BSF on Taliban: তালিবানের লুঠ করা অস্ত্রই চোরাপথে আসতে পারে দেশে, উদ্বেগ বিএসএফের

BSF on Security: গোপন পথে তালিবানের লুঠ করা অস্ত্রই ভারতে পাচার এবং জঙ্গি কার্যকলাপে ব্য়বহার করা হতে পারে, এমনটাই উদ্বেগ বিএসএফের।

BSF on Taliban: তালিবানের লুঠ করা অস্ত্রই চোরাপথে আসতে পারে দেশে, উদ্বেগ বিএসএফের
ফাইল ছবি
TV9 Bangla Digital

| Edited By: ঈপ্সা চ্যাটার্জী

Dec 01, 2021 | 11:07 AM

নয়া দিল্লি: আফগানিস্তানে (Afghanistan) ক্ষমতা দখলের সময় যে বিপুল অস্ত্র ভাণ্ডার লুঠ করেছিল তালিবান (Taliban), তা গোপন পথে ভারতে পাচার এবং জঙ্গি কার্যকলাপে ব্য়বহার করা হতে পারে, এমনটাই উদ্বেগ বিএসএফ(BSF)-র। আফগানিস্তানের নতুন সরকার গঠনের পর যে ভারতে বিপদ বাড়তে পারে, তা প্রথমবার স্বীকার করে নিল সীমান্ত রক্ষী বাহিনী।

মঙ্গলবার বিএসএফের ডিরেক্টর জেনারেল পঙ্কজ সিং বলেন, “তালিবানি জঙ্গিরা বর্তমানে মুক্ত এবং তাদের হাতে অস্ত্র থাকায় উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। আমরা এই বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছি এবং দেশের নিরাপত্তায় মোতায়েন বাকি বাহিনীকেও অবগত করা হয়েছে।”

উল্লেখ্য, গত ১৫ অগস্ট কাবুল দখলের পরই গোটা আফগানিস্তানে নিজেদের রাজত্ব ঘোষণা করে তালিবান বাহিনী। মার্কিন বাহিনীর ফেলে যাওয়া বিপুল অস্ত্র ভাণ্ডারও লুঠ করে তারা। বিগত কয়েক মাস ধরেই একাধিক সময়ে তালিবানের হাতে অত্যাধুনিক অস্ত্র দেখা গিয়েছে। আফগানিস্তান দখলে পাকিস্তানের মদত থাকায়, প্রতিদান হিসাবে ভারতে লুকিয়ে থাকা পাক জঙ্গিগোষ্ঠীকে ওই অস্ত্র দিয়ে মদত করতে পারে তালিবান, এমনটাই সন্দেহ বিএসএফের। তালিবান ক্ষমতা দখবের পরই এই কারণে উপত্যকায় অতিরিক্ত নিরাপত্তা মোতায়েন করা হয়েছে।

প্যারামিলিটারি দিবস পালনের অনুষ্ঠানেই সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে বিএসএফের ডিরেক্টর জেনারেল বলেন, “ভারতের পশ্চিমে পাকিস্তান সীমান্ত লাগোয়া এলাকায় এখনও অবধি ৬৭টি ড্রোন দেখা গিয়েছে। প্রায় সময়ই যে ড্রোনগুলি সীমান্ত টপকে ভারতের মাটিতে ঢুকে পড়ছে, সেগুলি আকারে তুলনামূলকভাবে অনেকটাই ছোট। এদের অধিকাংশই চিনের তৈরি। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই এই ড্রোনের মাধ্যমে দেশের অন্দরে মাদক পাঠানো হচ্ছে।”

বিএসএফ কর্তা বলেন, “সীমান্তে ড্রোনের গতিবিধি আটকাতে আমরা অ্যান্টি-ড্রোন সিস্টেম লাগিয়েছি এবং সেগুলি ঠিকঠাক কাজও করছে। আমরা আরও উন্নত প্রযুক্তি কাজে লাগানোর চেষ্টা করছি। তবে ২৩০০ কিলোমিটার সীমান্ত এলাকা জুড়ে ড্রোনের প্রবেশ আটকানো যথেষ্ট ব্যয় সাপেক্ষ। সেই কারণে বিকল্প পদ্ধতির কথাও চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।”

কোনও দেশের কাছেই ড্রোনের গতিবিধি আটকানোর প্রযুক্তি নেই বলেই জানান বিএসএফের ডিজি। ভারত-পাক সীমান্তে এখনও অবধি দুটি ড্রোনকে গুলি করে নামিয়েছে বিএসএফ, একথাও জানান তিনি। সীমান্ত টপকিয়ে দেশে মাদকের পাশাপাশি অস্ত্র পাচারও করা হচ্ছে। তিনি বলেন, “আমরা গোয়েন্দা বাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগ করেছি। এছাড়া সীমান্ত লাগোয়া রাজ্যগুলির পুলিশ বাহিনীকেও সতর্ক করা হয়েছে। পঞ্জাব পুলিশ এই কাজে বিশেষ সহযোগিতা করছে।”

আরও পড়ুন: J&K Encounter: উপত্যকায় এনকাউন্টার অভিযানে বড় সাফল্য, জইশ কম্যান্ডার সহ নিকেশ দুই জঙ্গি 

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla