Congress Viral Video: মনেই নেই মাইকের কথা, ‘বিজেপি আতঙ্কে’ বল্লভ ভাইয়ের ছবি আনিয়ে মুখ পুড়ল কংগ্রেসের

Congress Leader Controversial Conversation: গোটা আলাপচারিতার সময়ই দুজনের কেউই খেয়াল করেননি তাদের মাইকগুলি চালু ছিল। ফলে সমস্ত কথাবার্তাই শোনা গিয়েছে।

Congress Viral Video: মনেই নেই মাইকের কথা, 'বিজেপি আতঙ্কে' বল্লভ ভাইয়ের ছবি আনিয়ে মুখ পুড়ল কংগ্রেসের
বল্লভ ভাইয়ের ছবি না রাখা নিয়ে দুই নেতার আলাপচারিতাই ভাইরাল। ছবি: টুইটার

বেঙ্গালুরু: মঞ্চে বসে দুর্নীতিতে জড়ানো নেতার নামে কূটকচালি করতে গিয়ে গত মাসেই মুখ পুড়েছিল কর্নাটক কংগ্রেসের (Karnataka Congress)। তবে তাতেও যে কংগ্রেস নেতাদের শিক্ষা হয়নি, তা প্রমাণ হল আরও একবার। সম্প্রতিই ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে একটি ভিডিয়ো, যেখানে ইন্দিরা গান্ধী(Indira Gandhi)-র জন্মবার্ষিকী পালন অনুষ্ঠানে সর্দার বল্লভ ভাই পটেল(Sardar Vallabhai Patel)র ছবি না রাখা নিয়ে আলোচনা করছেন কংগ্রেস নেতা ডিকে শিবকুমার (Shivakumar) ও প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া (Siddaramaiah)। বল্লভভাইয়ের ছবি না থাকতে বিজেপি(BJP)-র সমালোচনার শিকার হতে হবে, এ কথাও তাদের বলতে শোনা যায়।

৩১ অক্টোবর ইন্দিরা গান্ধীর জন্মবার্ষিকীর পাশাপাশি ওই দিন দেশের প্রথম উপ-প্রধানমন্ত্রী সর্দার বল্লভ ভাই পটেলেরও জন্মদিন।  কংগ্রেসের তরফে ইন্দিরা গান্ধীর জন্মবার্ষিকী পালনের যে অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছিল, সেখানেই মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন ওই দুই নেতা। সেখানেই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিদ্দারামাইয়া তাঁর পাশের আসনে বসা শিবকুমারকে সর্দার বল্লভভাইয়ের ছবি না থাকা নিয়ে প্রশ্ন করেন।

ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োয়, সিদ্দারামাইয়াকে হালকা ঝুঁকে কন্নড় ভাষায় বলতে শোনা যায়, “সর্দার বল্লভ ভাই পটেলের ছবি নেই? আজ ওনারও জন্মবার্ষিকী।” জবাবে শিবকুমার বলেন, “স্যার, হ্য়াঁ, ওনারও জন্মবার্ষিকী জানি, কিন্তু আমরা তো ওনার ছবি কখনও রাখি না।”

সঙ্গে সঙ্গে সিদ্দারামাইয়া এ বার ইংরেজিতেই বলেন, “কিন্তু বিজেপির কী হবে? ওরা তো এটার সুযোগ তুলবে।” ,শিবকুমার কিছুটা অপ্রস্তুত হয়ে পড়েই বলেন, “আমরা তো কখনও কাউকে করতে দেখিনি।” সঙ্গে সঙ্গে পিছনেই দাঁড়ানো এক কর্মীকে তিনি আস্তে আস্তে জিজ্জাসা করেন, “আমাদের কাছে বল্লভভাই পটেলের ছবি আছে? যাও নিয়ে এসো।” প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীকে তিনি জানান, সর্দার বল্লভ ভাইয়ের ছবি রাখা হবে। জবাবে সিদ্দারামাইয়াও বলেন, “সেটাই ভাল হবে।”

গোটা আলাপচারিতার সময়ই দুজনের কেউই খেয়াল করেননি তাদের মাইকগুলি চালু ছিল। ফলে সমস্ত কথাবার্তাই শোনা গিয়েছে। সংবাদসংস্থা এনআইএ-র দাবি, বিজেপি বিধায়ক তথা প্রাক্তন মন্ত্রী এমপি রেণুকাচার্য্য এই ভিডিয়োটি প্রথম সকলের সামনে আনেন। এরপরই নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায় ভিডিয়োটি। যদিও এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করা হয়নি।

এদিকে, ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই বিজেপির তরফে তুমুল সমালোচনা করা হয়। বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সিটি রবি  কংগ্রেস নেত্রী সনিয়া গান্ধীকে কটাক্ষ করে টুইটে লেখেন, “এটা খুবই লজ্জাজনক যে চাকররা একজন ইটালিয়ানকে এত ভয় পায়। সর্দার বল্লভ ভাইকে নেহেরু বংশ কতটা ঘৃণা করে, তা নিয়ে যদি কারোর মনে সংশয় থাকে, তবে এই ভিডিয়োই তাঁর প্রমাণ। বিজেপির ভয় পেয়ে কংগ্রেস নেতা সিদ্দারামাইয়া ও ডিকে শিবকুমার সর্দার বল্লভ ভাই পটেলের ছবি ইন্দিরা গান্ধীর সঙ্গে রাখতে রাজি হলেন।”

যদিও এই বিষয়ে কংগ্রেসের দুই নেতাই মুখে কুলুপ এটেছেন। এর আগেও অক্টোবর মাসে কংগ্রেসের দুই নেতা সাংবাদিকদের সামনেই শিবকুমারের নামে কূটকচালি করতে গিয়ে ধরা পড়েন। ওই দুই নেতাও জানতেন না যে তাদের মাইক চালু রয়েছে এবং সমস্ত বক্তব্য রেকর্ড করা হচ্ছে। মঞ্চে বসেই দুই দেশে শিবকুমার ও তার এক সঙ্গীর বিষয়ে কথা বলছিলেন, যারা ৫০থেকে ১০০ কোটি টাকা কামিয়েছে। সেই সময়ও বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্য ভিডিয়োটি পোস্ট করে কংগ্রেসকে দুর্নীতি নিয়ে আক্রমণ করেছিলেন।

আরও পড়ুন: Farmers Laws Repeal: অপেক্ষা অধিবেশন শুরুর, কৃষি আইন প্রত্যাহারে অনুমোদন মন্ত্রিসভার 

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla