সাংসদ নুসরতের শপথবাক্য পাঠের ভিডিয়ো টুইট মালব্যর, কুণাল বললেন ‘তর্ক শুরু হলে বিজেপির পক্ষে ভাল হবে না’

'তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান রুহি জৈনের (Nusrat Jahan) ব্যক্তিগত জীবন, উনি কাকে বিয়ে করেছেন, কার সঙ্গে থাকেন সেটা অন্য কারও দেখার বিষয় নয়...।'

সাংসদ নুসরতের শপথবাক্য পাঠের ভিডিয়ো টুইট মালব্যর, কুণাল বললেন 'তর্ক শুরু হলে বিজেপির পক্ষে ভাল হবে না'
ফাইল চিত্র।

কলকাতা: একদিকে তিনি অভিনেত্রী, অন্যদিকে রাজ্যের শাসকদলের সাংসদ। নুসরত জাহানের (Nusrat Jahan) ব্যক্তিগত জীবন তাই এখন ‘জনতার দরবারে’। সম্প্রতি নুসরত জাহান বিবৃতি দিয়েছেন, তিনি আইনগত ভাবে কারও সঙ্গেই বৈবাহিক বন্ধনে আবদ্ধ হননি। নিখিল জৈন তাঁর লিভ-ইন পার্টনার ছিলেন। এই বক্তব্য ঘিরে একদিকে যেমন তারকা নসুরতকে নিয়ে নানা প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে, একই ভাবে তাঁর রাজনৈতিক সততা নিয়েও প্রশ্ন তুলছে বিরোধীরা।

বৃহস্পতিবারই বিজেপির অমিত মালব্য টুইটারে সংসদ ভবনের একটি ভিডিয়ো ক্লিপ শেয়ার করেন। সেখানে সাংসদ হিসাবে নুসরত জাহানের শপথবাক্য পাঠের মুহূর্ত রয়েছে। ভিডিয়োটি শেয়ার করে অমিত লেখেন, ‘তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান রুহি জৈনের ব্যক্তিগত জীবন, উনি কাকে বিয়ে করেছেন, কার সঙ্গে থাকেন সেটা অন্য কারও দেখার বিষয় নয়। কিন্তু উনি একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং অন রেকর্ড উনি পার্লামেন্টে দাঁড়িয়ে জানিয়েছিলেন নিখিল জৈনকে তিনি বিয়ে করেছেন। উনি কি সংসদ ভবনের কক্ষে দাঁড়িয়ে মিথ্যা কথা বলেছিলেন?’

স্বভাবতই বিজেপি নেতার এই টুইটে রাজনৈতিক তরজা উস্কে ওঠে। বিজেপির তরফে তৃণমূল সাংসদের স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। শপথগ্রহণের সময় সাংসদের মিথ্যাচারের অভিযোগও তোলে গেরুয়া শিবির। এদিন তারই পাল্টা তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ লেখেন, ‘প্রসঙ্গ নুসরত জাহান: বিষয়টি ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে রাজনীতি বা দলের কোনও সম্পর্ক নেই। বিজেপির মালব্য এসব নিয়ে টুইট না করাই ভাল। তর্ক শুরু হলে বিজেপির পক্ষে ভাল হবে না। তৃণমূল মানুষের কাজ নিয়ে ব্যস্ত।’

আরও পড়ুন: কোভিডে পোয়া বারো রক্তের কালোবাজারিদের, এক ইউনিট রক্তের দাম ৫ হাজার টাকা!

সম্প্রতি নুসরতের সন্তান সম্ভাবনার খবর ঘিরে শোরগোল শুরু হয় টলিপাড়ায়। এরইমধ্যে নুসরতের ‘স্বামী’ নিখিল জৈন দাবি করেন, নুসরতের সন্তানসম্ভাবনা নিয়ে তিনি কিছু জানেন না। সে সম্ভাবনা সত্যি হলে তিনি সেই সন্তানের বাবা নন বলেও জানিয়ে দেন। নিখিলের বিতর্কিত এই মন্তব্যে জল যে গড়ানো শুরু হয়েছে, তা কোথায় থামবে এখনও অননুমেয়। তবে এ ঘটনা ঘিরে রাজনীতির চাকা যে গড়াতে শুরু করেছে তা বোঝাই যাচ্ছে।

যদিও এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ বলেন, “এখনও পর্যন্ত শুধু এটুকুই বলব যে নুসরত জাহান দলের সাংসদ হতে পারেন, কিন্তু এ বিষয়টি পুরোপুরি ব্যক্তিগত। এর সঙ্গে রাজনীতির বা দলের কোনও সম্পর্ক নেই। আমি আশা করব বিজেপিও এই ধরনের বিষয়ে কোনও কুৎসামূলক প্রচার করবে না।”