৫০ হাজার পেরিয়েও প্রশ্ন, কোন ‘জাদুবলে’ বাড়ছে সেনসেক্স?

সোমনাথ মিত্র

সোমনাথ মিত্র | Edited By: veegamteam

Updated on: Nov 16, 2021 | 1:57 PM

২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার পর সেনসেক্স পৌঁছয় ২৫ হাজার পয়েন্টে। এই সরকারের এক দশকে প্রায় দ্বিগুন হয়েছে শেয়ার বাজারের সূচক

৫০ হাজার পেরিয়েও প্রশ্ন, কোন 'জাদুবলে' বাড়ছে সেনসেক্স?
প্রতীকী চিত্র

নয়া দিল্লি: এভারেস্টের উচ্চতা ৮,৮৪৯ মিটার! একক যাই হোক না কেন, বৃহস্পতিবার সেনসেক্স যে শিখর ছুঁল, তা এভারেস্ট জয়ের থেকে কম কিছু নয়! সেনসেক্সের এই শিখর ছোঁয়ার পিছনে কম চড়াই-উৎরাইয়ের গল্প নেই! রেখচিত্রের ওঠা-নামার ভাঁজে ভাঁজে লুকিয়ে রয়েছে দেশ বদলানোর ইতিহাস। বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের (Bombay Stock Exchange) এই সূচকের নাম যখন সেনসেক্স (Sensex) রাখা হয়, তখন তার ‘বয়স’ ৭৫০ (পয়েন্টের হিসাবে)। সালটা ১৯৮৯। বেশিদিন সময় নেয়নি চার সংখ্যায় নিজেকে নিয়ে যেতে। ১৯৯০-এর ২৫ জুলাই সেই প্রথম হাজার স্পর্শ করে দালাল স্ট্রিটের অন্যতম সূচক। তারপর আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। প্রায় ৩ দশক পর আজ, লক্ষ্মীবারে ঐতিহাসিক মূহূর্তে দাঁড়িয়ে ভারতের শেয়ার বাজার। অতিমারি পরিস্থিতেও স্টক মার্কেটের মেরুদণ্ড যে এতটা সোজা! তা দেখে আপ্লুত হওয়াটই স্বাভাবিক। তবে, কোন ‘জাদুবলে’ দাঁড়িয়ে! তা বিস্ময়ে বিশেষজ্ঞরাও।

সেনসেক্স প্রথম হাজার ছুঁল যে বছর, মনে করা হয় দারুণ বর্ষা এবং কর্পোরেট সংস্থাগুলির ভাল ফল হওয়ায় সূচকের এই অভূতপূর্ব বৃদ্ধি। এর পর সোভিয়েত ইউনিয়নের পতন। বিশ্বের সঙ্গে ভারতের দ্রুত কূটনৈতিক পট পরিবর্তন। এর সঙ্গে নতুন অর্থনীতির সন্ধানে এগোচ্ছে দেশ। তখন ২৮ হাজার কোটি ডলারের জিডিপি। নরেন্দ্র মোদী সরকারের মতো ৫ লক্ষ কোটি ডলারের জিডিপি তৈরির স্বপ্ন দেখার সাহস তখনও হয়নি। কিন্তু সেই স্বপ্নের বীজ বপন শুরু হয় যায় পি ভি নরসীমা রাওয়ের সরকারের জমানা থেকেই। উদার অর্থনীতির দরজা খুলে দেওয়ার সাহস দেখিয়েছিলেন তৎকালীন অর্থমন্ত্রী মনমোহন সিং। আর সেই সুবাদে শেয়ার বাজারে আরও একধাপ উত্থান হয়। ১৯৯২ সালের ১৫ জানুয়ারি সেনসেক্স সূচক অতিক্রম করে ২ হাজার পয়েন্টে।

সেই বছর ফেব্রুয়ারিতে অর্থমন্ত্রী মনমোহন সিং যখন বাজেট পেশ করলেন, তাঁর ঘোষণা ইস্তক ৩ হাজার পৌঁছে যায় সেনসেক্স। মাসে খানেক পর আরও ১ হাজার পয়েন্টের ভিত্তি। এত দ্রুত উত্থানে স্বভাবতই ভয়ে ছিলেন আমজনতা। দ্রুত পাল্টে যাচ্ছে বাজার অর্থনীতি। বিদেশি বিনিয়োগের বহরে চাকচিক্য আসে সাধারণ মানুষের জীবনযাপনে। বলা যায়, সাদা-কালো জীবন থেকে রঙিন দুনিয়া প্রবেশ করতে চলেছে ভারত। ঠিক সেই সময় শেয়ার বাজারে সুনামি আছড়ে পড়ে। যে স্বপ্ন নিয়ে শেয়ার বাজার ‘বুল রান’ শুরু করেছিল, হরশদ মেহাতার দুর্নীতি প্রকাশ্যে আসায় মুখ থুপড়ে পড়ল এক ধাক্কায়। ১৯৯২ সালে ২৮ এপ্রিল প্রায় ১২ শতাংশ শেয়ার পড়ে বাস্তবের মাটিতে দাঁড় করায় দালাল স্ট্রিটকে। হরশদ মেহাতার আর্থিক কেলেঙ্কারির পর থেকে নিজেদের নতুন করে সাজাতে শুরু করে বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জ।

