COVID-19 Spread in Parliament: একসঙ্গে করোনা আক্রান্ত প্রায় ৯০০ সংসদ কর্মী, প্রশ্নের মুখে বাজেট অধিবেশন

COVID-19 Spread in Parliament: একসঙ্গে করোনা আক্রান্ত প্রায় ৯০০ সংসদ কর্মী, প্রশ্নের মুখে বাজেট অধিবেশন
সংসদে করোনার হানা। ফাইল চিত্র।

COVID-19 Spread in Parliament: আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে বাজেট অধিবেশন। তার আগেই করোনার হানা সংসদে।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Jan 24, 2022 | 11:47 AM

নয়া দিল্লি: আর কয়েকদিন পর থেকেই শুরু হচ্ছে বাজেট অধিবেশন (Budget 2022)। কিন্তু তারই আগে সংসদে হানা দিল করোনা (COVID-19)। সূত্রের খবর, সংসদের ৮৭৫ জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। রবিবার রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপ-রাষ্ট্রপতি এম বেঙ্কাইয়া নাইডু(M Venkaiah Naidu)-ও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

সংসদের সেক্রেটারিয়েটের তরফে গতকালই টুইট করে জানানো হয় যে, উপ-রাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নাইডু করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি বর্তমানে হায়দরাবাদে রয়েছেন। আপাতত এক সপ্তাহ তিনি একান্তবাসে থাকবেন। বিগত কয়েকদিনে তাঁর সংস্পর্শে যারা এসেছেন, তারা যেন করোনা পরীক্ষা করান।

সংসদে করোনার হানা:

এদিকে, সোমবার সকালেই জানানো হয়, সংসদের ৮৭৫ জন কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে। সুরক্ষাবিধি মানতেই সংসদ চত্বরে মোট ২৮৪৭ জন কর্মীর করোনা পরীক্ষা করানো হয়। তাতেই ৮৭৫ জনের রিপোর্ট পজেটিভ আসে।

সূত্রের খবর, সংসদে একসঙ্গে এতজন কর্মী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় বাজেট অধিবেশন নিয়ে বড় কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে। আজই লোকসভা ও রাজ্য়সভার অধিবেশন নিয়ে আলোচনা হবে। দুই কক্ষের অধিবেশন আলাদা সময়ে করা হবে কিনা, তা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

বাজেট অধিবেশনের সূচি:

চলতি মাসের শুরুতেই সংসদীয় বিষয়ক মন্ত্রকের তরফে নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানানো হয়, আগামী ৩১ জানুয়ারি থেকে কেন্দ্রীয় বাজেট অধিবেশন শুরু হচ্ছে। ওই দিন সকাল ১১টায় রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ উভয় কক্ষের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখবেন। ১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় বাজেট পেশ করা হবে। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন এই বাজেট পেশ করবেন। চলতি বছরের ১ এপ্রিল থেকে আগামী বছরের ৩১ মার্চ অবধি দেশের আর্থিক খরচের যাবতীয় খুটিনাটি এই বাজেটে তুলে ধরা হবে।

করোনা সংক্রমণের কারণে উপস্থিতিতে কাটছাঁট:

বাজেট অধিবেশনের কথা মাথায় রেখেই সম্প্রতি রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম বেঙ্কাইয়া নাইডু করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করেছিলেন এবং সংক্রমণ রুখতে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছিলেন। এরপরই রাজ্যসভার সেক্রেটারিয়েটের তরফে আধিকারিকদের উপস্থিতিতে কাটছাঁট করা হয়। বর্তমানে ৫০ শতাংশ কর্মীদের উপস্থিতির নিয়মই চালু করা হয়েছে এবং সচিব বা একজিকিউটিভ পদের নীচে থাকা সমস্ত কর্মীদের মাসের শেষ অবধি বাড়ি থেকেই কাজের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

বছরের শুরুতেও পড়েছিল সংক্রমণের কোপ:

সংবাদ সংস্থা এএনআই-র তথ্য অনুযায়ী, চলতি মাসের শুরুতেও সংসদে ৪০০-র বেশি কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন।জানা গিয়েছে, গত ৪ থেকে ৮ জানুয়ারি মধ্যে সংসদের মোট ১ হাজার ৪০৯ জন কর্মী, সচিবের করোনা পরীক্ষা করানো হয়। তার মধ্যে ৪০২ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। আক্রান্তদের নমুনা জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের জন্য়ও পাঠানো হয়েছিল বলেও জানা যায়।

আরও পড়ুন: Abhishek Banerjee In Goa: আজ গোয়ায় অভিষেক, ৩ দিনের সফরে নির্বাচনের স্ট্র্যাটেজি নির্ধারণ 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA