দিনে দুপুরে সেক্টর ফাইভে মুণ্ডকাটা দেহ উদ্ধার! অবশেষে পুলিশের জালে অভিযুক্ত

তবে কী কারণে এই খুন তা এখনও পর্যন্ত পুলিশের (Saltlake) কাছে স্পষ্ট নয়। পাশাপাশি আরেক ভাই অর্থাৎ সন্তোষ যাদব এখনও পলাতক। তাঁর খোঁজে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।

দিনে দুপুরে সেক্টর ফাইভে মুণ্ডকাটা দেহ উদ্ধার! অবশেষে পুলিশের জালে অভিযুক্ত
ফাইল চিত্র।

কলকাতা: শরীরে ছিল না পোশাক। গলা থেকে সমান করে কাটা মুণ্ড! মাস দু’য়েক আগে সল্টলেক সেক্টর ফাইভ এলাকায় দিনে দুপুরে উদ্ধার হয়েছিল এমনই এক বীভৎস দেহ। কর্মব্যস্ত সেক্টর ফাইভের এই ঘটনা আলোড়ন ফেলেছিল। তারই তদন্তে নেমে এবার মৃতের ভাইকে গ্রেফতার করল ইলেকট্রনিক্স কমপ্লেক্স থানার পুলিশ। মহিষবাথান থেকে পাপ্পু যাদব নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করা হয়।

গত এপ্রিল মাসের ৮ তারিখ সল্টলেক সেক্টর ফাইভ এলাকার মোল্লার ভেরির পাশ থেকে পবন যাদব নামে এক ব্যক্তির গলা কাটা দেহ উদ্ধার করে ইলেকট্রনিক কমপ্লেক্স থানার পুলিশ। তদন্তে নেমে তারা জানতে পারে, পবন বিহারের বাসিন্দা। কর্মসূত্রে সল্টলেকে ঘর ভাড়া নিয়ে থাকতেন। সঙ্গে থাকতেন ভাই পাপ্পু যাদব ও সন্তোষ যাদব।

এদিকে পবনের মৃত্যুর পর থেকেই খোঁজ ছিল না সন্তোষ ও পাপ্পুর। ফলে পুলিশের সন্দেহ আরও বাড়তে থাকে। তাঁদেরই স্ক্যানারে রেখে তদন্ত শুরু হয়। বিভিন্ন জায়গায় তাঁদের খোঁজে তল্লাশি চলে। অবশেষে বৃহস্পতিবার রাতে মহিষবাথান এলাকা থেকে পাপ্পু যাদবকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে পুলিশ জানতে পেরেছে, পাপ্পু যাদব এবং সন্তোষ যাদবই তাঁদের অন্য ভাই পবন যাদবকে খুন করেছেন।

আরও পড়ুন: ত্রিপল চুরি মামলায় আদালতের রক্ষাকবচ অধরা শুভেন্দু-সৌমেন্দুর

তবে কী কারণে এই খুন তা এখনও পর্যন্ত পুলিশের কাছে স্পষ্ট নয়। পাশাপাশি আরেক ভাই অর্থাৎ সন্তোষ যাদব এখনও পলাতক। তাঁর খোঁজে বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ। ধৃত পাপ্পু যাদবকে শুক্রবার বিধাননগর মহকুমা আদালতে তোলা হবে। পুলিশ তাঁকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে তদন্ত এগোতে চায়। পাপ্পুকে জেরা করে সন্তোষের নাগালও পাওয়া যাবে বলে আশাবাদী পুলিশ।

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla