Roopa Ganguly: রাজ্য-কেন্দ্রের ঝামেলা হলেই শুধু সিবিআই চাইতে হবে? ফের বিস্ফোরক রূপা

Roopa Ganguly: যদি দুর্ঘটনা হয় সেখানেও কোনও গাফিলতি রয়েছে বলেই মত রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের।

Roopa Ganguly: রাজ্য-কেন্দ্রের ঝামেলা হলেই শুধু সিবিআই চাইতে হবে? ফের বিস্ফোরক রূপা
বিস্ফোরক বক্তব্য রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের। নিজস্ব চিত্র।


কলকাতা: উত্তরবঙ্গ রেল দুর্ঘটনা প্রসঙ্গে রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের বিস্ফোরক ফেসবুক পোস্ট। বিজেপির সাংসদ রূপা এই ঘটনায় সিবিআই তদন্তের দাবি করেছেন। স্বভাবতই তাঁর মতো একজন নেত্রীর এই পোস্ট ঘিরে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। একদিকে তৃণমূল যেমন রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের এই পোস্টে রাজনীতি খুঁজে পাচ্ছেন। বঙ্গ বিজেপি শিবির থেকেও তেমনই রূপার জন্য পরামর্শ এসেছে, অকারণে বিতর্ক তৈরির কিছু নেই। যদিও রূপা গঙ্গোপাধ্যায় নিজের মন্তব্যে অনড় থেকেই জানান, “এমন তো জরুরি নয় যে রাজ্যের সঙ্গে কেন্দ্রের ঝঞ্ঝাট হলে তবেই সিবিআই চাইতে হবে? যে কোনও রকম তদন্ত নিরপেক্ষ হোক এটাই তো চাওয়ার। এটা আমার ব্যক্তিগত মতামত।”

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের বক্তব্য

টিভি নাইন বাংলাকে রূপা গঙ্গোপাধ্যায় জানান, “রেলমন্ত্রক উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত করছে। আমি একটা নিরপেক্ষ তদন্তে বিশ্বাস করি। এমন তো জরুরি নয় যে রাজ্যের সঙ্গে কেন্দ্রের ঝঞ্ঝাট হলে তবেই সিবিআই চাইতে হবে। রাজ্যের সঙ্গে কিছু হলেই আমাকে সিবিআইয়ের কথা বলতে হবে, সেটাই বা জরুরি কেন? যে কোনও রকম তদন্ত নিরপেক্ষ হোক এটাই সকলে চায়। এটা আমার ব্যক্তিগত মতামত। আমি তো রাজ্য বিজেপির তরফ থেকে বলছি না, আমার মতটা আমি ফেসবুকে লিখেছি। আমার মনে হয় একটা সিবিআই তদন্ত হলে অনেক কিছু বেরোবে। আমি খুব খুশি হব যদি শুনি যে এটা একটা নিছকই দুর্ঘটনা।”

দুর্ঘটনা হলেও তো গাফিলতি!

যদি দুর্ঘটনা হয় সেখানেও কোনও গাফিলতি রয়েছে বলেই মত রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের। রূপা বলেন, “এটাও মাথায় রাখতে হবে দুর্ঘটনা হলেও সেটা তো একটা গাফিলতি। কোন বগিটা প্রথম উল্টে গেল, কেন উল্টে গেল, শুনেছি তার আগে একটা আওয়াজ হয়েছে। সেটা কিসের আওয়াজ? এখানে একে অপরকে দোষারোপের জায়গা নয়। অনেকগুলো মানুষের জীবন যুক্ত থাকে এই রেল দুর্ঘটনায়। সেখানে কোথায় কী খামতি হল তা জানার জন্য একটা নিরপেক্ষ তদন্ত দরকার। এখন সমস্যা হচ্ছে আমাদের রাজ্যে, কিছুটা দেশেও রাজনীতিটা এমন একটা জায়গায় পৌঁছে গিয়েছে যেখানে সারাক্ষণ খালি অন্যকে দোষ দেওয়া। নিজেরও দোষ থাকলে সেটাও বার করা দরকার।”

এখানে রাজনীতির কোনও অবকাশ নেই

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের ফেসবুক পোস্ট সম্পর্কে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, “রেল দুর্ঘটনা মর্মান্তিক। সেটা নিয়ে রাজনীতি করার জায়গা নেই। যে ঘটনা ঘটেছে তাতে রেল, রাজ্য প্রশাসন উদ্ধার ও ত্রাণের কাজ চালাচ্ছে। তদন্ত হচ্ছে। তাও হবে। এখন যদি বিজেপি সাংসদের হঠাৎ মনে হয়, তাহলে বলব রেল তো কেন্দ্র সরকারের। তারা বুঝুন তারা লাইন ঠিক করে দেখেছেন কিনা। মন্ত্রীও তাদের। তিনিও তো এ কথা বলেননি। এ তো বাঁশের চেয়ে কঞ্চি দড় হয়ে যাচ্ছেন। মন্ত্রী যা বলছেন, যে ধরনের ইঙ্গিত দিচ্ছেন সেখান থেকে সরে হঠাৎ করে একটা দাবি করা হচ্ছেন তদন্ত যা যা হওয়ার হবে। এখানে কোনও রাজনীতির অবকাশ আছে বলে মনে করি না।”

ফেসবুক অভিশাপে পরিণত হবে, মত শমীকের

রূপা গঙ্গোপাধ্যায়ের মতের সঙ্গে খুব একটা সম্মতি যে বঙ্গ বিজেপি শিবিরের নেই তা শমীক ভট্টাচার্যের বক্তব্যে প্রতিফলিত। এদিন রূপার বক্তব্য প্রসঙ্গে শমীক ভট্টাচার্য বলেন, “কী কারণে দুর্ঘটনা তার তদন্ত করা হবে। এ নিয়ে বিতর্কের কোনও প্রয়োজন নেই। একদিন ফেসবুক মানব সভ্যতার অভিশাপ হয়ে দাঁড়াবে।”

রূপার ফেসবুক পোস্ট

ফেসবুকে রূপা লিখেছেন, “ট্রেন কি নিজে নিজেই ডি-রেল হয়? রেল ট্র্যাক কি বেচারা বোঝে, ভাই, ইলেকশন সামনে, রেল নিয়ে অনেক বছর কোনও বাজে খবর হয়নি, মানুষের প্রাণ নিয়ে ছেলেখেলা…সিবিআই তদন্ত হওয়া উচিত”। এরমধ্যে খেলা শব্দটি ইংরেজিতে বড় হরফে লেখা। হ্যাশট্যাগ দিয়ে লেখা ‘সিবিআই ইনভেস্টিগেশন রিকোয়ার্ড’।

আরও পড়ুন: Bikaner-Guwahati Express Train Accident: ‘মানুষের প্রাণ নিয়ে ছেলেখেলা…সিবিআই তদন্ত হোক’

Published On - 7:04 pm, Fri, 14 January 22

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla