলছি খেলা হবে। ডেট টাইম তুমি ঠিক করো। জনগণ থাকবে সামনে। ওয়ান টু ওয়ান খেলো। তুমি কত খেলতে পার আর আমি কত খেলতে পারি, দেখে নেব। খেলা হবে, দেখা হবে।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally: নির্বাচনের আগে উজ্জ্বলা, আর নির্বাচনের পরে জুমলা

নির্বাচনের আগে উজ্জ্বলা, আর নির্বাচনের পরে জুমলা। সারা দেশের মানুষকে বিনামূল্যে গ্যাস দিতে হবে। শুধু মিথ্যে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বাংলাকে বলে যাও, বিনা পয়সায় গ্যাস কবে দেবেন আপনি? প্রধানমন্ত্রীর মিথ্যে কথা মানুষ শুনবে না। আগের বার নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, ১৫ লক্ষ টাকা করে দেওয়া হবে, দিয়েছিলেন? দেননি। এ বারেও বলবেন, কিন্তু আপনারা ভোটটা উল্টে দেবেন। তৃণমূলকে দেবেন।

Mamata at Siliguri from Cylinder Rally:  এটা অস্বিত্ব রক্ষা করার লড়াই
মনে রাখবেন, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভেঙে, বীরসা মুণ্ডার মূর্তি ভেঙে, স্বামী বিবেকানন্দকে ঠাকুর পদবী দিয়ে বাংলার ঐতিহ্যকে জয় করা যায় না। আমরা দাঙ্গার রাজনীতি করি না। রোজ রোজ তোমার মিথ্যা কথা মানুষ নেবে না। যদি ভোট টাকা দিয়ে কিনে নিতে চায়, তাহলে উল্টো দেবেন। মানে বুঝতে পারছেন তো, তৃণমূলকে দেবেন। বিজেপিকে চাই না। এটা হচ্ছে অস্বস্তি রক্ষা করার লড়াই। এ বার যদি অস্তিত্ব রক্ষা করতে না পারলে বাংলা ভাগ করবেন মোদী।