বছরের প্রথম দিন বাড়ি থেকে বান্ধবীকে নিয়ে বেরিয়েছিলেন, ফিরল যুবকের রক্তাক্ত নিথর দেহ!

তরুণীর চিত্কারেই স্থানীয়রা ছুটে এসে হর্ষিতকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

বছরের প্রথম দিন বাড়ি থেকে বান্ধবীকে নিয়ে বেরিয়েছিলেন, ফিরল যুবকের রক্তাক্ত নিথর দেহ!
হর্ষিত আগরওয়াল

শিলিগুড়ি: বছরের প্রথম দিন বান্ধবীকে নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে রহস্যজনকভাবে মৃত্যু যুবকের। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য গজলডোবার আমবাড়ি এলাকায়। মৃত যুবকের নাম হর্ষিত আগরওয়াল (২৯)।

পরিবারের দাবি, শুক্রবার বিকালে হর্ষিত তাঁর বান্ধবীকে নিয়ে  বেনিয়াপাড়া এলাকায় ঘুরতে গিয়েছিলেন। তারপরই খবর আসে হর্ষিতকে কেউ মারধর করেছে। হাসপাতালে গিয়ে পরিবারের সদস্যরা হর্ষিতকে মৃত অবস্থায় দেখতে পান।

হর্ষিতের বান্ধবীর বয়ান অনুযায়ী, তাঁরা একসঙ্গে বসে গল্প করছিলেন। সেসময় কয়েকজন যুবক এসে তাঁদের কাছে টাকা চায়। হর্ষিত টাকা দিতে অস্বীকার করায় তাঁর ওপর হামলা চালায় তারা। মাটিতে ফেলে তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। হর্ষিত মাটিতে পড়ে অচৈতন্য হয়ে পড়লে তারা পালিয়ে যায় বলে দাবি তরুণীর। তাঁর চিত্কারেই স্থানীয়রা ছুটে এসে হর্ষিতকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করেন। হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিত্সকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

পুলিস আপাতত হর্ষিতের বান্ধবীর বয়ান খতিয়ে দেখছে। তাঁর কথায় কোনও অসঙ্গতি রয়েছে কিনা, খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ওই যুবকরা কী কেবল টাকার জন্যই হর্ষিতের ওপর হামলা চালাল? হর্ষিতের কাছে সর্বসাকুল্যে কয়েকশো টাকা ছিল, তা নিতেই কি হামলা? নাকি এর পিছনে অন্য কোনও কারণ রয়েছে. খতিয়ে দেখছে পুলিস। এর পিছনে ত্রিকোণ প্রেমের কোনও সূত্র লুকিয়ে আছে কিনা, তাও খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। হর্ষিতের পরিবার লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।

আরও পড়ুন: ফ্ল্যাট বিক্রির টাকা নিয়ে বচসা, গড়ফায় বাবাকে খুনের অভিযোগ ছেলের বিরুদ্ধে

বছরের প্রথম দিন তরতাজা যে ছেলেটা বান্ধবীকে নিয়ে বাড়ি থেকে বেরল, তাঁর রক্তাক্ত দেহটা চোখের সামনে বারবার ভেসে উঠছে শিলিগুড়ির  (Siliguri) গঙ্গানগর এলাকার বাসিন্দাদের। বারবার জ্ঞান হারাচ্ছেন হর্ষিতের মা, পরিবারের সদস্যরা বাকরুদ্ধ।