মহারাষ্ট্র সরকার হিন্দু বিরোধী, তোপ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর

TV9 Bangla Digital

TV9 Bangla Digital | Edited By: Soumya Saha

Updated on: Sep 11, 2021 | 7:55 PM

Maharashtra : উৎসবের মরশুমে মহারাষ্ট্র সরকার কড়াকড়ি করে দিয়েছে। এটা ঠিক নয়, অন্যায়। এই সরকার হল হিন্দু বিরোধী সরকার। তোপ নারায়ণ রানের।

মহারাষ্ট্র সরকার হিন্দু বিরোধী, তোপ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর
উদ্ধব ঠাকরের সরকারকে হিন্দু বিরোধী বলে আক্রমণ নারায়ণ রানের

মুম্বই : উদ্ধব ঠাকরের মহারাষ্ট্র সরকার হিন্দু বিরোধী বলে আক্রমণ করলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নারায়ণ রানে। পুজোর মরশুম চলছে। মহারাষ্ট্রে গনেশ পুজো প্রতিবছরই সমারহের সঙ্গে পালিত হয়। বড় বড় মূর্তি। ভিড়। উৎসবের আমেজ। কিন্তু এবার করোনা সংক্রমণের আশঙ্কায় কড়াকড়ি করে দেওয়া হয়েছে। গনেশ পুজোয় ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে বাণিজ্য নগরীতে। আর এই নিয়েই এবার নারায়ণ রানের তোপের মুখে উদ্ধব ঠাকরের সরকার।

সংবাদ সংস্থা এএনআইকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মহাবিকাশ আগাড়ি জোট সরকারের উপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে বলেছেন, “উৎসবের মরশুমে মহারাষ্ট্র সরকার কড়াকড়ি করে দিয়েছে। এটা ঠিক নয়, অন্যায়। এই সরকার হল হিন্দু বিরোধী সরকার। শুধু হিন্দুদের উৎসবের সময়েই তাদের কড়াকড়ির কথা মনে পড়ে। হিন্দু ছাড়া অন্য কোনও ধর্মের উৎসবের সময় কোনও কড়াকড়ি নেই।”

আরও একধাপ এগিয়ে নারায়ণ রানে শিবসেনার উদ্দেশে বলেন, ” শিবসেনা শুধু মুখেই হিন্দুত্বের কথা বলে। আসলে যেদিন থেকে শিবসেনা বিজেপির থেকে আলাদা হয়ে গিয়েছে, সেদিন থেকে তাদের হিন্দুত্ব শেষ হয়ে গিয়েছে।”

প্রতিবছরই ধুমধাম করে গনেশ পুজো পালিত হয় মহারাষ্ট্রে। শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে গনেশ পুজো। এবার করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে গনেশ পুজোয় সশরীরে মণ্ডপ দর্শন নিষিদ্ধ করেছে মহারাষ্ট্র প্রশাসন। শুধু মুম্বই নয়, গোটা মহারাষ্ট্রেই এই নিয়ম কার্যকর করা হয়েছে।

মহারাষ্ট্রে গনেশ পুজো মানেই আলাদা মেজাজ। প্রায় গোটা মাস ধরেই বিশাল বিশাল প্রতিমা, পুজো, আলোকসজ্জা, খুশির আমেজে মেতে থাকেন মহারাষ্ট্রবাসী। কিন্তু এবার করোনা পরিস্থিতিতে সবকিছুতে ভাটা পড়েছে। বড় বড় প্রতিমা নেই। চার ফুটের বেশি উঁচু প্রতিমা করা যাবে না বলে আগেই কড়া নির্দেশ দিয়ে রেখেছিল প্রশাসন। এবার অনলাইনেই গনেশ দর্শন। প্রত্যেক মণ্ডপে অনলাইনে প্রতিমা দর্শনের ব্যবস্থা রাখতে বলা হয়েছিল। ১৪৪ ধারা জারি হওয়ায় ঘরবন্দী হয়েই কাটাতে হয়েছে গনেশ চতুর্থী।

প্রতিমা নিরাঞ্জনের সময়েও একাধিক কড়াকড়ি করা হয়েছে। স্পষ্ট করে বলে দেওয়া হয়েছে, প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় এমন কোনও শোভাযাত্রা করা যাবে না, যা সাধারণ মানুষকে আকর্ষণ করে। নিরঞ্জনের জন্য প্রত্যেক মণ্ডপ পিছু ১০ জনের থাকার অনুমতি দিয়েছে প্রশাসন। আর এত কড়াকড়ি নিয়েই এবার মহারাষ্ট্র সরকারকে একহাত নিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা নারায়ণ রানে।

উল্লেখ্য, করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের ধাক্কা সামাল দিয়ে উঠতে না উঠতেই চিন্তা বাড়াচ্ছে তৃতীয় ঢেউ। সবথেকে খারাপ পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে মহারাষ্ট্র এবং কেরল। মহারাষ্ট্রে ইতিমধ্যেই করোনার তৃতীয় ঢেউ ঢুকে পড়েছে বলে মনে করছেন অনেকে।

আরও পড়ুন : BJP Chief Minister: মাত্র ৬ মাসে চতুর্থ মুখ্যমন্ত্রীর ইস্তফা! বিজেপিতে হচ্ছেটা কী?

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla