নারদ মামলায় তৃণমূলের হয়ে আইনি লড়াইয়ে নামছেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি, সঙ্গে থাকছেন কল্যাণ

গতকালকের শুনানিতে রাজ্য বা চার নেতার আইনজীবীকে শামিল করা হয়নি। যা একপ্রকার নজিরবিহীন ঘটনা বলেই মনে করছে আইনজীবী মহল।

নারদ মামলায় তৃণমূলের হয়ে আইনি লড়াইয়ে নামছেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি, সঙ্গে থাকছেন কল্যাণ
ফাইল ছবি

কলকাতা: নারদকাণ্ডে চার নেতার জামিন নিশ্চিত করতে তৃণমূলের হয়ে এ বার আইনি লড়াইয়ে নামতে চলেছেন কংগ্রেসে রাজ্যসভার সাংসদ অভিষেক মনু সিঙ্ঘভি। তাঁর সঙ্গে কলকাতা হাইকোর্টে এই মামলা লড়বেন তৃণমূলের সাংসদ তথা আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এমনটাই খবর সূত্রের। আগামিকাল কলকাতা হাইকোর্টে নারদ মামলার এই শুনানি হবে বলে জানা গিয়েছে।

সোমবার সকালে গ্রেফতারির পর বিশেষ সিবিআই আদালতে জামিন পেয়ে যান ফিরহাদ হাকিম, সুব্রত মুখোপাধ্যায়, মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু তাঁদের বেনজিরভাবে নিজাম প্যালেসে আটকে রাখা হয়। রাতেই কলকাতা হাইকোর্টে দ্বারস্থ হয়ে জামিনের নির্দেশে স্থগিতাদেশ আদায় করে আনে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। একই সঙ্গে গতকালের অশান্তির ঘটনার কথা উল্লেখ করে সিবিআই এই মামলা অনত্র নিয়ে যাওয়ার আবেদন জানায়। যদিও তাৎপর্যপূর্ণ বিষয় হল, গতকালকের শুনানিতে রাজ্য বা চার নেতার আইনজীবীকে শামিল করা হয়নি। যা একপ্রকার নজিরবিহীন ঘটনা বলেই মনে করছে আইনজীবী মহল।

আরও পড়ুন: ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে রাজ্যকে নোটিস সুপ্রিম কোর্টের

মামলাটির পুনর্বিবেচনার জন্য এ দিনই পুনরায় আপিল করা হয়েছিল কলকাতা হাইকোর্টে। প্রাথমিকভাবে এ দিনই মামলাটির শুনানি হওয়ার কথা ছিল। তবে পরবর্তী সময় জানানো হয়, আজ নয়, আগামিকাল এই মামলাটির শুনানি হবে আদালতে। যেখানে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে লড়বেন অভিষেক মনু সিঙ্ঘভিও। সঙ্গে থাকছেন কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। ফলে এই রাজ্যের দুই প্রাক্তন এবং দুই বর্তমান মন্ত্রী জামিন পাবেন কি না সেটা জানার জন্য আগামিকাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

আরও পড়ুন: জামিনে স্থগিতাদেশে পুনর্বিবেচনার আর্জি, হাইকোর্টের দ্বারস্থ চার হেভিওয়েট