Sensex: ৭ মাসের রেকর্ড ধস সেনসেক্সে, করোনা কাঁটায় ফের বিঁধছে দালাল স্ট্রিট?

Share Market : ইউরোপ এবং অন্যান্য কিছু দেশে করোনা ভাইরাসের ফের নতুন করে প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ায় তার প্রভাব গোটা বিশ্বের শেয়ার বাজারে পড়তে শুরু করেছে। এবার তারই প্রতিফলন দেখা গেল দালাল স্ট্রিটে।

Sensex: ৭ মাসের রেকর্ড ধস সেনসেক্সে, করোনা কাঁটায় ফের বিঁধছে দালাল স্ট্রিট?
শেয়ার বাজারে বড় ধস (ফাইল ছবি)

মুম্বই : হইচই পড়ে গিয়েছে দালাল স্ট্রিটে। সেনসেক্সে বড় পতন হয়েছে। একধাক্কায় ১১০০ পয়েন্টের বেশি পড়েছে সেনসেক্সের সূচক। ধস নেমেছে নিফটির সূচকেও। বিগত সাত মাসে এটাই দালাল স্ট্রিটে রেকর্ড পতন। এপ্রিলের ১২ তারিখের পর থেকে এক ধাক্কায় এতটা পতন দেখেনি শেয়ার বাজার। সেনসেক্সের সূচক নেমে এসেছে ৫৮ হাজার ৪৬৫ পয়েন্টে। আর নিফটির সূচক কমে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ৪১৬ পয়েন্টে।

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ার দর অনেকটা কমেছে। গতকাল বাজার বন্ধ হওয়ার সময় রিলায়েন্সের শেয়ার দর ছিল যা ছিল তার থেকে ৪.৩৫ শতাংশ কমেছে। প্রায় ১০৭ টা কমেছে রিলায়েন্সের শেয়ারের দাম। আর এই ধাক্কার প্রভাব পড়েছে শেয়ার বাজারেও। এর পাশাপাশি শেয়ার বাজার নিয়ে গোটা বিশ্বের সাম্প্রতিক যে মনোভাব রয়েছে, তা ভারতীয় বাজারের উপর ধাক্কা দিয়েছে। বিশেষ করে ইউরোপ এবং অন্যান্য কিছু দেশে করোনা ভাইরাসের ফের নতুন করে প্রাদুর্ভাব দেখা দেওয়ায় তার প্রভাব গোটা বিশ্বের শেয়ার বাজারে পড়তে শুরু করেছে। এবার তারই প্রতিফলন দেখা গেল দালাল স্ট্রিটে।

রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (RIL)-এর শেয়ার চার শতাংশের বেশি কমে গিয়েছে। গত সপ্তাহেই কোম্পানির তরফে বলা হয়েছিল যে তারা সৌদি আরামকোর সঙ্গে চুক্তির বিষয়ে বিবৃতি প্রকাশ করেছিল। ওই সৌদি সংস্থার তেল উৎপাদনকারীর বিভাগের সঙ্গে প্রস্তাবিত ১৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত পুনর্মূল্যায়ন করার কথা বলা হয়েছিল। আর তারপরেই শেয়ার দরে এই ধস নেমেছে।

আর শুধুমাত্র রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজই নয়, এর পাশাপাশি বাজাজ ফিনান্সের শেয়ার দরও ধাক্কা খেয়েছে। প্রায় ৫ শতাংশ কমেছে বাজাজ ফিন্য়ান্সের শেয়ার দর। পেটিএমের শেয়ারের দাম প্রায় ১৭ শতাংশ কমেছে। এর পাশাপাশি, টাইটান, মারুতি, স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া, এইচডিএফসি ব্যাঙ্কের বাজার দুর্বলতারও ভাল প্রভাব পড়েছে শেয়ার বাজারের উপরে। আর এই বিশাল অঙ্কের পতনের জেরে, শুধুমাত্র সংস্থাগুলিই নয়, বড় ধাক্কা খেয়েছেন বিনিয়োগকারীরাও। সব মিলিয়ে আনুমানিক ৫ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকারও বেশি অঙ্কের ক্ষতি হয়েছে বিনিয়োগকারীদের।

সামগ্রিকভাবে শেয়ার বাজার মুখ থুবড়ে পড়লেও, বেশ কয়েকটি সংস্থা লাভের মুখ দেখেছে। এর মধ্যে রয়েছে ভারতী এয়ারটেল। তাদের শেয়ার দর ৩.৯৭ শতাংশ বেড়েছে। এর পাশাপাশি এশিয়ান পেইন্টস, পাওয়ারগ্রিড, টিসিএসের মতো সংস্থাগুলির শেয়ার দর অনেকটা বেড়েছে।

আরও পড়ুন : Sovereign Gold Bond Scheme:আবার পাওয়া যাবে সস্তায় সোনা কেনার সুযোগ, ২৯ নভেম্বর থেকে খুলবে সভরেন গোল্ড বন্ড স্কিম

আরও পড়ুন: Petrol Price Today: ফের কমানো হবে পেট্রোল ডিজেলের দাম! চাহিদা কমায় কম হচ্ছে অপরিশোধিত তেলের দাম

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla