আলাপন এখন কেন্দ্রীয় সরকারের নাগালের বাইরে, কিন্তু শঙ্কার মেঘ রাজ্যের ৩ আইপিএস ঘিরে!

আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapan Bandyopadhyay) মুখ্য উপদেষ্টা পদে নিয়োগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। কিন্তু তাঁকে ঘিরে কেন্দ্র রাজ্য সংঘাতের নতুন করে আশঙ্কার মেঘ রাজ্যের আরও তিন আইপিএসকে (IPS) ঘিরে।

আলাপন এখন কেন্দ্রীয় সরকারের নাগালের বাইরে, কিন্তু শঙ্কার মেঘ রাজ্যের ৩ আইপিএস ঘিরে!
ফাইল ছবি
শর্মিষ্ঠা চক্রবর্তী

|

Jun 01, 2021 | 9:06 AM

কলকাতা: আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Alapan Bandyopadhyay) মুখ্য উপদেষ্টা পদে নিয়োগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। কিন্তু তাঁকে ঘিরে কেন্দ্র রাজ্য সংঘাতের নতুন করে আশঙ্কার মেঘ রাজ্যের আরও তিন আইপিএসকে (IPS) ঘিরে।

বিধানসভা ভোটের ঠিক মুখে ডায়মন্ডহারবারের শিরাকুলে সভা করতে গিয়েছিলেন বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। আচমকাই তাঁর কনভয়ে হামলা হয়। আঙুল ওঠে তৃণমূল কংগ্রেসের দিকে। সেই ঘটনার প্রভাব পড়ে রাজ্যের তিন পুলিশ কর্তার ওপর।

ডেপুটেশনে দিল্লি তলব করা হয় তিন জনকে। পাঁচ মাস আগে ঘটে যাওয়া সেই ঘটনা আবারও প্রাসঙ্গিত আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে কেন্দ্র করে। নাড্ডার কনভয়ে হামলার সময়ে পুলিশ সুপার ছিলেন ভোলানাথ পাণ্ডে (Bholanath Pandey)। হামলার ঘটনার পর ভোলানাথ ছাড়াও ডিআইজি প্রেসিডেন্সি রেঞ্জ প্রবীণ ত্রিপাঠী (Pravin Tripathi) (বর্তমানে ডিআইজি প্রভিশনিং) এবং আইজি দক্ষিণবঙ্গ রাজীব মিশ্র (Rajib Mishra)(বর্তমানে এডিজি প্ল্যানিং ) রাজ্য ক্যাডার থেকে বদলি করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। এই তিন জন আইপিএসকেই আধাসেনায় বদলি করা হয়।

কেন্দ্রের নির্দেশের পরেও রাজ্য সরকার ৩ আইপিএসকে ছাড়েনি। অনড় কেন্দ্রও তাদের নির্দেশ প্রত্যাহার করেনি। ফলে প্রশাসনিক অচলাবস্থার মধ্যেই তিন জন রাজ্য ক্যাডারের বিভিন্ন পদে কর্মরত। এই ঘটনার পরও নাড্ডা একাধিকবার রাজ্যে এসেছেন। ওই তিন আইপিএসের পরবর্তী সময়ের কাজ নিয়েও কোনও প্রতিকূল রিপোর্ট দেয়নি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। ফলে তাঁদের কেন্দ্র নির্দিষ্ট পদে যোগ না দেওয়ার বিষয়টি ধামাচাপা পড়ে যায়।

রাজ্য শীর্ষ আইপিএস মহলের আশঙ্কা, আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে শুরু হওয়া সংঘাত ফের সামনে চলে আসতে পারে ওই তিন আইপিএসের বিষয়টি। শীর্ষ আমলাদের আশঙ্কা, বিষয়টি নিয়ে নাড়াচাড়া শুরু হলে বিপদ বাড়বে ওই তিন আইপিএস কর্তার। ৩ আইপিএস রাজ্য ক্যাডারে কাজ করলেও, কেন্দ্রের নির্দেশ লঙ্ঘনের দায়ে শৃঙ্খলাভঙ্গে অভিযুক্ত হতে পারেন। তাঁদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হতে পারে। এমনকি নির্দিষ্ট পদে যোগ না দেওয়ার জন্য বেতন বন্ধ করে দেওয়া হতে পারে। সাসপেন্ড করা হতে পারে তিন আইপিএস কর্তাকে। তাই আলাপন ইস্যুকে সামনে রেখে তীব্র অস্বস্তি আইপিএস মহলে।

আরও পড়ুন: নতুন ভূমিকায় আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়! মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা হিসাবে কত বেতন পাবেন তিনি? পাবেন আর কী কী সুবিধা?

যদিও প্রশাসনিক ভবনের একাংশের মতে, তিন আইপিএসের বিষয়টি ‘ক্লোসড চ্যাপ্টার’। ওই নিয়ে নতুন করে আর কোনও পদক্ষেপ না করার সম্ভাবনাই বেশি।

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla