সিবিআই নাকি আজ রেড করত ভাইপোর বাড়িতে: বিস্ফোরক সায়ন্তন

সায়ন্তনের দাবি, "মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে এত টাকা উদ্ধার প্রমাণ করে, কোনও বড় ঘটনা ঘটছিল। এটা তার থেকে বাঁচার চেষ্টা।"

সিবিআই নাকি আজ রেড করত ভাইপোর বাড়িতে: বিস্ফোরক সায়ন্তন
নিজস্ব চিত্র

শিলিগুড়ি: “সিবিআই (CBI) ও আয়কর (Income Tax Department) নাকি আজ ভাইপোর বাড়িতে রেড করত। তাই টাকা পুড়ছে।” বিস্ফোরক মন্তব্য বিজেপি রাজ্য সম্পাদক সায়ন্তন বসুর (Sayantan Basu)। এ দিন সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেছেন, “আমি জানি না। তবে এমন খবর যে সিবিআই নাকি আজ ভাইপোর বাড়িতে রেড করত আয়কর বিভাগকে নিয়ে। তার জন্য নাকি টাকা এভাবে পুড়িয়ে ফেলে দেওয়া হয়েছে। এরকম রেডের খবর যত আসবে, তৃণমূল নেতাদের বাড়িতে তত টাকা পোড়ার খবর পাওয়া যাবে। পোড়া টাকা পাওয়া যাবে, এরপর দেখবেন আসল টাকাও পাওয়া যাবে।”

তিনি আরও বলেছেন, “মুখ্যমন্ত্রীর বাড়ির কাছে এত টাকা উদ্ধার প্রমাণ করে, কোনও বড় ঘটনা ঘটছিল। এটা তার থেকে বাঁচার চেষ্টা। গতবার কলকাতা পুলিস কমিশনারের বাড়িতে সিবিআই যাচ্ছিল, তখন মুখ্যমন্ত্রী ধরনায় বসেছিলেন। আমার মনে হচ্ছে, ওরকম কোনও ঘটনা ঘটতে যাচ্ছিল। এটা একপ্রকার বাঁচার চেষ্টা।”

উল্লেখ্য, রবিবার কালীঘাটের মুখার্জি ঘাটে রাস্তার ওপর সারি সারি ভর্তি বস্তা টাকা পুড়তে দেখা যায়। স্থানীয়রা জানান, রবিবার দুপুরের রাস্তার ধারে একটি বস্তা থেকে ধোঁয়া বেরোতে দেখা যায়। কাছে গিয়ে দেখা যায়, টাকা পুড়ছে। ৫০, ১০০, ৫০০ টাকার নোট! হঠাৎ কেন টাকা পুড়ছে? উত্তর খোঁজার চেষ্টাই করেননি স্থানীয়রা। অনেককে দেখা যায়, আগুন হাত পা দিয়ে চেপে নিভিয়ে নোট সংগ্রহ করতে। কিন্তু ততক্ষণে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় পুলিস।

আরও পড়ুন: বস্তা দিয়ে বেরোচ্ছে ধোঁয়া, পুড়ছে ৫০, ১০০, ৫০০-র নোট! ভোটের মুখে কালীঘাটে রহস্য

কালীঘাট থানার পুলিস এলাকা ফাঁকা করে টাকায় জল ঢালে। কেন টাকা পোড়ানো হল, কারা করল এই কাজ? প্রকাশ্যেই কীভাবে টাকা ভর্তি বস্তায় আগুন ধরান হল? উঠে আসছে একাধিক প্রশ্ন। খোদ কলকাতার বুকে এ ঘটনা আগে কবে ঘটেছে, তা মনে করতে পারছেন না পুলিস কর্তারাই। এই নিয়ে চাঞ্চল্যকর মন্তব্য করে সাসপেন্স আরও বাড়িয়ে দিলেন সায়ন্তন।

আরও পড়ুন: বাংলায় আইনের শাসন নেই, সুপ্রিম কোর্টে মামলা ঠুকল বিজেপি