Purulia : পিস্তল উঁচিয়ে ছাত্রদের হুমকি কিশোরের, জেলা সভাধিপতি বললেন, ‘কমবয়সীদের প্রবণতা’

Purulia : ঘটনার প্রতিবাদে আজ ৩২ নম্বর জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ দেখায় কাঁটাডি স্কুলের পড়ুয়ারা। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Purulia : পিস্তল উঁচিয়ে ছাত্রদের হুমকি কিশোরের, জেলা সভাধিপতি বললেন, 'কমবয়সীদের প্রবণতা'
ভাইরাল ভিডিয়োয় এক কিশোরের হাতে পিস্তল দেখা গিয়েছে
TV9 Bangla Digital

| Edited By: Sanjoy Paikar

Aug 05, 2022 | 10:40 PM

পুরুলিয়া : স্কুলে ঢুকে এলোপাথাড়ি গুলি চালানো। বন্দুক নিয়ে স্কুলে ঢোকা। আমেরিকায় এরকম ঘটনা ঘটতে দেখা যায়। কিন্তু, বাংলায় এই দৃশ্যের কথা শোনা যায় না। সেখানে স্কুলের ছাত্রদের পিস্তল উঁচিয়ে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ এক কিশোরের বিরুদ্ধে। এমন এক ভিডিয়ো ভাইরাল হয়েছে। তবে ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি TV9 বাংলা। ঘটনাটি পুরুলিয়ার আরশা থানার কাঁটাডিতে। ঘটনায় যুক্ত থাকার অভিযোগে পুলিশ গ্রেফতার করেছে এক নাবালককে। পরে ধৃতের এক ভাইকেও গ্রেফতার করা হয়। আজ তাদের পুরুলিয়া জুভেনাইল আদালতে তোলা হয়। ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে আরও তিনজনকে। ঘটনার প্রতিবাদে আজ ৩২ নম্বর জাতীয় সড়কে বিক্ষোভ দেখায় কাঁটাডি স্কুলের পড়ুয়ারা।

ওই স্কুলের পড়ুয়ারা জানিয়েছে, গতকাল ঘটনাটি ঘটে। ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে দুই ছাত্রের মধ্যে ঝামেলা বাধে। অভিযোগ, ঝামেলার পর এক ছাত্র তার কয়েক জন বন্ধুকে খবর দেয়। এরপরই কয়েকজন স্কুল চত্বরে চলে আসে। অভিযোগ, এক কিশোর পিস্তল উঁচিয়ে গুলি করে দেওয়ার হুমকি দেয়। সে দু’রাউন্ড গুলিও চালায় বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় তদন্তে নামে আরশা থানার পুলিশ। পিঠাতি গ্রাম থেকে গ্রেফতার করা হয় দুই কিশোরকে। একজনের কাছ থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয়। এই ঘটনায় আরও কয়েক জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে খবর।

ঘটনার পর থেকেই আতঙ্কে রয়েছেন কাঁটাডি হাই স্কুলের পড়ুয়া ও শিক্ষক শিক্ষিকারা। স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সন্তোষ কুমার মাহাতো বলেন, বাইরে থেকে কেউ এসে পিস্তল দেখিয়েছে বলে একটি ভিডিয়ো দেখেছেন তিনি। তবে ঘটনাটি স্কুলের ভেতরে ঘটেনি। তবু এনিয়ে উদ্বিগ্ন তাঁরা। স্টাফ কাউন্সিলের বিশেষ মিটিং করে এরপর কী করা হবে তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

তবে বিষয়টিকে হালকা ভাবেই দেখছেন পুরুলিয়ার জেলা সভাধিপতি সুজয় বন্দ্যোপাধ্যায়। কাঁটাডি হাইস্কুলে গিয়ে এনিয়ে বিস্তৃত ভাবে জানবেন বলে জানান। একইসঙ্গে তাঁর বক্তব্য, “টিন এজ” বয়সীদের এরকম করার প্রবণতা থাকে। পিস্তলটি সত্যি নাকি খেলনা তা দেখা দরকার। একই সঙ্গে ছাত্রদের আরও বেশি সংযত হওয়ার জন্য পাঠ দিতে শিক্ষকদের অনুরোধ করেন তিনি।

অভিযুক্ত কিশোরের পরিবারের তরফে দাবি করা হয়েছে, পিস্তলটি আসল নয়। অভিযুক্তদের পরিবার অভিযোগ করে, তাদের পরিবারের একটি মেয়েকে উত্ত্যক্ত করছিল স্কুলের ছেলেরা। তারই প্রতিবাদ করেছিল। এই অভিযোগের ভিত্তিতে স্কুলের তিন ছাত্রকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এই খবরটিও পড়ুন

পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার এস সেলভামুরুগান জানান, দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দু’জনেই নাবালক। ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla