পরিষেবা দিতে দেরি হলে এবার জরিমানা দেবেন খোদ সরকারি অফিসার! জানেন কোন রাজ্যে?

TV বাংলা ডিজিটাল: কোনও সরকারি পরিষেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সমস্যা কী? সিংহভাগ মানুষের এই প্রশ্নের উত্তর হবে, ‘লাল ফিতের ফাঁস।’ সরকারি কাজ মানেই তা চলে ধীর গতিতে। আর কোনও পরিষেবার জন্য আবেদন জানানো হলে তো কথাই নেই। আবেদন করার কতদিনের মধ্যে তা মঞ্জুর হবে তা বলা দুষ্কর। তবে ত্রিপুরাবাসীকে আর বেশিদিন এই সমস্যার মুখোমুখি […]

পরিষেবা দিতে দেরি হলে এবার জরিমানা দেবেন খোদ সরকারি অফিসার! জানেন কোন রাজ্যে?
tripura new scheme
ঋদ্ধীশ দত্ত

|

Nov 27, 2020 | 8:34 AM

TV বাংলা ডিজিটাল: কোনও সরকারি পরিষেবা পাওয়ার ক্ষেত্রে সবচেয়ে বড় সমস্যা কী? সিংহভাগ মানুষের এই প্রশ্নের উত্তর হবে, ‘লাল ফিতের ফাঁস।’ সরকারি কাজ মানেই তা চলে ধীর গতিতে। আর কোনও পরিষেবার জন্য আবেদন জানানো হলে তো কথাই নেই। আবেদন করার কতদিনের মধ্যে তা মঞ্জুর হবে তা বলা দুষ্কর। তবে ত্রিপুরাবাসীকে আর বেশিদিন এই সমস্যার মুখোমুখি হতে হবে না।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের সরকার (Tripura Government) একটি নিয়ম (New Scheme) চালু করেছে, যেখানে আমজনতা কোনও সরকারি পরিষেবার (Public Services) জন্য আবেদন জানালে নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে তা পাইয়ে দিতে হবে ওই দফতরের সংশ্লিষ্ট দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিককে। অন্যথায় একবার সময়সীমা পেরিয়ে গেলে দিনপ্রতি তাঁকে ২০ টাকা জরিমানা দিতে হবে। পরিষেবা যত বিলম্বিত হবে, জরিমানার পরিমাণও বাড়বে লাফিয়ে লাফিয়ে।

আরও পড়ুন: তৈরি ঝাঁ চকচকে টার্মিনাল, নতুন বছরেই বড় উপহার পাচ্ছে ত্রিপুরাবাসী

আবেদনকারীকে পরিষেবা পাইয়ে দিতে যদি কোনও আধিকারিকের ১ মাস দেরি হয়, তবে তাঁকে ৫০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা গুণতে হবে। ‘ত্রিপুরা গ্যারান্টেড সার্ভিসেস টু সিটিজেন রুলস-২০২০’-এ এক অনুমোদনের মাধ্যমে এই নিয়ম চালু করেছে বিপ্লব দেবের মন্ত্রিসভা। আয়কর, জাত/সংরক্ষণ সার্টিফিকেট বা ম্যারেজ সার্টিফিকেটের মতো পরিষেবা যাতে চটজলদি মানুষ পায়, তার জন্যই এই ব্যবস্থা ত্রিপুরা সরকারের।

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla