Maharashtra Political Crisis : ‘ইস্তফাপত্র তৈরি রেখেছি, বিধায়করা না চাইলে সরে যাব,’ মহাসঙ্কটের মাঝেই জানালেন ঠাকরে

Maharashtra Political Crisis : 'ইস্তফাপত্র তৈরি রেখেছি, বিধায়করা না চাইলে সরে যাব,' মহাসঙ্কটের মাঝেই জানালেন ঠাকরে
ছবি: ফাইল চিত্র

Maharashtra Political Crisis : বুধবার ফেসবুক লাইভে এসে মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন যে, তিনি ইস্তফাপত্র তৈরি রেখেছেন। দলের কোনও এক বিধায়ক চাইলেই তিনি ইস্তফা দিতে প্রস্তুত রয়েছেন। এদিকে তিনি পুনরায় জোর দিয়ে বলেছেন যে, হিন্দুত্ববাদী শিবসেনার পরিচয়।

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Jun 22, 2022 | 10:55 PM

মুম্বই : গতকাল থেকেই একের পর এক ঘটনা ঘটছে মারাঠা রাজনীতিতে। মহা রাজনৈতিক সঙ্কটের মাঝেই বুধবার সকালে বারংবার এই প্রশ্ন উঠেছিল যে, পদত্য়াগ করতে পারেন উদ্ধব ঠাকরে। এদিন শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউতের বক্তব্যে জল্পনা আরও তুঙ্গে ওঠে। তিনি এদিন টুইটে বিধানসভা ভেঙে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। তিনি বলেছিলেন, ‘মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতি যেভাবে বদলাচ্ছে, তা বিধানসভা ভেঙে দেওয়ার পথেই এগোচ্ছে।’ যদিও বিধানসভা ভেঙে যাওয়ার সম্ভাবনার কথা বললেও লড়াই না ছাড়ার কথা বলেছিলেন তিনি। এবার এদিন সন্ধেয় কিছুটা এমনটাই সুর শোনা গেল মহারাষ্ট্রের মুখ্য়মন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের কণ্ঠে।

এদিন সন্ধেবেলায় ফেসবুক লাইভে জনগণ ও শিবসেনা বিধায়কদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন মহারাষ্ট্রের মুখ্য়মন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তিনি জানিয়েছেন যে তিনি মুখ্য়মন্ত্রী হিসেবে পদত্যাগের জন্য প্রস্তুত। পাশাপাশি দলের প্রধানের পদ ছেড়েও দেওয়ার কথাও জানিয়েছেন। রাজ্যবাসীর উদ্দেশে ভাষণে তিনি বলেছেন, ‘বিদ্রোহী বিধায়করা যদি আমাকে না চান, তাহলে আমি এখনি ইস্তফা দিতে প্রস্তুত। পদত্যাগপত্র তৈরি রেখেছি। বিধায়করা এসে আমাকে বলুক যে তাঁরা আমাকে চান না।’ তিনি এদিন শিবসেনার হিন্দুত্ব আদর্শের কথাও তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘হিন্দুত্বই শিবসেনার পরিচয় ও আদর্শ। হিন্দুত্ব আমাদের জীবন।’ তিনি এদিন আরও বলেছেন, ‘যদি কোনও একজন বিধায়কও মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে না দেখতে চান, আমি আমার সমস্ত কিছু নিয়ে বর্ষা বাংলো (মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন) থেকে মাতোশ্রীতে চলে যেতে তৈরি।’ তিনি অনেকটা বিদায়ের ভঙ্গিতেই সকল জনগণকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করে বলেছেন, ‘মুখ্যমন্ত্রীর পদ আসবে ও যাবে কিন্তু মানুষের ভালবাসাই হল আসল। এই গত ২ বছরে আমি যথেষ্ট সৌভাগ্যবান যে, আমি মানুষের থেকে অনেক ভালবাসা পেয়েছি।’

মহারাষ্ট্রের অগাড়ি সরকারের স্থায়িত্ব নিয়ে গতকাল থেকে সংশয় প্রকাশ করা হয়েছে। শিবসেনা বিধায়ক একনাথ শিন্ডে গতকাল একাধিক শিবসেনা বিধায়ক নিয়ে মোদী-শাহের রাজ্য গুজরাটের একটি হোটেলে গিয়ে উঠেছিল। সেখানে তাঁদের মান ভাঙানোর জন্য গতকাল দূত পাঠিয়েছিলেন উদ্ধব ঠাকরেও। তাতে চিঁড়ে কোনও অংশে গলেনি। উল্টে শিবসেনা মুখ্যমন্ত্রীর প্রভাব থেকে সরিয়ে আনতে আজ ভোর রাতেই অসমের একটি পাঁচতারা হোটেলে ওঠেন একনাথ শিন্ডে সহ বাকি বিদ্রোহী বিধায়করা। বিকেল অবধি শিন্ডে দাবি করেছেন তাঁর কাছে ৪৬ জন বিধায়কের সমর্থন রয়েছে। সেই সমর্থন আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছিলেন তিনি। এদিনই উদ্ধব ঠাকরে বিদ্রোহী নেতাদের বিকেল ৫ টার মধ্যে মুম্বইতে উপস্থিত থাকতে বলেন। নইলে তাঁদের বিরুদ্ধে দলবিরোধী পদক্ষেপ করা হতে পারে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন। এদিকে তাঁর এই হুইপ কোনও কাজের নয় বলে জানিয়েছিলেন তিনি। তিনি বিদ্রোহী শিবিরের দলনেতাও বেছে নেন এদিন। কিন্তু এবার কার্যত শিন্ডের ক্ষমতার কাছে উদ্ধব ঠাকরে পিছু হটলেন বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা। এদিন উদ্ধব বলেছেন যে, আমি চাই মুখ্যমন্ত্রী শিবসেনারই হোক। এই কথা বলে তিনি একনাথকে কিছুটা ব্যাকফুটে ঠেলেছেন। কারণ, একনাথের দাবি অনুযায়ী শিবসেনা যদি বিজেপির সঙ্গে হাত মেলায়, তাহলে শিবসেনা থেকে কেউ মুখ্যমন্ত্রী হবে, এমনটা প্রায় অসম্ভব।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA