‘হয় বেড দিন, না হলে মেরে ফেলুন’, করোনা আক্রান্ত বাবার জন্য কাকুতি ছেলের

শুধু মহারাষ্ট্র নয় দেশে বাড়তি সংক্রমণের জন্য দেশের একাধিক রাজ্যে বেডের আকাল, বেড নেই বঙ্গেও।

  • TV9 Bangla
  • Published On - 7:28 AM, 15 Apr 2021
'হয় বেড দিন, না হলে মেরে ফেলুন', করোনা আক্রান্ত বাবার জন্য কাকুতি ছেলের
অ্যাম্বুলেন্সে বাবাকে নিয়ে অপেক্ষায় ছেলে

মহারাষ্ট্র: তেলঙ্গনা (Telangana) ও মহারাষ্ট্রের (Maharashtra) একের পর এক হাসপাতালে ঘুরে বেড পাননি। এই হাসপাতাল ওই ঘুরে স্রেফ শুনতে হয়েছে, ‘বেড নেই।’ অ্যাম্বুলেন্সে এ দিক ওদিক ছুটে বেড়িয়ে সাগর কিশোর নহরসেতিভের কাকুতি, “হয় বাবাকে বেড দিন না হলে ইনজেকশন দিয়ে মেরে দিন।” দেশজুড়ে একই অবস্থা। করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ের জেরে কোনও হাসপাতালে বেড নেই। মুম্বই থেকে ৮৫০ কিলোমিটার দূরে চন্দ্রপুরেরও একই হাল। সেখানে একাধিক হাসপাতাল বন্ধ।

এমতাবস্থায় করোনা আক্রান্ত বাবাকে নিয়ে রাস্তায় এসে দাঁড়িয়েছেন সাগর। এক সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে তিনি জানান, প্রথমে অরোর হাসপাতাল তারপর চন্দ্রপুর হাসপাতালে গিয়েছেন। কোথাও বেড না পেয়ে বেসরকারি হাসপাতালে গিয়েছেন। সেখানেও বেড না পেয়ে রাত দেড়টা নাগাদ তেলঙ্গানা গিয়েছেন। ভোট ৩টের সময় তেলঙ্গানা পৌঁছে একাধিক হাসপাতালে বেড পাননি। সকালে আবার ফিরে এসে অপেক্ষা করছেন। শুধু একটা বেডের জন্য।

তাঁর কাকুতি, এই অবস্থায় বাবাকে নিয়ে বাড়ি ফিরতে পারবেন না। তাই কিছু একটা ব্যবস্থা হোক। শুধু মহারাষ্ট্র নয় দেশে বাড়তি সংক্রমণের জন্য দেশের একাধিক রাজ্যে বেডের আকাল, বেড নেই বঙ্গেও। একাধিক রাজ্যে রোগীদের চেয়ারে বসিয়েই দেওয়া হচ্ছে অক্সিজেন। কোনও হাসপাতালে গড়াগড়ি খাচ্ছে মৃতদেহ। আকাল দেখা দিয়েছে অক্সিজেন ও ভেন্টিলেটরযুক্ত বেডের।

মহারাষ্ট্রের পরিস্থিতি বিচার করে আগেই সমস্যা মেটানোর জন্য সেনাবাহিনীর সাহায্য চেয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তিনি অক্সিজেন ও ওষুধের ঘাটতি সম্পর্কে বলেন, “আমরা মজুত থাকা অক্সিজেন ব্যবহার করছি। প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছে আমাদের অক্সিজেন লাগবে।”

আরও পড়ুন: ‘কমবে না কুম্ভ মেলার মেয়াদ’, সমালোচনাতেও অনড় প্রশাসন