এরপর নতুন মাইলস্টোন ছুঁতে কয়েক বছর সময় লেগে যায়। ১৯৯৯ সালে অটল বিহারী বাজপেয়ীর সরকার ক্ষমতায় আসার খবরে প্রথম ৫ হাজার ছুঁল সেনসেক্স। এক শতাব্দীর শেষ আর নতুন শতাব্দীর শুরুর সন্ধিক্ষণে ধীরে ধীরে তথ্য প্রযুক্তির যে বিপ্লব শুরু হয়, শেয়ার বাজারেও তার প্রভাব পড়তে লাগল। ২০০০ সালে ৬ হাজার অতিক্রম করে সেনসেক্স। ২০০৫ সালে রিলায়্যান্স গোষ্ঠীর দুই কর্ণধার মুকেশ এবং অনিল অম্বানির নিজেদের সংস্থার অংশীদারিত্ব নিয়ে নয়া সিদ্ধান্তে ৭ হাজারের শিখর ছোঁয় এই সূচক। এরপর দেখা গিয়েছে বিশ্বজুড়ে আর্থিক মন্দা। আমেরিকার মতো শক্তিশালী অর্থনীতি তাসের ঘরে মতো ভেঙে পড়ে। ২০০৭ থেকে ০৮ সাল পর্যন্ত আর্থিক মন্দার প্রভাব পড়ে ভারতের শেয়ার বাজারে। তবে, তুলনামূলক ভাবে ভারতের অর্থনীতি কিছুটা মাথা তুলে দাঁড়াতে পেরেছিল ইউপিএ জমানায়। এর মধ্যেও প্রায় দশ হাজার পয়েন্ট সেনসেক্সের বৃদ্ধি দেখা গিয়েছে। এরপর ডিসেম্বর মাসে ২০ হাজারে পৌঁছে নতুন মাইলস্টোন তৈরি করে বম্বে স্টক এক্সচেঞ্জের এই সূচক।

আরও পড়ুন- প্রজাতন্ত্র দিবসে ট্রাক্টর র‌্যালির ভাগ্য নির্ধারণে কৃষকদের সঙ্গে ফের বৈঠকে দিল্লি পুলিস

২০১৪ সালে নরেন্দ্র মোদী ক্ষমতায় আসার পর সেনসেক্স পৌঁছয় ২৫ হাজার পয়েন্টে। এই সরকারের এক দশকে প্রায় দ্বিগুন হয়েছে শেয়ার বাজারের সূচক। অর্থনীতিও তরতরিয়ে বৃদ্ধি হয়েছে। উল্লেখ্য, ২০১৪ থেকে ২০১৯ সাল, এই পাঁচ বছরে ১০ হাজার পয়েন্ট বৃদ্ধি হয় সেনসেক্সের। শেষ দু’বছরে এই বৃদ্ধি আরও তরাণ্বিত হয়েছে। এই বৃদ্ধির মধ্যে আশঙ্কাও থেকে যাচ্ছে বলে মত বিশেষজ্ঞদের একাংশের। ২০২৪ সালের ৫ লক্ষ কোটি ডলারের জিডিপি লক্ষ্যমাত্রা নিয়েছে মোদী সরকার। কিন্তু সার্বিক বৃদ্ধি ক্ষেত্রে এখনও কোনও লক্ষণ দেখা যায়নি। অতিমারি এবং লকডাউনের জোড়া ফলায় বিদ্ধ দেশের অর্থনীতি। ঋণে জর্জরিত ব্যাঙ্ক। চলতি অর্থবর্ষে প্রথম ত্রৈমাসিকে প্রায় ২৫ শতাংশে জিডিপি যে সঙ্কুচিত হয় এখনও তা মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি। এর মধ্যে শেয়ার বাজারই একমাত্র দাঁড়িয়ে। লাখ টাকার প্রশ্ন, কোন ‘জাদুবলে’ বাড়ছে সেনসেক্স?

Latest News Updates

Follow us on

Related Stories

Most Read Stories

Click on your DTH Provider to Add TV9 Bangla