Maharashtra Political Crisis : ‘ধীরে ধীরে সব জানতে পারবেন,’ শিন্ডের হিসেব উল্টে দিচ্ছেন রাউত!

Maharashtra Political Crisis : 'ধীরে ধীরে সব জানতে পারবেন,' শিন্ডের হিসেব উল্টে দিচ্ছেন রাউত!
ছবি সৌজন্য়ে : টুইটার

Maharashtra Political Crisis : এদিন সঞ্জয় রাউত জানিয়েছেন, ২০ জন বিদ্রোহী বিধায়কের সঙ্গে তাঁদের কথাবার্তা চলছে। তিনি এদিন বিদ্রোহীদেরও তোপ দেগে বলেছেন, 'যাঁরা ইডি-র ভয়ে দলকে ছেড়ে যান তাঁরা সত্যিকারের বালাসাহেব ভক্ত নন।'

TV9 Bangla Digital

| Edited By: অঙ্কিতা পাল

Jun 23, 2022 | 2:47 PM

মুম্বই : টালমাটাল মহারাষ্ট্রের রাজনৈতিক পরিস্থিতি। গত দু’দিন ধরেই রাজনৈতিক চর্চার কেন্দ্রে মারাঠা রাজনীতি। প্রতি মুহূর্তে সমীকরণ বদলাচ্ছে শিবসেনার ঘরে। শিন্ডের দাবির কাছে গতকাল একরকম ‘আত্মসমর্পণ’ করেছেন মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে। তিনি গতকাল সন্ধেয় ফেসবুক লাইভে এসে জানিয়ে দিয়েছেন যে, তাঁর দলের কোনও বিধায়ক চাইলে তিনি ইস্তফা দিতে প্রস্তুত। এমনকী গতকাল রাতে মুখ্যমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ‘বর্ষা’ ছেড়ে মাতোশ্রীতে পরিবার নিয়ে ওঠেন উদ্ধব ঠাকরে। এই পরিস্থিতিতে শিবসেনার অন্দরের অঙ্ক বদলাচ্ছে। গুয়াহাটিতে শিন্ডে শিবিরে এদিন আরও তিন নেতা যোগ দিয়েছেন বলে সূত্র মারফত জানা গিয়েছে। গতকালও গিয়েছিলেন একাধিক বিধায়ক। জানা গিয়েছে, এই মুহূর্তে ৪২ জন বিধায়ক রয়েছেন শিন্ডে শিবিরে। এর মধ্যে ৩৪ জনই শিবসেনার। ফলে শিবসেনার মোট বিধায়কের দুই-তৃতীয়াংশ বিধায়কই রয়েছে শিন্ডের। কার্যত শিবসেনার বর্তমানে অঘোষিত প্রধাম হলেন শিন্ডে। উদ্ধবের হাত থেকে শিবসেনা ছিনিয়ে নেওয়া কেবলমাত্র সময়ের অপেক্ষা।

এই পরিস্থিতিতেও শেষ পর্যন্ত লড়ে যাওয়ার মনোভাব দেখা গেল শিবসেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউতের মধ্যে। এই টালমাটাল পরিস্থিতিতেও সঞ্জয় রাউত দাবি করেছেন যে দল এখনও ঠিক রয়েছে এবং যাঁরা বিদ্রোহ করছেন তাঁরা বাল ঠাকরের সত্যিকারের ‘ভক্ত’ নয়। তিনি সংবাদ সংস্থা এএনআই-কে বৃহস্পতিবার সকালে জানিয়েছেন, ‘২০ জনের মতো আমাদের সঙ্গে আলোচনায় রয়েছে। তাঁরা মুম্বই এলেই জানতে পারবেন আপনারা। খুব শীঘ্রই জানা যাবে, কোন পরিস্থিতি ও চাপের মুখে বিধায়করা আমাদের ছেড়ে গিয়েছেন।’ যেখানে বিদ্রোহী শিবিরে শিবসেনার ৩৪ জন রয়েছেন সেখানে ২০ জনের সঙ্গে কথা হচ্ছে বলে দাবি রাউতের। তাহলে কি যেকোনও পাশার দান উল্টে যেতে পারে! তা দিন গড়াতেই জানা যাবে।

এদিকে তিনি ইডি নিয়ে বিজেপি ও বিদ্রোহী নেতাদের একযোগে বিঁধলেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, শিবসেনার বিধায়কদের উপর চাপ সৃষ্টির জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের অধীনে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের অপব্যবহার করা হচ্ছে। উল্লেখ্য, মহারাষ্ট্রের একাধিক নেতাকে এর আগে ইডি তলব করেছে। তার আগে থেকেই শিবসেনা বারবার বিজেপির বিরুদ্ধে কেন্দ্রীয় সংস্থাকে অপব্যবহারের অভিযোগ করেছে। এদিন রাউত বলেছেন, ‘যাঁরা ইডি-র ভয়ে দলকে ছেড়ে যান তাঁরা সত্যিকারের বালাসাহেব ভক্ত নন। আমরা বালাসাহেবের আসল ভক্ত। এমনকী আমাদেরও ইডি-র চাপ রয়েছে। কিন্তু আমরা উদ্ধব ঠাকরের পাশেই থাকব। অনাস্থা ভোট হলে সবাই দেখতে পারবেন কে পজ়িটিভ ও কারা নেগেটিভ।’

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 BANGLA