Tollywood: বয়স ভুলে যৌনতা উপভোগে সেক্স টয় ব্যবহার তো বেশ প্রশংসনীয়: শ্রীলেখা মিত্র

Tollywood: প্রসঙ্গত, অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে যে দু’টি সেক্স টয় ইডি বাজেয়াপ্ত করেছে, তা কে ব্যবহার করতেন, এখনও স্পষ্ট নয়। সেগুলি কোথা থেকে আনা হয়েছিল, কে কিনেছিলেন, দামই বা কত, তা এখনও জানা যায়নি।

Tollywood: বয়স ভুলে যৌনতা উপভোগে সেক্স টয় ব্যবহার তো বেশ প্রশংসনীয়: শ্রীলেখা মিত্র
বৃহস্পতিবার সেক্স টয় নিয়ে একটি ফেসবুক পোস্ট করেছেন টলিউডে ‘ঠোঁটকাটা’ বলে পরিচিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র।
TV9 Bangla Digital

| Edited By: বিহঙ্গী বিশ্বাস

Jul 28, 2022 | 9:51 PM

 

অপসারিত মন্ত্রীর ‘ঘনিষ্ঠ’ হওয়ার সৌজন্যে নাকতলা উদয়ন সংঘ-এর ‘একদা’ পুজোর মুখ থেকে ইতিমধ্যেই তিনি হয়ে উঠেছেন একপ্রকার ‘সেনসেশন’। বিলাসবহুল জীবন তাঁর। চলনে-বলনে, হাবভাবে ‘নায়িকা’র চেয়ে কোনও অংশে কম নন তিনি। তিনি অর্থাৎ অর্পিতা মুখোপাধ্যায়। এসএসসি নিয়োগ-দুর্নীতিতে সিনেমার চিত্রনাট্যকেও হার মানিয়েছে যে বাস্তব ঘটনাক্রম, গত কয়েকদিন ধরে সেই গোগ্রাসে গেলা রুদ্ধশ্বাস ইডি-অভিযানের অন্যতম ‘নায়িকা’ তিনি। বুধবার রাত্রে রাজ্যের অপসারিত মন্ত্রী তথা সাসপেন্ডেড তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ‘ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতার বেলঘরিয়ার আবাসনের আনাচে-কানাচে তল্লাশি চালিয়ে আরও ২৭ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা (গত সপ্তাহে হরিদেবপুরের অআবাসন থেকে বাজেয়াপ্ত হয়েছিল ২১ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা) ছাড়াও উদ্ধার হয় এক জোড়া সেক্স টয়। ঘটনাচক্রে বুধবারের পরদিন অর্থাৎ বৃহস্পতিবার সেক্স টয় নিয়ে একটি ফেসবুক পোস্ট করেছেন টলিউডে ‘ঠোঁটকাটা’ বলে পরিচিত অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র।

নিজের ফেসবুক পোস্টে TV9 বাংলায় সম্প্রচারিত একটি ভিডিয়ো প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট শেয়ার করেছেন শ্রীলেখা। লিখেছেন: ‘‘… পার্থবাবুদের একটু ইচ্ছে করতে পারে না! শোনো এজ নো বার, কাস্ট নো বার সেক্স বারবার।’’ যার বাংলা তর্জমা করতে দাঁড়ায়, ‘‘বয়স বাধা নয়, জাতিগত বিভেদও বাধা নয়, যৌন সম্পর্ক বারবার।’’ তাঁর ফেসবুক পোস্টে ‘পার্থবাবু’ বলে যাঁর নামোল্লেখ করেছেন শ্রীলেখা, তার কোনও পদবি লেখেননি তিনি। যদিও ইডি সূত্রে জানা গিয়েছে, মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ‘ঘনিষ্ঠ’ অর্পিতার বেলঘরিয়ার আবাসন থেকেই উদ্ধার হয়েছে দু’টি সেক্স টয়। যেহেতু তিনি অর্পিতার ফ্ল্য়াট থেকে বাজেয়াপ্ত হওয়া সেক্স টয়ের ভিডিয়ো প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট শেয়ার করে ফেসবুকে পোস্টটি করেছেন, তাই-ই তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয় TV9 বাংলার তরফে। ফোনের ও-পার থেকে শ্রীলেখার উত্তর, ‘‘আমার তো মনে হয় এই পুরো বিষয়টার মধ্যে এটাই একমাত্র ভাল জিনিস।’’ ‘এই পুরো বিষয়টা’ বলতে তিনি অর্পিতার বেলঘরিয়ার আবাসনে ইডি-র তল্লাশি অভিযানের প্রতি অঙ্গুলিনির্দেশ করেছেন বলেই অনুমান। সেই সঙ্গে শ্রীলেখার সংযোজন, ‘‘কী ধরনের সেক্স টয় উদ্ধার হয়েছে, তা তো আমার জানা নেই। তবে যিনিই ব্যবহার করেছেন, তিনি গতানুগতিক নিয়মে যৌন সম্পর্ক না করে তা যে বেশ উপভোগ করেছেন, সে প্রমাণই দিচ্ছে ওই খেলনাগুলি।’’ তিনি আরও যোগ করেন, ‘‘কামসূত্রের নিয়ম মেনে, সেক্সকে উপভোগ করে, বয়সের বাধা না-মেনে যদি কেউ ওই সেক্স টয় ব্যবহার করেন, তা তো রীতিমতো প্রশংসার।’’

প্রসঙ্গত, অর্পিতার বেলঘরিয়ার ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালিয়ে যে দু’টি সেক্স টয় ইডি বাজেয়াপ্ত করেছে, তা কে ব্যবহার করতেন, এখনও স্পষ্ট নয়। সেগুলি কোথা থেকে আনা হয়েছিল, কে কিনেছিলেন, দামই বা কত, তা এখনও জানা যায়নি। তবে সেক্স টয়, ২৭ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা, ১ কোটি টাকার এফডি, ৪ কোটি ৩১ লক্ষ টাকার সোনার বার-গয়না ও একটি হীরের আংটিও—যার গায়ে খোদাই করা রয়েছে ইংরেজির ‘পি’ অক্ষরটি।
গত শুক্রবারের আগে পর্যন্ত অর্পিতা মুখোপাধ্যায় নামটি বিশেষ পরিচিত ছিল না। হরিদেবপুরের ফ্ল্যাট থেকে ২১ কোটি ৯০ লক্ষ টাকা উদ্ধারের পরই সোশ্যাল মিডিয়ায় কার্যত ‘সেনসেশন’ হয়ে ওঠেন একদা অভিনেত্রী অর্পিতা। নাকতলা উদয়ন সঙ্ঘের পুজোর মুখ-হওয়া অর্পিতাকে দেখে কারও-কারও মনে পড়লেও, কয়েক মিনিটেই অনেকের ইনস্টাগ্রামে সবথেকে বেশি সার্চ করা নাম হয়ে ওঠে ‘অর্পিতা’। বেলঘরিয়ার দেওয়ানপাড়ার সাধারণ মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে অর্পিতার জীবনযাপন যে খুব একটা সাধারণ ছিল না, তা স্পষ্ট হয়ে যায় সবার কাছেই। এই মুহূর্তে তিনি রয়েছেন ইডি হেফাজতে। সেখানেই জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাঁকে।

 

 

এই খবরটিও পড়ুন

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla